ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৪ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪২৯ ||  ২২ শাওয়াল ১৪৪৩

ফিরে আসার ‘ইঙ্গিত’ দিয়ে টি-টোয়েন্টিতে তামিমের বিরতি!

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:৪৫, ২৭ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১৮:১১, ২৭ জানুয়ারি ২০২২
ফিরে আসার ‘ইঙ্গিত’ দিয়ে টি-টোয়েন্টিতে তামিমের বিরতি!

অনুশীলনে যোগ দেওয়ার আগে গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা দেবেন তামিম ইকবাল। দুপুরে মিনিস্টার ঢাকার মিডিয়া ম্যানেজার এমন তথ্য দিয়ে রেখেছিলেন।

ধারণা করা হচ্ছিল, নিজ শহরেই আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত দিয়ে দেবেন তামিম! বিশেষ করে তিন আগে বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান যখন বলে দিয়েছিলেন, তামিম আর টি-টোয়েন্টি খেলতে চাচ্ছে না। তাই বিসিবি তাকে জোরও করবে না।’

সন্ধ্যা গড়াতেই তামিম হাজির। কিন্তু নতুন কিছু নিয়েই আসলেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক। জানালেন, অবসর নয় টি-টোয়েন্টি থেকে ৬ মাসের বিরতি নিচ্ছেন। এই ৬ মাসে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে বাংলাদেশের ওপেনাররা ভালো করলে তিনি আর ফিরবেন না। যদি ভালো কিছু না হয়, যদি টিম ম্যানেজমেন্ট চায় তাহলে তাকে আবার দেখা যাবে।

তামিম বলেছেন, ‘শেষ কয়েকদিন ধরে আপনারা সবাই জানেন যে, আমার টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ার নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। প্রথমেই আমি একটা জিনিস বলি, আমার সঙ্গে শেষ কয়েকদিন ধরে বিভিন্নভাবে অনেক জায়গায় বৈঠক হয়েছে। সভাপতি, জালাল ভাই (ক্রিকেট পরিচালনা কমিটির চেয়ারম্যান), কাজী এনাম ভাইদের সঙ্গে।’

‘উনারা অবশ্যই চাচ্ছেন, আমি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট চালিয়ে যাই অন্তত বিশ্বকাপ পর্যন্ত। আমার ব্যাপারটা আলাদা ছিল। এখন দুজন মিলে যেটা ভালো হয় ওই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আগামী ছয় মাস আমি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট নিয়ে ভাবছি না। এই কয়েক মাস আমার পুরো মনোযোগ টেস্ট ও ওয়ানডেতে থাকবে।’

‘টি-টোয়েন্টির বিষয়টা হলো, ছয় মাস আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি নিয়ে ভাবব না। আশা করি এই ছয় মাসে তরুণরা এত ভালো খেলবে-আমার আর প্রয়োজন পড়বে না। তারপরও ছয় মাস পর যদি এমন সময় আসে ক্রিকেট বোর্ড, নির্বাচক বা টিম ম্যানেজম্যান্ট যদি মনে করে আমাকে দরকার, আমিও যদি প্রস্তুত থাকি। তখন আবার এটা নিয়ে আলাপ হবে। কিন্তু এই ছয় মাস ভাবছি না।’ - যোগ করেন তামিম। 

বাংলাদেশের হয়ে তামিম সবশেষ টি-টোয়েন্টি খেলেছেন ২০২০ সালের মার্চে, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। এরপর টানা ১২ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ না খেলায় বিশ্বকাপ থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন। অনুশীলনের ঘাটতি এবং অন্যান্য পারিপার্শ্বিকতা মিলিয়ে তামিম সরে আসেন। তখন থেকেই গুঞ্জন ছড়াতে থাকে এই ফরম্যাট থেকে তামিম নিজেকে সরিয়ে নেবেন। সব মিলিয়ে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টিতে তামিম নেই ২২ মাস। সামনে যোগ হলো আরো ৬ মাস। ২৮ মাস পর ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফরম্যাটে ফেরার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয় কিনা সেটাই দেখার। 

ঢাকা/ইয়াসিন

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়