ঢাকা     রোববার   ২৯ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪২৯ ||  ২৭ শাওয়াল ১৪৪৩

চট্টগ্রাম আসতেই বদলে গেলো বিপিএল, মুশফিকদের সামনে লক্ষ্য ১৪৪ 

ক্রীড়া প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম থেকে: || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:২৭, ২৮ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১৭:৩৪, ২৮ জানুয়ারি ২০২২
চট্টগ্রাম আসতেই বদলে গেলো বিপিএল, মুশফিকদের সামনে লক্ষ্য ১৪৪ 

ঢাকায় বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) খেলায় দিনের চারটি ম্যাচের প্রথম ইনিংসে কোনোবারই ১৩০ রানের ঘর পার হয়নি। চট্টগ্রামে পা পড়তেই তা বদলে গেলো। দিনের ম্যাচে আগে ব্যাটিং করা দল এই প্রথম পেরোতে পেরেছে ১৪০ রানের ঘর। 

শুক্রবার (২৮ জানুয়ারি) জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিং করে স্বাগতিক চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। ব্যাটিং করতে নেমে ৮ উইকেটে ১৪৩ রান করে থামে মেহেদি হাসান মিরাজের দল। মুশফিকুর রহিমদের জয়ের জন্য প্রয়োজন ১৪৪ রান। 

ঢাকায় প্রথম ম্যাচে টস জয়ী দলের অধিনায়ক দেরি করতেন না প্রতিপক্ষকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানাতে। উইকেটে রীতিমত সংগ্রাম করতে হয়েছে অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানদের। শুরুতেই বিপর্যয়ে পড়েছে আগে ব্যাটিং করা প্রতিটি দল। রান তাড়া করতে নেমে যে খুব সহজে পেরেছেন তাও নয়। সবকিছু মিলিয়ে শের-ই বাংলার উইকেটে দুই বেলায় দেখা গেছে দুই রকম।

জহুর আহমেদের উইকেট দেখে গতকালই মুশফিকুর রহিমরা। ব্যাটে ঠিকঠাক বল আসছিল, তবে ব্যাটসম্যানরা যদি আরেকটি বেছে শটস খেলতেন তাহলে রান আরও বাড়তো।

এই চট্টগ্রাম পর্ব থেকে শুরু হয়েছে ডিআরএসের বিকল্প পদ্ধতি এডিআরএস। ইনিংসের প্রথম বলই পায়ে লাগে কেনার লুইসের। তবে এই বলে রিভিউ নেননি মুশফিকরা। লুইস অবশ্য ৫ বলে ১ রানের বেশি করতে পারেননি। দ্বিতীয় উইকেটের জুটিতে দলকে এগিয়ে নেন উইল জ্যাকস ও আফিফ হোসেন। দুজনের জুটি থেকে আসে ৫৫ রান। জ্যাকস ২৩ বলে ২৮ রান করে আউট হলে ভাঙে এই জুটি।

দারুণ খেলতে থাকা আফিফ আউট হন একেবারে বাউন্ডারি লাইনের কাছে। বোলার মেহেদীর মাথার উপর দিয়ে মেরেছিলেন এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। ৩৭ বলে সর্বোচ্চ ৪৪ রান করেন তিনি।

মাঝে সাব্বির রহমান (৪) মেহেদি হাসান মিরাজ (৬) ও বেনি হাওয়েল (৫)  শামীম পাটোয়ারি (২) ফেরেন দুই অঙ্কের ঘর ছোঁয়ার আগেই। শেষ দিকে ১৯ বলে ২৫ রানের ইনিংস খেলেন নাঈম ইসলাম।

খুলনার হয়ে দারুণ বোলিং করেছেন থিসারা পেরারা। ৪ ওভারে ১৮ রান দিয়ে তিনি নেন ৩ উইকেট। ১টি করে উইকেট নেন কামরুল ইসলাম, নাবিল সামাদ, মেহেদি হাসান, সেকুগা প্রসন্না ও ফরহাদ রেজা।

চট্টগ্রাম/রিয়াদ  

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়