ঢাকা     শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২ ||  আষাঢ় ১৭ ১৪২৯ ||  ০১ জিলহজ ১৪৪৩

বেনজেমার হ্যাটট্রিকে সেমিফাইনালে এক পা রিয়ালের

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৩:৩৪, ৭ এপ্রিল ২০২২   আপডেট: ০৪:৫০, ৭ এপ্রিল ২০২২
বেনজেমার হ্যাটট্রিকে সেমিফাইনালে এক পা রিয়ালের

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে চেলসিকে হারিয়ে সেমিফাইনালে এক পা দিয়ে রেখেছে রিয়াল মাদ্রিদ। বুধবার দিবাগত রাতে করিম বেনজেমার হ্যাটট্রিকে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের ৩-১ ব্যবধানে হারায়।

বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচের শুরু থেকেই গোলের সুযোগ তৈরি করতে থাকে রিয়াল। ১১ মিনিটেই গোলের সুযোগ পেয়েছিলেন ভিনিসিউস জুনিয়র। এ সময় করিম বেনজেমার বাড়িয়ে দেওয়া বল বক্সের মধ্যে পেয়ে যান ভিনিসিউস। কিন্তু তার নেওয়া শট বারে লেগে লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।

তবে ২১ মিনিটে এগিয়ে যায় রিয়াল। এ সময় মাঝমাঠ থেকে বল পান করিম বেনজেমা। তিনি বামদিকে ভিনিসিউসকে বাড়িয়ে দিয়ে বক্সের মধ্যে ঢুকে পড়েন। এরপর ভিনিসিউস তাকে ক্রসে বল দেন। সেটাতে হেড দিয়ে জালে জড়ান বেনজেমা।

তুমুল বৃষ্টির মধ্যে ২৪ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন বেনজেমা। এ সময় ডানদিক থেকে লুকা মদ্রিচের ক্রসে হেড দিয়ে দূরের পোস্ট দিয়ে বল জালে পাঠান বেনজেমা।

৪০ মিনিটে ব্যবধান কমায় চেলসি। এ সময় বক্সের বেশ বাইরে থেকে জর্জিনহোর ক্রসে হেড দিয়ে জালে জড়ান কাই হাভার্টজ।

৪২ মিনেটে ব্যবধান ৩-১ করার সুযোগ পেয়েছিলেন বেনজেমা। এ সময় ভিনিসিউস ক্রসে বল বাড়িয়ে দেন বেনজেমাকে। বেনজেমা দূরের পোস্টে শট নেন। পোস্টের কাছ ঘেষে লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। তাতে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় কার্লো আনচেলোত্তির শিষ্যরা।

বিরতির পর নিজের হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন বেনজেমা। এ সময় রিয়ালের অর্ধ থেকে বল যায় মাঝ মাঠে। সেটা নিয়ন্ত্রণে নিতে ব্যর্থ হন চেলসির রক্ষণভাগের খেলোয়াড়। বলের নিয়ন্ত্রণ নেন বেনজেমা। এদিকে বল ধরতে বেশ খানিকটা এগিয়ে আসেন চেলসির গোলরক্ষক ইডুয়ার্ডো মেন্ডি। তাকে সহজেই পরাস্ত করে দূর থেকে নেওয়া শটে বল জালে জড়ান বেনজেমা।

এর মধ্য দিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে দ্বিতীয় কোনো খেলোয়াড় হিসেবে চ্যাম্পিয়নস লিগের নকআউট পর্বের টানা দুই ম্যাচে হ্যাটট্রিক করার কৃতিত্ব দেখান। শুধু তাই নয় প্রথম কোনো ফঁরাসি তারকা হিসেবে চ্যাম্পিয়নস লিগে ১০ গোল করার কীর্তি স্থাপন করেন।

তার হ্যাটট্রিকে ভর করে রিয়াল এগিয়ে যায় ৩-১ ব্যবধানে। বাকি সময়ে অবশ্য উভয় দলই বেশ কিছু সুযোগ তৈরি করলেও সেগুলো থেকে গোল আদায় করে নিতে পারেনি। তাতে ৩-১ ব্যবধানের জয়ে সেমিফাইনালে এক পা দিয়ে স্টামফোর্ড ব্রিজ ছাড়ে লস ব্লাঙ্কোসরা।

ঢাকা/আমিনুল

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়