Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ২৯ নভেম্বর ২০২১ ||  অগ্রহায়ণ ১৫ ১৪২৮ ||  ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

বিসিবির জুম মিটিং: প্রশ্নবাণে জর্জরিত ডমিঙ্গো, মাহমুদউল্লাহ, সাকিব

মাসকাট থেকে সাইফুল ইসলাম রিয়াদ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:০৪, ১৮ অক্টোবর ২০২১   আপডেট: ১৩:৩৪, ১৯ অক্টোবর ২০২১
বিসিবির জুম মিটিং: প্রশ্নবাণে জর্জরিত ডমিঙ্গো, মাহমুদউল্লাহ, সাকিব

আইসিসির অ্যাসোসিয়েট সদস্য স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের হার মেনে নেওয়ার মতো না। মানতে পারেননি বাংলাদেশ ক্রিকেটের সর্বোচ্চ কর্তা নাজমুল হাসান পাপনও। এমন হারের পর দলের সঙ্গে কথা বলবেন না বিসিবি সভাপতি এমনটা কী হয়? হয়-ও নি। 

জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকায় টিম হোটেলে যাওয়ার সুযোগ নেই। তাই জুম মিটিংয়ে ভরসা। সোমবার (১৮ অক্টোবর) মাসকটের শেরাটন হোটেলে বসে কোচ-ক্রিকেটারদের সঙ্গে জুম মিটিংয়ে বসেন নাজমুলসহ বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী এবং দুই পরিচালক আকরাম খান ও ইসমাইল হায়দার মল্লিক। 

এই জুম মিটিংয়ে কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর সঙ্গে ছিলেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও সাকিব আল হাসান। এ সময় কোচের কাছে সামগ্রিক বিষয় নিয়ে জানতে চান বোর্ড প্রধান। বিভিন্ন বিষয় নিয়ে প্রশ্ন তোলেন ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান আকরাম খান। ডমিঙ্গো নিজের মতো উত্তর দিলেও উপস্থিত কারো তার কথা পছন্দ হয়নি। 

মিটিংয়ে উপস্থিত থাকা একজন রাইজিংবিডিকে বলেন, 'আমরা তার কথায় সন্তুষ্ট না, বেশ কিছু বিষয় জানতে চেয়েছিলাম কিন্তু সে তার মতো যুক্তি দেখিয়েছে, আমরাও আমাদের কথা বলেছি।’

জানা গেছে, স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে হারের জন্য কোচকে কাঠগড়ায় দাড় করিয়েছে বিসিবি! পরিকল্পনা, প্রক্রিয়া, দল নির্বাচনসহ নানা বিষয়ে প্রশ্নবানে জর্জরিত করা হয় তাকে। শুধু প্রশ্নই নয়, সমালোচনায় বিদ্ধ ছিলেন ডমিঙ্গো। এরপর মাহমুদউল্লাহ ও সাকিবের সঙ্গেও কথা বলেন বোর্ড প্রধান। দলের অভ্যন্তরীণ পরিবেশ নিয়ে খোলামেলা আলোচনা করেছেন। তাদেরকেও করা হয়েছে নানা প্রশ্ন।  

জুম মিটিং কি হয়েছে সেসব নিয়ে বাইরে আলোচনা করেননি বোর্ড প্রধান। তবে গণমাধ্যমে যখন কথা বলেছেন তখন কিছুটা আঁচ পাওয়া গেছে।যেমন নাঈমকে শেষ ১৬ ম্যাচে বাংলাদেশ টানা খেলেছে। কিন্তু বিশ্বকাপের ড্রেসিংরুমে তাকে বসিয়ে রাখা হয়।এই সিদ্ধান্ত কেন? নাজমুল হাসান বলেছেন, ‘মিটিংয়ে আমার সাথে আকরামও ছিল। তো আকরাম একটা প্রশ্নটাই করেছে যে, নাঈমকে সারা বছর ধরে আপনি খেলালেন বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুত করলেন তাহলে নাঈম নাই কেন?' 

তিনি আরও বলেছেন, 'আমি বলতে চাচ্ছি যে ওদের পরিকল্পনাটাই তো আমি বুঝতে পারিনি। এপ্রোচটা পরিবর্তন করতে হবে। যারা মারতে পারে, যাদের মনে সাহস আছে, তারা প্রথমে নামবে এবং প্রথম ছয় ওভারের সুবিধা নিতে হবে।’ 

স্কটিশদের বিপক্ষে হার এখন অতীত। বাংলাদেশকে এখন নামতে হবে ওমানের বিপক্ষে। হারের তিক্ত বেদনা ভুলে বিশ্বকাপে টিকে থাকার লড়াই মাহমুদউল্লাহদের। জুম মিটিংয়ের শেষটায় তাই সবাইকে হারের যন্ত্রণা ভুলে যাওয়ার কথা বলেছেন বোর্ড সভাপতি, ‘ওদেরকে বলেছি আর দুইটা ম্যাচ আছে সেটায় জান দিয়ে খেল। আমি বুঝতে দেইনি যে আমি কতটা কষ্ট পেয়েছি প্রথম ম্যাচ হারে। ওদেরকেও ভুলে যেতে বলেছি। ওরা যদি না ভুলে যায় তাহলে ভালো করতে পারবে না। তাই ওদের অনুপ্রেরণা জুগিয়েছি সামনে ভালো করতে।’ 

মাসকট/রিয়াদ/ইয়াসিন

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়