ঢাকা     বুধবার   ১৭ আগস্ট ২০২২ ||  ভাদ্র ২ ১৪২৯ ||  ১৮ মহরম ১৪৪৪

১৩ ওভার পর বৃষ্টিতে ভেসে গেলো প্রথম টি-টোয়েন্টি

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৪৬, ২ জুলাই ২০২২   আপডেট: ০৪:২১, ৩ জুলাই ২০২২
১৩ ওভার পর বৃষ্টিতে ভেসে গেলো প্রথম টি-টোয়েন্টি

ডোমিনিকা থেকে ছবি পাঠিয়েছেন মিলটন আহমেদ।

১২.৪ ওভারে সোহানের ছয়ে বাংলাদেশ দলীয় একশ পার করে। সোহান আউট হয়ে যান এই ওভারেই। ওভারট শেষ না হতেই আবার বৃষ্টির বাঁধা। শেষ পর্যন্ত ম্যাচটি ভেসে যায় বৃষ্টিতে। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে এই মাঠেই, আগামীকাল রাত সাড়ে ১১টায়। আজ বৃষ্টির কারণে প্রথমে ১ ঘণ্টা ৪০ মিনিট দেরিতে খেলা শুরু হয় ১৬ ওভারে। ৭.৩ ওভার পর আবার বৃষ্টি আসলে আরও ২ ওভার কমিয়ে ১৪ ওভার করা হয়। ১৩ ওভার পর এবার বৃষ্টি আসে। বৃষ্টি আইনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১৪ ওভারে নতুন লক্ষ্য পায় ১০৮ রান৷ কিন্তু স্থানীয় সময় ৫টা ১৮ মিনিটের আগে কমপক্ষে পাঁচ ওভারের খেলার সিদ্ধান্ত নিতে হতো। কিন্ত বৃষ্টিতে খেলার কোন সুযোগই মেলেনি। শেষ পর্যন্ত দুই অধিনায়কের সঙ্গে কথা বলে ম্যাচ অফিসিয়ালরা পরিত্যাক্ত ঘোষণা করে। বাংলাদেশ ব্যাটিংয়ে ভালো করতে পারেনি। পাওয়ার প্লেতে ৫৬ রান যোগ করার পর হঠাৎ ছন্দপতন ঘটে। ২১ রানে হারায় ৫ উইকেট। শুরুতে সাকিব আল হাসানের ঝড় আর শেষে নুরুল হাসান সোহানের দারুণ ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ ১০০ পার করতে পারে ১৩ ওভারে। ১৫ বলে সর্বোচ্চ ২৯ রান করেন সাকিব। আর সোহানের ব্যাট থেকে আসে ১৬ বলে ২৫। ৭ বছর পর দলে ফিরে এনামুল হক বিজয় আউট হন ১০ বলে ১৬ রান করে। এ ছাড়া কোনো ব্যাটসম্যান দুই অঙ্কের ঘর পেরোতে পারেননি। ৩ ওভারে ২১ রান দিয়ে উইন্ডিজের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন রোমারিও শেইফার্ড। এ ছাড়া ২ উইকেট নেন হেইডেন ওয়ালশ। 

বাংলাদেশ: ১০৫/৮ (১৩ ওভার)

ফলাফল: পরিত্যাক্ত। 

দলীয় একশ পার করে আউট সোহান 

স্মিথের করা ১৩তম ওভারের দ্বিতীয় বল। লেগ সাইড দিয়ে হাওয়ায় ভাসিয়ে পাঠিয়ে দিলেন বাউন্ডারির বাইরে। এক বল ডট দিয়ে মিডউইকেটে আবার ছয়। ১২.৪ ওভারে বাংলাদেশ ১০০ পার করে। তবে ক্রিজে থাকতে পারেননি সোহান। অফ স্ট্যাম্পের বাইরে এসে মিড উইকেটে স্লগ করতে গিয়ে ধরা পড়েন ব্রেন্ডনের হাতে। ১৬ বলে ২৫ রান করেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান।

২১ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে বিপাকে বাংলাদেশ

এবার আউট মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। শেইফার্ডের বলে ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে ওয়ালশের দারুণ ক্যাচে ফেরেন সাজঘরে। বাংলাদেশ অধিনায়কের ব্যাট থেকে আসে ১৩ বলে ৮ রান। ক্রিজে এসে একই ওভারে সাজঘরে ফেরেন শেখ মেহেদী হাসান। ৩ বলে ১ রান করে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন এই অলরাউন্ডার। ৫৬ থেকে ৭৭ রানের মধ্যে ২১ রানের ব্যবধানে ৫ উইকেট হারালো বাংলাদেশ। ক্রিজে নুরুল হাসানের সঙ্গী শেখ মেহেদী হাসান। 

বৃষ্টির পর প্রথম বলেই আউট আফিফ

প্রায় ৩৪ মিনিট বন্ধ থাকার পর পুনরায় খেলা শুরু হয়েছে। তবে ওভার কমেছে আরও দুটি। ১৪ ওভার করে খেলবে দুই দল। বৃষ্টির পর নেমে প্রথম বলেই ফিরলেন আফিফ হোসেন ধ্রুব। ২ বল খেলে রানের খাতা খুলতে পারেননি এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। ৬০ রানে ৫ উইকেট হারালো বাংলাদেশ। ওয়ালশের ফুলার বলে স্লগ সুইপ করতে চেয়েছিলেন আফিফ, টাইমিং ঠিকমতো হয়নি। লং অনে দৌড়ে গিয়ে ক্যাচ ধরেন ব্রেন্ডন কিং। এ নিয়ে ২ উইকেট নিলেন ওয়ালশ। 

৭.৪ ওভার পর বৃষ্টিতে বন্ধ খেলা, বাংলাদেশের সংগ্রহ ৬০

৭.৪ ওভার তথা ৪৬ ওভার খেলা হওয়ার পর বৃষ্টিতে বন্ধ রয়েছে খেলা। বাংলাদেশ সময় সাড়ে ১১টায় খেলা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও ভেজা আউটফিল্ডের কারণে শুরু হয় ১টা ১০ মিনিটে। এবার হানা দিলো খোদ বৃষ্টি-ই। 

আউট সাকিব, দুর্দান্ত পাওয়ার প্লের পর হঠাৎ ছন্দপতন

১৫ বলে ২৯ রান করে সাজঘরে সাকিব আল হাসান। পাওয়ার প্লের পর ২ ওভারে (এখনো শেষ হয়নি) বাংলাদেশ হারালো ২ উইকেট। রান হয়েছে মাত্র ৪টি।  ওয়ালশের বেরিয়ে যাওয়া গুগলি তার মাথার উপর দিয়ে উড়িয়ে মারতে চেয়েছিলেন সাকিব। ব্যাটে-বলে ঠিকঠাক হয়নি। কানায় লেগে যায় উইকেটের পেছনে। ২টি করে ছয়-চারে সাকিব এই রান করেন। শুরু থেকেই এই অলরাউন্ডার ছিলেন আগ্রাসী মেজাজে। সাকিবের আউটের পর ক্রিজে আসেন আফিফ। 

সাকিব ঝড়ে পাওয়ার প্লেতে ৫৬, ফিরলেন লিটন

সাকিব আল হাসানের ঝড়ে পাওয়ার প্লেতে বাংলাদেশ ২ উইকেট হারিয়ে ৫৬ রান করে। সাকিব ১১ বলে ২৬ রান করেন। এ ছাড়া ১০ বলে ১৬ রান করে আউট হন এনামুল হক বিজয়। তবে পাওয়ার প্লের পর প্রথম ওভারেই লিটন দাস ফেরেন ১৪ বলে ৯ রান করে। শেইফার্ডের স্লোয়ার বলে মিডউইকেট দিয়ে উড়িয়ে মারতে চেয়েছিলেন লিটন, কিন্তু টাইমিং ঠিকঠাক হয়নি। 

৭ বছর পর ফিরে এনামুলের ১৬ রান

মুনিম ফেরার পর চলছিল এনামুল হক ও সাকিব আল হাসানের ঝড়। ঘুরে দাঁড়ায় বাংলাদেশ। ৩ ওভার শেষে বাংলাদেশের রান ৩২। তবে চতুর্থ ওভারের তৃতীয় বলেই এলবিডব্লিউ হয়ে ফেরেন এনামুল। এনামুল-সাকিব ১৮ বলে ৩৪ রান যোগ করেছেন। কিন্তু আর বড় করতে পারেননি। ওবেদ ম্যাককয়ের বলে এলবিডব্লিউ হন তিনি। রিভিউ নিয়েছিলেন কিন্তু কোনো কাজে আসেনি। ৭ বছর পর দলে ফিরে ১৬ রান করে ফিরলেন। ২ চারে শুরু হয়েছিল ইনিংস, কিন্তু লম্বা করতে পারেননি। ক্রিজে সাকিব আল হাসানের সঙ্গী লিটন দাস। 

প্রথম ওভারেই ২ রানে আউট মুনিম শাহরিয়ার

ইনিংসের তৃতীয় বলে মাত্র ২ রানে ফিরলেন ওপেনার মুনিম শাহরিয়ার। দ্বিতীয় বলে ২ রান দিয়ে শুরু করেছিলেন মুনিম। কিন্ত আকিল হোসেনকে পরের বলে ড্রাইভ করতে গিয়ে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। ক্যারিয়ারের প্রথম তিন ম্যাচে তার ব্যাট থেকে এলো ২৩ রান। ক্রিজে এলেন সাকিব আল হাসান।

৭ বছর পর একাদশে এনামুল

এনামুল হক বিজয় সবশেষ টি-টোয়েন্টি খেলেছেন ৭ বছর আগে ২০১৫ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। ১৩ ম্যাচে ৩২.২৭ গড়ে করেছেন ৩৫৫ রান। একমাত্র ফিফটিতে সর্বোচ্চ ৫৮। ঘরোয়া ক্রিকেটে ধারাবাহিক এনামুল পুরস্কার পেয়েছেন দলে ডাক পেয়ে। চলতি বছর ঘরোয়া ক্রিকেটের সবগুলো আসরেই তার ব্যাটে ছুটেছিল রানের ফোয়ারা। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে সব রেকর্ড ভেঙে গড়েছিলেন নতুন রেকর্ড। মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ১৮১৪ রান করে। এর মধ্যে ঢাকা লিগেই তার ব্যাট থেকে আসে ১১৩৮ রান! বাংলাদেশেই নয় শুধু, লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটেই এটি বিশ্ব রেকর্ড। তিনি ওপেনিং করবেন মুনিম শাহরিয়ারের সঙ্গে। 

বাংলাদেশ একাদশ:

বাংলাদেশ একাদশ সাজিয়েছে তিন স্পিনার ও দুই পেসার নিয়ে। ৭ বছর পর টি-টোয়েন্টি দলে ফিরেছেন এনামুল হক বিজয়। একাদশে জায়গা হয়নি তাসকিন আহমেদের। 

মুনিম শাহরিয়ার, এনামুল হক বিজয়, লিটন দাস, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, নুরুল হাসান সোহান, শেখ মেহেদী হাসান, নাসুম আহমেদ, শরীফুল ইসলাম ও মোস্তাফিজুর রহমান।

ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ, খেলা ১৬ ওভারে 

টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ, খেলা ১৬ ওভারে। ১টা ১০ মিনিটে খেলা শুরু হবে। খেলা হবে ১৬ ওভার। ১ জন বোলার সর্বোচ্চ ৪ ওভার বোলিং করতে পারবে। 

১২টা ৪৫ মিনিটে টস, খেলা ১টা ১৫ মিনিটে

১২টা ৪৫ মিনিটে টস, খেলা ১টা ১৫ মিনিটে। মাঠ পর্যবেক্ষণের পর জানিয়েছেন ম্যাচ অফিসিয়ালরা। 

যোগ করা হয়েছে এক ঘণ্টা, খেলা হবে ২০ ওভারেই

উইন্ডসর পার্কের ভেজা আউটফিল্ডের কারণে যথা সময়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রথম টি-টোয়েন্টি শুরু হয়নি। তবে স্বস্তির বিষয় হলো এক ঘণ্টা অতিরিক্ত সময় যোগ করা হয়েছে। সাড়ে ১২টার মধ্যে খেলা শুরু হলেও কোনো ওভার কাটা হবে না। এই মুহূর্তে আউটফিল্ড ঠিক করার কাজ করছেন মাঠ কর্মীরা। পরবর্তী পর্যবেক্ষণ হবে বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ১২টায়।  

উইন্ডসর পার্কের আউটফিল্ড ভেজা, টস হতে দেরি

ডোমিনিকার উইন্ডসর পার্কে শনিবার (২ জুলাই) তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখোমুখি বাংলাদেশ। খেলাটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময়  রাত সাড়ে ১১টায়। সুখবর হলো শেষ ১ ঘণ্টায় কোনো বৃষ্টি হয়নি। তবে আউটফিল্ড ভেজা থাকায় নির্ধারিত সময়ে টস হতে দেরি হচ্ছে। 

উইন্ডসর পার্কে সাজসাজ রব, নেই বৃষ্টি প্রস্তুত মাঠ

২০০৭ সালে ঘূর্ণিঝড়ে বিধ্বস্ত হওয়া উইন্ডসর পার্কের নবযাত্রা শুরু হবে বাংলাদেশের ম্যাচ দিয়েই। এজন্য দ্বীপটিতে বিরাজ করছে রোমাঞ্চও। কিন্তু এখানেও সেই বাধা হতে পারে একটি, বৃষ্টি! সকাল থেকে বৃষ্টি হলেও সুখবর হলো এই মুহূর্তে থেমে গেছে। মাঠও প্রস্তুত। দেখা যাচ্ছে সূর্যের আলো। তবে ভ্যাপসা গরম বিরাজ করছে। আবহাওয়া বার্তা বলছে, যেকোনও মুহূর্তে আবার নামতে পারে বৃষ্টি। 

মাঠে নামতে মুখিয়ে বাংলাদেশ

ডোমিনিকা আসার পথে দুঃস্মৃতি ভুলে ক্রিকেটারদের মনোযোগ শুধু এখন ম্যাচের দিকেই। সেন্ট লুসিয়া থেকে ফেরিযোগে আটলান্টিক পাড়ি দিতে গিয়ে যে অভিজ্ঞতা হয়েছিল শরিফুলদের, সেটা পরদিনই তাদের উচ্ছ্বাস মাখা ছবি দেখে বলা যায়- এসব অতীত। এবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি যুদ্ধে লড়ার পালা। টেস্টের ব্যর্থতা ভুলে বাংলাদেশ এখন টি-টোয়েন্টি রাঙাতে চায়। 

বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, ‘সাদা বল আর লাল বল আলাদা। এখন ভিন্ন বলের খেলা। লাল বলের সিরিজকে এখন আমরা সামনে আনছি না, টি-টোয়েন্টিতেই মনোযোগ রাখার চেষ্টা করছি। একইসাথে আমরা বিশ্বকাপেরও প্রস্তুতি নিচ্ছি। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে তাদের ঘরের মাঠে মোকাবিলা করতে মুখিয়ে আছি।’

সুখস্মৃতিতে বুঁদ থাকতে চান না মাহমুদউল্লাহ 

উইন্ডসর পার্কে বাংলাদেশের দারুণ স্মৃতি রয়েছে। ২০০৯ সালে এখানে দুটি ওয়ানডে খেলে প্রত্যেকটিই জিতেছিল বাংলাদেশ। সেই দলে খেলা সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ আছেন এই দলে। কিন্তু টি-টোয়েন্টি দলের মাহমুদউল্লাহ সেই সুখস্মৃতিতে বুঁদ থাকতে চান না। তার ভাষ্য, ‘এটা অনেক আগের কথা। এখন হয়তো এটা আমাদের জন্য নতুন একটা ভেন্যু। উইকেট ভিন্ন হলেও হতে পারে। উইকেট ভালো হলে তো ভালোই। মানিয়ে নেওয়ার জন্য আমাদের মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকতে হবে।’

লড়াই হবে সমানে-সমান 

টি-টোয়েন্টিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দুর্দান্ত দল হলেও বাংলাদেশের বিপক্ষে তেমন সুবিধা করতে পারেনি। হার-জিতের পাল্লা দুই দলেরই প্রায় কাছাকাছি অবস্থান। এখন পর্যন্ত দুই দল মুখোমুখি হয়েছে ১৩বার। তাতে ৭বার উইন্ডিজ ও ৫বার বাংলাদেশ জিতেছে। ১টি ম্যাচের ফল হয়নি। সবশেষ সফরে ২০১৮ সালে বাংলাদেশ সিরিজও জিতেছিল ২-১ ব্যবধানে। এবারও সেই চ্যালেঞ্জ নিয়ে নামতে চান মাহমুদউল্লাহ।

সিরিজ শুরুর আগের দিন মাহমুদউল্লাহ সাংবাদিকদের বলেন, ‘সাকিব, লিটন আছে, আমি আছি। আফিফ, সোহান, মোসাদ্দেক আছে। শেখ মেহেদী আছে। আমি মনে করি ব্যাটিংয়ের গভীরতা ভালো। আমাদের বোলিং আক্রমণও খুব ভালো, বৈচিত্র্য আছে। আশা করি অনেক চ্যালেঞ্জিং সিরিজ হবে।’

ঢাকা/রিয়াদ/এনএইচ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়