Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ২০ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ৪ ১৪২৮ ||  ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

মুমিনুলদের পাকিস্তান সিরিজের প্রস্তুতি জাতীয় লিগে

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:০৫, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১   আপডেট: ১২:১৩, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১
মুমিনুলদের পাকিস্তান সিরিজের প্রস্তুতি জাতীয় লিগে

যখন সাকিব-মুশফিকরা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে, তখন দেশের মাটিতে সাদা পোশাকে খেলবেন মুমিনুল হকরা। অক্টোবরে জাতীয় ক্রিকেট লিগ দিয়ে ফিরবে ঘরোয়া ক্রিকেট। টেস্ট দলের নিয়মিত ক্রিকেটারদের উপস্থিতিতে শুরু হবে এই লিগ। মুমিনুল, সাদমান, সাইফ, ইয়াসির, মিরাজ, রাহীরা লিগের শুরু থেকেই খেলবেন। মাঠে নামবেন তামিম ইকবালও।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন তামিম। নেপালে এভারেস্ট প্রিমিয়ার লিগ খেলে ফিরে এসে জাতীয় লিগের তিন রাউন্ড খেলবেন তিনি। পাকিস্তান সিরিজের আগে জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা জাতীয় লিগ দিয়ে সর্বোচ্চ সুবিধা আদায় করতে পারবেন বলে বিশ্বাস করেন জাতীয় নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন।

রোববার হাবিবুল বাশার বলেছেন, ‘বিশ্বকাপের পরপরই আমাদের কিছু টেস্ট ম্যাচ আছে। এটা (জাতীয় লিগ) কিন্তু খেলোয়াড়দের তৈরি করার জন্যে ভালো একটি সুযোগ। আমরা খুব একটা টেস্ট খেলার সুযোগ পাইনি। অনুশীলন ম্যাচ আর প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচের মধ্যে তো পার্থক্য অবশ্যই আছে। পাকিস্তান সিরিজের আগের জাতীয় লিগের মাধ্যমে পর্যাপ্ত প্রস্তুতি হবে বলে মনে করি।’

জাতীয় দলের ক্রিকেটারদেরও প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে মনোযোগ বাড়ানোর পরামর্শ দিলেন হাবিবুল, ‘আমরা চাই যতদূর সম্ভব (জাতীয় ক্রিকেটাররা) খেলুক। টেস্ট ম্যাচের আগে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট যত খেলবে তত ভালো।’

পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে বাংলাদেশ টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের লড়াই শুরু হবে, যার প্রথম আসরে তাদের পারফরম্যান্স ছিল হতশ্রী। সাত ম্যাচে বাংলাদেশ হেরেছিল ছয়টিতেই। শ্রীলঙ্কার মাটিতে ড্র করে ২০ পয়েন্ট ভাগাভাগি করেছিল মুমিনুল হকের দল।

এর আগে ভারতের মাটিতে ২-০, পাকিস্তানের মাটিতে ১-০ এবং দেশের মাটিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২-০ ব্যবধানে হেরেছিল বাংলাদেশ। টেস্ট ‘বিশ্বকাপের’ দ্বিতীয় আসরে ভালো করতে মুখিয়ে বাংলাদেশ। এজন্য সেরা প্রস্তুতি নিয়ে ক্রিকেটারদের মাঠে নামাতে চায় বোর্ড।

শুরুটা যেহেতু দেশের মাটিতে হচ্ছে। পর্যাপ্ত প্রস্তুতি নিয়ে মাঠে নামবে বলে দলকে নিয়ে বেশ আশাবাদী হাবিবুল, ‘এবার আমরা প্রস্তুতি নিয়ে নামতে যাচ্ছি। আমি আশা করছি যে, এবার আমরা ভালো শুরু করতে পারব। শুরুটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। গতবার আমরা যখন শুরু করেছি, তখন আমরা ভালো করতে পারিনি। তাদের (পাকিস্তান সফর) সঙ্গে প্রতিযোগিতা করতে হবে, এজন্য একটু বেগ পেতেই হবে। ভালোভাবে শুরু করতে চাই। এবার আমরা দেশের মাটিতে খেলতে পারছি। যদিও পাকিস্তান টেস্টে খুব ভালো দল। আমাদের ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য এটাই সঠিক সময়।’

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালের চারদিন পর ১৯ নভেম্বর বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু হবে মিরপুরে। পরের দুটি ম্যাচ একই ভেন্যুতে ২০ ও ২২ নভেম্বর। এরপর দুই দল দুটি টেস্ট খেলবে চট্টগ্রাম ও ঢাকায়। ২৬ থেকে ৩০ নভেম্বর চট্টগ্রামে প্রথম টেস্ট। ৪ থেকে ৮ ডিসেম্বর ঢাকায় হবে দ্বিতীয় টেস্ট।

ঢাকা/ইয়াসিন/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ