Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ০৭ ডিসেম্বর ২০২১ ||  অগ্রহায়ণ ২৩ ১৪২৮ ||  ০১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

চেন্নাইয়ের চতুর্থ নাকি কলকাতার তৃতীয়?

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:৪০, ১৫ অক্টোবর ২০২১   আপডেট: ১০:৪৭, ১৫ অক্টোবর ২০২১
চেন্নাইয়ের চতুর্থ নাকি কলকাতার তৃতীয়?

আইপিএলের ইতিহাসে গত আসরে প্রথমবার লিগ পর্বেই ছিটকে গিয়েছিল চেন্নাই সুপার কিংস। ফাইনালের সবচেয়ে পরিচিত মুখ আরেকবার শিরোপার লড়াইয়ে। তাদের নবম ফাইনালে প্রতিপক্ষ কলকাতা নাইট রাইডার্স, যারা ফিনিক্স পাখির মতো ভস্ম থেকে নতুন রূপে হাজির হয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত পর্বে।

তিনবারের চ্যাম্পিয়ন চেন্নাইয়ের লক্ষ্য চতুর্থ শিরোপা। আর তাদের হারিয়ে তৃতীয়বার চ্যাম্পিয়ন হয়ে আইপিএলে যৌথভাবে দ্বিতীয় সফল দল হওয়ার মিশন কলকাতার। আজ শুক্রবার (১৫ অক্টোবর) রাতে দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে ১৪তম আইপিএলের ফাইনাল।

গত মার্চে শুরু হওয়া আইপিএলের পর্দা নামছে আজ রাতে। করোনাভাইরাসের কারণে মে মাসে স্থগিত হওয়া টুর্নামেন্টটি ভারত থেকে গত সেপ্টেম্বরে সরিয়ে নেওয়া হয় আমিরাতে। এই পর্বে সবচেয়ে বড় চমক দেখিয়েছে কলকাতা। ভারত পর্বে সাত ম্যাচে মাত্র দুটি জেতা দলটি ঘুরে দাঁড়ায় দারুণভাবে। তারা ফিরিয়ে আনছে ২০১৪ সালের স্মৃতি। ওইবারও সাত ম্যাচে দুটি জয় পাওয়া দলটি পরের প্রত্যেকটি ম্যাচ জিতেছিল। তারপর ফাইনালে তারা কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে হারিয়ে জেতে দ্বিতীয় শিরোপা।

এবার আমিরাত পর্বে কলকাতা লিগে হেরেছে সাত ম্যাচে মাত্র দুটি। নেট রান রেটে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের চেয়ে এগিয়ে থেকে চতুর্থ স্থান নিশ্চিত করে তারা প্লে অফ খেলেছে দুই বছর পর। সেখানে এলিমিনেটরে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু ও দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে সবচেয়ে ধারাবাহিক দল দিল্লি ক্যাপিটালসকে হারিয়ে তৃতীয় ফাইনালে।

শিরোপার লড়াইয়ে কলকাতার অনুপ্রেরণা হতে পারে তাদের ইতিহাসের প্রথম ফাইনাল। ওইবার চেন্নাইকে ৫ উইকেটে হারিয়ে প্রথমবার শিরোপা জিতেছিল গৌতম গম্ভীরের দল। দুটি ফাইনালে উঠে দুইবারই চ্যাম্পিয়ন হওয়া কলকাতা এবার তৃতীয় ট্রফি হাতে নিতে উদ্দীপ্ত। ভেঙ্কটেশ আইয়ার ও ‍শুভমান গিল গত ম্যাচের মতো ভালো শুরু এনে দিতে পারলে বাকিদের জন্য কাজটা সহজ হয়ে যাবে। চেন্নাইয়ে শক্ত ও গোছালো ব্যাটিং লাইনআপের পরীক্ষা নিবেন সুনীল নারিন, বরুণ চক্রবর্ত্তী।

দলে একটি পরিবর্তন আসলেও আসতে পারে। সাকিব আল হাসান নাকি আন্দ্রে রাসেল? ওয়েস্ট ইন্ডিজের অলরাউন্ডার ফিট থাকলে বাংলাদেশি অলরাউন্ডার জায়গা হারাতে পারেন। এছাড়া খুব বেশি পরিবর্তনের সুযোগ নেই।

অন্যদিকে আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে কলকাতার বোলারদের পরীক্ষা নেওয়ার অপেক্ষায় ফাফ ডু প্লেসি ও রবিন উথাপ্পারা। ডেথ বোলিংয়ে ডোয়াইন ব্রাভো ও নতুন বল হাতে দীপক চাহারের কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে পারে কলকাতার ব্যাটিং লাইন। শক্তিমত্তায় দুই দলই সমানে সমান, জয়ের সুযোগও ফিফটি-ফিফটি।

যদিও এই আসরে দুইবারের মুখোমুখি লড়াইয়ে চেন্নাইয়ের কাছে হেরে গেছে কলকাতা। দুবাইয়ের এই মাঠে টস হতে পারে গুরুত্বপূর্ণ ফ্যাক্টর। এই মাঠে পরে ব্যাট করা দল জিতেছে শেষ আট ম্যাচ। আর এই আসরে চেন্নাই ছয়বার রান তাড়া করতে নেমে শতভাগ সাফল্য পেয়েছে। তাই টস জয়ী দল যে ফিল্ডিং নিবে, সেটা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

ভক্ত-সমর্থকদের আরেকটি চাওয়া থাকবে এই ফাইনালে। দুই দলের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি ও এউইন মর্গ্যান নেতৃত্বে দক্ষতার পরিচয় দিলেও ব্যাট হাতে ফর্মে নেই। তারা কি জ্বলে উঠতে পারবেন শিরোপার মঞ্চে?

ঢাকা/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়