ঢাকা     সোমবার   ০৪ জুলাই ২০২২ ||  আষাঢ় ২০ ১৪২৯ ||  ০৪ জিলহজ ১৪৪৩

ওয়েস্ট ইন্ডিজে টেস্টে নেই তাসকিন-শরিফুল, ভাবনায় মোস্তাফিজ

ক্রীড়া প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম থেকে || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:১৬, ১৯ মে ২০২২   আপডেট: ১৬:৪৮, ১৯ মে ২০২২
ওয়েস্ট ইন্ডিজে টেস্টে নেই তাসকিন-শরিফুল, ভাবনায় মোস্তাফিজ

লাল বলে খেলতে আগ্রহ না থাকলেও মোস্তাফিজুর রহমানকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের টেস্ট দলে রাখার বিবেচনা করছেন নির্বাচকরা। দলের নিয়মিত দুই পেসার তাসকিন আহমেদ ও শরিফুল ইসলামকে ওই সিরিজে পাওয়া যাচ্ছে না। তাই মোস্তাফিজকে টেস্টে ফেরানোর পরিকল্পনা করছেন নীতিনির্ধারকেরা।

দুয়েক দিনের মধ্যেই আসন্ন সফরের দল চূড়ান্ত হয়ে যেতে পারে, সাংবাদিকদের এমন আভাস দিয়ে রাখলেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু, ‘ঢাকায় গিয়ে আমরা ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের দল প্রস্তুত করব। সময় হলে আপনারা পেয়ে যাবেন। এখানে কিছু লজিস্টিক কাজ আছে। তাই দেরি হচ্ছে। সভাপতির অনুমোদন পেলে আমরা এটি দিয়ে দেবো।’

বোর্ড সভাপতি ক্রিকেটারদের ফরম্যাট বেছে খেলার ব্যাপারে ছাড় দিয়েছেন। সেটা কাজে লাগিয়ে নিজের পছন্দের তালিকায় না থাকা টেস্ট ক্রিকেট থেকে দূরে থাকছেন মোস্তাফিজ। সাদা বলে দেশের হয়ে খেলতে তার কোনো অসুবিধা নেই। টেস্ট ক্রিকেটকে ঘিরেই তার যত অ্যালার্জি! কোভিডের সময় বায়ো-বাবলের অজুহাতে তাকে টেস্ট দলে বিবেচনা না করতে নির্বাচকদের অনুরোধ করেছিলেন। এখন টেস্ট খেলতে চাইছেন না ওয়ার্কলোড কমাতে। কিন্তু সভাপতির সাফ কথা, ‘দেশের হয়ে যখন প্রয়োজন হবে, তখনই তাকে খেলতে হবে।’

এসব কানে গেছে মোস্তাফিজেরও। তবে কোনো প্রতিক্রিয়া দেখাননি। প্রধান নির্বাচক জানালেন, তার সঙ্গে বাঁহাতি পেসারের দল নির্বাচন নিয়ে কথা হয়েছে, ‘মোস্তাফিজের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে আগামী সিরিজ নিয়ে। নির্বাচন প্যানেল থেকে যেভাবে আলোচনা হয়, সেভাবে কথা হয়েছে। যখন কোনো খেলোয়াড় সেরা ফর্মে থাকে, তখন তাকে অবশ্যই দরকার হয়। যদি আমাদের ওকে দরকার হয়, অবশ্যই দলে অন্তর্ভুক্ত করব।’

কাঁধের চোট নিয়ে লন্ডন গিয়েছিলেন তাসকিন। ধারণা করা হচ্ছিল, কাঁধের সংযোগস্থলে অস্ত্রোপচার লাগবে। কিন্তু চিকিৎসক আপাতত অস্ত্রোপচার করানোর পক্ষে নয়। তবুও মাঠে ফিরতে পাঁচ থেকে ছয় সপ্তাহের সময়ের প্রয়োজন। অন্যদিকে শরিফুল চট্টগ্রাম টেস্ট চলাকালে আঙুলে চোট পেয়েছেন। তার আঙুলে চিড় ধরা পড়েছে। সেরে উঠতে চার থেকে পাঁচ সপ্তাহ লাগবে।

সময়ের অন্যতম সেরা দুই পেসারকে নিয়ে প্রধান নির্বাচকের ব্যাখ্যা, ‘আমাদের কাছে যতটুকু তথ্য আছে, আমরা তাসকিনকে হয়তো টেস্টে পাচ্ছি না। সাদা বলের সিরিজে হয়তো পেতে পারি। তারপরও ২১ তারিখ মেডিকেল ডিপার্টমেন্ট থেকে ফিজিওর রিপোর্ট পাবো। তখন আপনাদের আপডেটটা দিতে পারব। শরিফুলকে টেস্টে পাওয়ার কোনো সম্ভাবনাই নেই, ওকে আমরা হয়তো সাদা বলে পেতে পারি। তারপরও পুরোপুরি আপডেট আগামী সপ্তাহে পাবো।’

দুই টেস্ট, তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলতে বাংলাদেশ আগামী ৫ জুন ওয়েস্ট ইন্ডিজ যাবে। অ্যান্টিগায় স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস স্টেডিয়ামে দুই দলের প্রথম টেস্ট শুরু ১৬ জুন।

চট্টগ্রাম/ইয়াসিন/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়