ঢাকা     বুধবার   ২৫ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪২৯ ||  ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩

সুপারস্টার ছাড়া সুপার পারফর্মের প্রত্যাশায় মোসাদ্দেক

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:০৬, ১৯ জানুয়ারি ২০২২  
সুপারস্টার ছাড়া সুপার পারফর্মের প্রত্যাশায় মোসাদ্দেক

ইনজুরি থেকে ফিরে নিজের অসাধারণ নেতৃত্ব ও অভাবনীয় পারফরম্যান্সে বিসিএলে ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোনকে চ্যাম্পিয়ন বানিয়েছেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। এবার তার সামনে বিপিএলে ভালো করার চ্যালেঞ্জ। তার দল সিলেট সানরাইজার্স। দলটি তারুণ্যের শক্তিতে উজ্জীবিত। নেই তেমন সুপারস্টার। সুপারস্টার ছাড়াই সুপার পারফর্মের প্রত্যাশা মোসাদ্দেকের।

দলের প্রথম অনুশীলন শেষে স্পিন অলরাউন্ডার বলেছেন, ‘আমাদের দলে হয়তো সুপারস্টার নেই। কিন্তু যারা আছে তারা ঘরোয়া ক্রিকেটের পারফর্মার। সবাই যদি নিজেদের দিনে ভালো খেলতে পারে তাহলে অবশ্যই ভালো একটা ফল আশা করা যায়।’ 

সিলেটের দলটির মূল শক্তি তারুণ্য। জাতীয় দলের নিয়মিত ক্রিকেটারদের মধ্যে কেবল তাসকিন আহমেদকেই তারা দলে নিয়েছে। সরাসরি চুক্তিতে তাকে নেওয়ার পর প্লেয়ার্স ড্রাফট থেকে মোহাম্মদ মিঠুন, মোসাদ্দেক, আল-আমিনকে দলে নিয়েছে। সম্প্রতি দারুণ ফর্মে আছেন মিঠুন, মোসাদ্দেক।

মিঠুন বিসিএলের লংগার ভার্সনে টুর্নামেন্ট সেরা, মোসাদ্দেক পঞ্চাশ ওভারের প্রতিযোগিতায়। তাদের সঙ্গে ঘরোয়া ক্রিকেটের পরীক্ষিত ক্রিকেটার এনামুল হক বিজয়, নাজমুল ইসলাম অপু, সোহাগ গাজী রয়েছেন। অলরাউন্ডার হিসেবে আছেন মুক্তার আলী। বিগ হিটিংয়ে পারদর্শী নাদিফ চৌধুরীও আছেন দলে। সিলেটের ক্রিকেটার হিসেবে আছেন অলোক কাপালি।

সব মিলিয়ে স্থানীয় ক্রিকেটার সংগ্রহে সিলেট কোনো চমক না দেখালেও হতাশ করেনি। মিঠুন, তাসকিন, মোসাদ্দেক, বিজয়রা জ্বলে উঠলে নিশ্চিতভাবেই সিলেটের বিজয়ের পতাকা উড়বে। নিজেদের সাম্প্রতিক ফর্ম কাজে লাগিয়ে ভালো করার প্রত্যাশায় মোসাদ্দেক, ‘একটা ফরম্যাট থেকে আরেকটা ফরম্যাটে ডেলিভার করাটা একটু কঠিন। আমরা অনুশীলন সেভাবেই করছি। কারণ যেহেতু আমরা শেষ টুর্নামেন্টটা ওয়ানডে ফরম্যাটে সাদা বলে খেলেছি, আমার মনে হয় না খুব বেশি সময় লাগবে মানিয়ে নিতে।’

ঢাকা/ইয়াসিন/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়