ঢাকা     বুধবার   ১৯ জানুয়ারি ২০২২ ||  মাঘ ৫ ১৪২৮ ||  ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

টেকনিক্যাল যে দুটি দিক পরিবর্তন করে সফল লিটন

ক্রীড়া প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম থেকে || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:০২, ২৬ নভেম্বর ২০২১   আপডেট: ১০:২৮, ২৭ নভেম্বর ২০২১
টেকনিক্যাল যে দুটি দিক পরিবর্তন করে সফল লিটন

বিশ্বকাপ ব্যর্থতার পর টি-টোয়েন্টি দল থেকে বাদ পড়েছিলেন লিটন দাশ। পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ না খেলায় অংশ নিয়েছিলেন জাতীয় লিগে। সেখানে এক রাউন্ড খেললেও রান পাননি। যেহেতু টেস্ট সিরিজে থাকবেন এজন্য উড়ে আসেন চট্টগ্রামে। সতীর্থরা যখন টি-টোয়েন্টিতে ব্যস্ত তখন লিটন কাজ করছেন লাল বল নিয়ে।

গত ১৯ নভেম্বর থেকে চট্টগ্রামে অনুশীলন চালিয়ে যান তিনি। সঙ্গে ছিলেন মুশফিকুর রহিম, মুমিনুল হকরাও। কোচ অ্যাশওয়েল প্রিন্সকে পাশে পাননি। তবে টেকনিক্যাল দুটি বিষয় নিয়ে কাজ করেছেন লিটন। তাতে মিলেছে সফলতা। সাদা পোশাকে প্রথমবার সেঞ্চুরির দেখা পেলেন। চট্টগ্রাম টেস্টে তার ব্যাট থেকে এলো ১১৩ রানের ঝকঝকে ইনিংস।

দিনের খেলা শেষে প্রিন্স জানালেন লিটনের ব্যাটিং পরিবর্তনের কথা, ‘টি-টোয়েন্টি চলাকালিন তাকে নিয়ে কাজ করা হয়নি। এখানে এসে সে টেস্টের প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এক বা দুটি টেকনিক্যাল বিষয় নিয়ে সে কাজ করেছে। এগুলো বড় কোনো বিষয় নয়। তবে তার স্ট্যান্স, মূলত ব্যাটিং অ্যালাইনমেন্ট (মাথা, বডি পজিশন ও পা) উন্নতি করার কাজ করা হয়েছে। ক্রিজে সে ভারসাম্যপূর্ণ অবস্থায় ছিল। তাকে ব্যাটিং করতে দেখা আনন্দের। সে যখন ভালো ব্যাটিং করে তাকে দেখতে আরও চমৎকার লাগে।’

লিটনের সঙ্গে আজ জমাট জুটি বেঁধেছেন মুশফিকুর রহিম। ৪৯ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ যখন খাদের কিনারায় তখন হাল ধরেন মুশফিক ও লিটন। তাদের ২০৪ রানের জুটিতে পাকিস্তানকে কড়া শাসন করে চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম দিন নিজের করে নেয় বাংলাদেশ। দুজনের ব্যাটিং প্রশংসায় পঞ্চমুখ প্রিন্স। তবে মুশফিক যেভাবে চাপ সামলে শান্ত হয়ে ইনিংস বড় করেছেন তাতে মুগ্ধ ব্যাটিং কোচ।

তিনি বলেছেন, ‘আমি মনে করি তারা মাঠে নিজেদের সামর্থ্যের প্রমাণ করেছে। বিশেষ করে ৪৯ রানে ৪ উইকেট হারানোর পর তারা যেভাবে হাল ধরেছে সত্যিই তা প্রশংসার দাবিদার। আজ মুশফিক শুরুতে বেশ ধৈর্যশীল ছিল। সে বেশ অভিজ্ঞ ক্রিকেটার। অনেক তরুণ খেলোয়াড় মন্থর স্ট্রাইক রেটের কারণে অস্থিরতায় ভোগে। এজন্য বড় তাড়া করার চেষ্টা করে। কিন্তু মুশফিক অভিজ্ঞ একজন টেস্ট ক্রিকেটার। নিজেকে শান্ত রাখতে পারে। সে জানে রান আসবে দ্রুত সময়ে। দারুণ ইনিংস খেলেছে।’

ইয়াসিন/আমিনুল

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়