ঢাকা     শনিবার   ২৯ জানুয়ারি ২০২২ ||  মাঘ ১৫ ১৪২৮ ||  ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

ঢাকা টেস্টে সাদমানের সঙ্গী জয় নাকি শান্ত?

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:০১, ১ ডিসেম্বর ২০২১   আপডেট: ১৯:৫৬, ১ ডিসেম্বর ২০২১
ঢাকা টেস্টে সাদমানের সঙ্গী জয় নাকি শান্ত?

ঢাকা টেস্টে পাকিস্তানের বিপক্ষে সাদমান ইসলামের সঙ্গী হবেন কে? নাজমুল হোসেন শান্ত নাকি মাহমুদুল হাসান জয়! দুজনকে নিয়েই চলছে আলোচনা। তবে টিম কম্বিনেশনের কারণে অভিষেক বিলম্ব হতে পারে জয়ের। ১০ টেস্ট খেলা শান্ত প্রথমবার টেস্ট ক্রিকেটে ওপেনিং করতে পারেন।

প্রথম টেস্টে সাইফ হাসান নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি। এর আগেও তিনি ছিলেন রান খরায়। তার জায়গা এমনিতেই ছিল নড়বড়ে। সঙ্গে যোগ হয়েছে টাইফয়েড। দ্বিতীয় টেস্টে তার খেলা হচ্ছে না নিশ্চিতভাবেই। সেই জায়গায় কাকে খেলানো হবে?

চট্টগ্রাম টেস্টের আগে জয়কে নিয়ে বেশ আশার কথা শুনিয়েছিল টিম ম্যানেজমেন্ট। জাতীয় দলে ধারাবাহিক রান করায় তার ওপর আস্থাও রেখেছিল। কিন্তু সাইফকেই সুযোগ দেয়। কিন্তু দুই ইনিংসে পেসার শাহীন শাহ আফ্রিদির বলে সাইফের আউটের ধরনে বেশ হতাশ দল। ভালো শুরুর পর ইনিংস বড় করতে না পারায় তার ওপর থেকে আপাতত নজর সরিয়ে নিচ্ছে টিম ম্যানেজমেন্ট।

জয়কে প্রস্তুত করা হচ্ছিল বড় মঞ্চের জন্য। কিন্তু ওপেনিংয়ের দৌড়ে শান্ত এগিয়ে। কারণ টিম কম্বিনেশন।

চোট কাটিয়ে সাকিব আল হাসান দলে ফিরেছেন। তাকে জায়গা দিতে মধ্যভাগে একজনকে বাদ দিতেই হতো। সেক্ষেত্রে শান্তকে তিন নম্বর থেকে ওপেনিংয়ে তুলে আনার সম্ভাবনা আছে যথেষ্ট। বাংলাদেশ দলের অন্তর্বর্তীকালীন ফিল্ডিং কোচ মিজানুর রহমান সেরকম ইঙ্গিতই দিলেন, ‘মিরপুর টেস্টে কারা ওপেন করবে জানি না। সাদমান প্রথম পছন্দ। অন্যদের মধ্যে জয় (মাহমুদুল) এসেছে নতুন। জাতীয় লিগে খুব ভালো ব্যাটিং করেছে। তার হয়তো একটা সুযোগ আসবে। শান্ত শ্রীলঙ্কার পর এখানে খেলছে (জিম্বাবুয়েতেও ছিলেন)। শ্রীলঙ্কাতে খুব ভালো করেছে। হয়তো নতুন বলটা তারাই খেলবে। আশা করি, তারা মিরপুরে নতুন বল খুব ভালোভাবে সামলাতে পারবে। তাদের মধ্যে সেই আগ্রহটা আমি দেখতে পেয়েছি। তারা কষ্ট করছে।’

সাকিব যদি ফেরেন এবং শান্ত প্রথমবার ওপেনিং করলে ব্যাটিং অর্ডার হতে পারে এরকম- সাদমান, শান্ত, মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসন, লিটন দাস ও ইয়াসির আলী রাব্বি। বাবুলের বিশ্বাস ঢাকা টেস্টে টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরা স্বরূপে ফিরবে।

সেক্ষেত্রে নতুন বলে আরেকটু মনোযোগী হয়ে খেলার পরামর্শ তার, ‘চট্টগ্রাম টেস্টে দুই ইনিংসেই টপ অর্ডার ব্যর্থ হয়েছে। আমরা ভালো করতে পারিনি। তবে এখান থেকে আমাদের ওপেনাররা অনেক কিছু শিখতে পেরেছে। কিভাবে খেলা যায়, বুঝতে পেরেছে। ব্যাটিং ও বোলিংয়ে যদি নতুন বলটা যদি আরেকটু ভালোভাবে ব্যবহার করতে পারি তাহলে খুব ভালো হবে। ব্যাটিংয়ের ক্ষেত্রে যদি নতুন বলটা ভালোভাবে খেলতে পারি সময় নিয়ে এবং বোলিংয়েও যদি নতুন বলটা আরেকটু ভালোভাবে ব্যবহার করতে পারি, তাহলে আশা করি আমরা মিরপুরে খুব ভালো করব।’

৪ ডিসেম্বর মিরপুরে শুরু হবে ঢাকা টেস্ট। প্রথম টেস্টে ৮ উইকেটে হেরেছিল বাংলাদেশ।

ঢাকা/ইয়াসিন/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়