ঢাকা     সোমবার   ০৪ জুলাই ২০২২ ||  আষাঢ় ২০ ১৪২৯ ||  ০৪ জিলহজ ১৪৪৩

আইসিসির আম্পায়ার আসাদ এখন পুরোনো জামা-জুতো বিক্রেতা

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:১৯, ২৪ জুন ২০২২   আপডেট: ১০:৩৩, ২৪ জুন ২০২২
আইসিসির আম্পায়ার আসাদ এখন পুরোনো জামা-জুতো বিক্রেতা

আজকাল আবার খবরের শিরোনামে সাবেক আইসিসি এলিট আম্পায়ার আসাদ রউফ। কয়েকটি ভিডিও ভাইরাল, যেখানে বলা হচ্ছে পাকিস্তানের সাবেক এই আম্পায়ার দারিদ্রের কষাঘাতে লাহোরের লিন্ডে বাজারে একটি দোকান খুলেছেন। যেখানে পুরোনো জামা-জুতো বিক্রি করছেন তিনি।

কিন্তু ঘটনা সেটা নয়। অনেক আগে থেকে এই ব্যবসায় জড়িত আসাদ। আর তা নিয়ে গর্বিত তিনি। ভালো মানের সেকেন্ড হ্যান্ড জিনিস বিক্রি করেন। জিও নিউজকে তিনি বলেছেন, ‘আজকাল আমার গল্প এভাবে বলা হচ্ছে যে, আমি খুব খারাপ অবস্থায় আছি এবং দারিদ্রের কারণে আমি লিন্ডে বাজারে কাজ করছি।’

এই ব্যবসা অনেক পুরোনো বলছেন আসাদ, ‘আমি যখন এলিট আম্পায়ার ছিলাম তখন থেকে এসব এলিট জিনিস বিক্রি করতাম। আম্পায়ারিং ছিল অন্য ব্যাপার। জুতো, কাপড় ও ব্যাগের মতো সেকেন্ড হ্যান্ড জিনিস বিক্রি করি। রান্নাবান্নার জিনিসপত্রও আছে, যেগুলো বড়লোকের বাড়িতেও ব্যবহৃত হয়।’

আসাদ এই ব্যবসা নিয়ে গর্বিত, ‘সেকেন্ড হ্যান্ডের জিনিসপত্রের ব্যবসা নিয়ে আমি অস্বস্তিতে নেই, আমি গর্বিত এমন একটি ব্যবসা করে যেটা আমার পরিবারের কেউ কখনও করেনি বা চিন্তাতেও আনেনি।’

৬৬ বছর বয়সী সাবেক এই আম্পায়ার অবশ্য কিছুটা সমস্যার মধ্যে আছেন, ‘৫৭ বছর বয়স পর্যন্ত আমি এলিট আম্পায়ার ছিলাম। কিছু কারণে আমার তার সঙ্গে সম্পর্ক চুকাতে হয়েছিল। আমার ছেলে অসুস্থ, ফিটনেস ইস্যুও আছে, আমার কানে শোনাতেও সমস্যা।’

৮ বছরের আম্পায়ারিং ক্যারিয়ারে ৪৯ টেস্ট, ৯৮ ওয়ানডে ও ২৩ টি-টোয়েন্টিতে ম্যাচ পরিচালনা করেন আসাদ। ২০১৩ সালে আইপিএলে স্পট ফিক্সিংয়ের অভিযোগ ওঠে। সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ হন তিনি। ২০১৬ সালে তাকে দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় পাঁচ বছরের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। আর কখনও আম্পায়ারিং করতে দেখা যায়নি আসাদকে।

ঢাকা/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়