Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ৩০ নভেম্বর ২০২১ ||  অগ্রহায়ণ ১৬ ১৪২৮ ||  ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে অতীত এগিয়ে রাখছে নেদারল্যান্ডসকে

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:৫০, ১৮ অক্টোবর ২০২১  
আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে অতীত এগিয়ে রাখছে নেদারল্যান্ডসকে

মনে আছে নেদারল্যান্ডস-আয়ারল্যান্ডের সেই ম্যাচের কথা? ২০১৪ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ওই খেলায় ডাচ ব্যাটসম্যান স্টেফান মাইবুর্ঘ ও টম কুপার সেদিন ব্যাটকে যেন তলোয়ারে রূপান্তর করেছিলেন। একের পর এক বল আছড়ে ফেলেছিলেন সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের দড়ির ওপারে। সাত বছর পর আরেকটি টি-টোয়েন্টি বিশব্কাপে দুই দল মুখোমুখি।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) আবু ধাবিতে প্রথম রাউন্ডের ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচ খেলতে মাঠে বিকাল ৪টায় নামছে নেদারল্যান্ডস ও আয়ারল্যান্ড। এই পর্বে তাদের আরো দুই প্রতিদ্বন্দ্বী শ্রীলঙ্কা ও নামিবিয়া। অসাধারণ ওই ম্যাচের সুখস্মৃতি তরুণ আইরিশ দলের চেয়ে এগিয়ে রাখছে ডাচদের।

২০১৪ সালে সিলেটে সেদিন সুপার টেনে উঠতে জিততেই হতো দুই দলকে। আইরিশরা ২০ ওভারে ১৮৯ রান করল ৪ উইকেটে। নেদারল্যান্ডস অসম্ভবকে সম্ভব করে ফেলল। নেট রান রেটে আয়ারল্যান্ড ও জিম্বাবুয়েকে পেছনে ফেলতে ১৪.২ ওভারের মধ্যে জিততে হতো। তারা তিন বল আগেই মানে ১৩.৫ ওভারে জিতে গেল। ওই ইনিংসে সর্বোচ্চ ৭ ছক্কা মারা মাইবুর্গ এবারো দলের সঙ্গী। ওইবার চট্টগ্রামে ইংল্যান্ডকে হারিয়েও চমকে দেয় ডাচরা।

২০১৬ সালে ধর্মশালাতেও আয়ারল্যান্ডকে বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে হারায় নেদারল্যান্ডস। ২০১৯ সালের কোয়ালিফায়ারেও জিতেছিল দলটি। সব মিলিয়ে দুই দলের হেড টু হেডে ১০ ম্যাচে সাতটি জিতেছে তারা, একটি হয় পরিত্যক্ত। এই ডাচ দলকে বলা হচ্ছে ইতিহাসের অন্যতম সেরা। রায়ান টেন ডেসকাট ও রুলফ ফন ডার মারউইর মতো অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের সঙ্গে আছেন ফর্মে থাকা তরুণ খেলোয়াড় পল ফন মিকেরেন, যিনি সদ্য সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টসের সঙ্গে সিপিএল জিতেছেন।

অন্যদিকে ২০০৭ থেকে ২০১৫ সালের বিশ্বকাপ পর্যন্ত যে সোনালি প্রজন্মের আয়ারল্যান্ড ছিল, তা এখন আর নেই। তবে পল স্টারলিংয়ের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটারকে নিয়ে যে কোনো কিছু করতে পারে আইরিশরা। সবশেষ বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে ৫০ বলে অপরাজিত ৮৮ রান করা গ্যারেথ ডিলানিও হুমকি হতে পারেন।

ঢাকা/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়