ঢাকা     বুধবার   ১৮ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ৪ ১৪২৯ ||  ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩

তামিমের কী সমস্যা জানতে চাইবেন সুজন

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:২৫, ২৩ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১৬:০৫, ২৩ জানুয়ারি ২০২২
তামিমের কী সমস্যা জানতে চাইবেন সুজন

দীর্ঘদিন পর টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ফেরে দুই হাফসেঞ্চুরিতে তামিম ইকবাল দিয়েছেন ফুরিয়ে না যাওয়ার আভাস। কিন্তু হঠাৎ আলোচনা তামিমের আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়ে।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপনকে সেই সিদ্ধান্ত জানিয়েও দিয়েছেন। আর কী কারণে দেশের হয়ে তামিম টি-টোয়েন্টি খেলবেন না, সেটি জানতে চান বিসিবি পরিচালক ও গেম ডেভলপমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান খালেদ মাহমুদ সুজন।

সোমবার (২৩ জানুয়ারি) বিসিবি একাডেমি মাঠে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হন জাতীয় দলের সবশেষ নিউ জিল্যান্ড সিরিজে টিম ডিরেক্টর হিসেবে থাকা সুজন। টিম ডিরেক্টর হিসেবে তামিমকে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ফেরানোর চেষ্টা করা হবে কী না এক প্রশ্নে এই মন্তব্য করেন তিনি।

সুজন বলেন, ‘বায়োবাবলের মধ্যে আছি আমরা। আমি চাই না ফোনে কথা বলতে। সামনা-সামনি বললে ভালো হয়। তামিমের সঙ্গে নিশ্চয় কাল দেখা হবে, খেলা আছে। খেলা শেষে পারলে আমি কথা বলবো। আসলে ওর সমস্যা কোথায় জানতে চাইবো।’

বিসিবির অনেক গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকা সুজন চান তামিম-সাকিবসহ সেরা টিমটাই খেলুক বাংলাদেশের হয়ে, ‘অবশ্যই এটা আমার দায়িত্ব। আমি চাইবো বেস্ট টিমটা তিন ফরম্যাটে খেলুক। সাকিব খেলছে না, তামিম খেলছে না। আমি জানি ওরা খেলার শেষের দিকে চলে আসছে। হয়তোবা আরও দুই তিন বছর খেলবে। আমি চাই আগামী একটা বছর ফোকাস করতে, যেহেতু অনেক খেলা আছে।’

গতকাল বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দ্বিতীয় ম্যাচ শেষে বিসিবি সভাপতি জানিয়েছেন, তামিম তাকে টি-টোয়েন্টিতে না খেলার সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছেন। তামিমের এমন সিদ্ধান্তে অবাক হওয়ার কথা জানিয়েছেন সুজন।

‘একটু অবাক আমি। নিউ জিল্যান্ড যাওয়ার আগেও তামিমের সঙ্গে কথা বলেছি। কেন খেলবি না, কী কারণ। তখন আসলে এত কথা হয়নি, বলেছিলাম ফিরে আসলে কথা বলবো। আর কথা হয়নি এ ব্যাপারে। তার আগেই দেখলাম যে কাল পাপন ভাই বলে দিয়েছেন।’

সুজনের মতে তামিমের বিকল্প না থাকলেও বাংলাদেশের ক্রিকেটতো আর বসে থাকবে না, সামনে এগোতে হবে, ‘এটা প্রত্যেকের ব্যক্তিগত ব্যাপার। আসলে ওর মতো এরকম টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান আমাদের রেডি আছে তা না। এটা তার ব্যক্তিগত ব্যাপার। সে যদি না চায় জোর করা যাবে না। আমাদের সামনে এগোতে হবে। বাংলাদেশ ক্রিকেটতো আর বসে থাকবে না।’

বিপিএলের প্রথম ম্যাচে তামিম খুলনার বিপক্ষে ৪২ বলে ৫০ রান করেন। দ্বিতীয় ম্যাচে চট্টগ্রামের বিপক্ষে তার ব্যাট থেকে ৪৫ বলে ৫২ রান আসে। দুই ইনিংসেই তার ব্যাটিং ছিল ধীর গতির। আবার ম্যাচের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে নিজের উইকেট বিলিয়ে এসেছেন। বাংলাদেশের হয়ে তামিম সবশেষ টি-টোয়েন্টি খেলেছেন গত বছরের মার্চে, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। এরপর টানা ১২ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ না খেলায় বিশ্বকাপ থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন। অনুশীলনের ঘাটতি এবং অন্যান্য পারিপার্শ্বিকতা মিলিয়ে তামিম সরে আসেন। তখন থেকেই গুঞ্জন ছড়াতে থাকে এই ফরম্যাট থেকে তামিম নিজেকে সরিয়ে নেবেন। শেষ পর্যন্ত তাই হলো।

অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপে সরাসরি অংশগ্রহণ করবে বাংলাদেশ। এশিয়ার দুই পরাশক্তি ভারত ও পাকিস্তানের সঙ্গে গ্রুপ-২ এ পড়েছে বাংলাদেশ। যেখানে আরেক দল দক্ষিণ আফ্রিকা। বাকি দুটি দল যুক্ত হবে প্রথম রাউন্ড থেকে। তামিম আগেভাগে নিজের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়ায় দল বাছাই ও খেলোয়াড় তৈরিতে দীর্ঘ সময় পাচ্ছে বাংলাদেশ।

ঢাকা/আমিনুল

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়