ঢাকা     সোমবার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ২১ ১৪২৯ ||  ০৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

জয়ে শুরু সুইজারল্যান্ডের

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:০১, ২৪ নভেম্বর ২০২২   আপডেট: ১৭:৫৯, ২৪ নভেম্বর ২০২২
জয়ে শুরু সুইজারল্যান্ডের

জয় দিয়ে শুরু করলো সুইজারল্যান্ড। বৃহস্পতিবার বিকেলে ক্যামেরুনের বিপক্ষে তারা ১-০ গোলে জয় পেয়েছে। ম্যাচের ৪৮ মিনিটে জয়সূচক একমাত্র গোলটি করেন ব্রেল এমবোলো।

সুযোগ মিস:
ম্যাচের ৬৬ মিনিটে সুইজারল্যান্ড ও ক্যামেরুন গোলের সুযোগ পায়। কিন্তু কেউ-ই গোল করতে পারেননি। প্রথমে ক্যামেরুনের ফ্রাঙ্ক অ্যাঙ্গুইসার নেওয়া শট ধরে ফেলেন গোলরক্ষক। পরে সুইজারল্যান্ডের রুবেন ভার্গাস নেওয়া শট রুখে দেন ক্যামেরুনের গোলরক্ষক।

এগিয়ে গেল সুইসার:

বিরতি থেকে ফিরেই গোলের দেখা পেয়ে যায় সুইজারল্যান্ড। ৪৮ মিনিটে গোলটি করেন বেরিল এমবোলো। এ সময় ডানদিক থেকে তাকে বল বাড়িয়ে দেন জারদান শাকিরি। বক্সের সামনে এমবোলো পেয়েই জোরালো শট নেন। বল জালে জড়ায়।

প্রথমার্ধ শেষে সুইজারল্যান্ড ০, ক্যামেরুন ০।

সুযোগ মিসের মহড়ায় সুইজারল্যান্ড ও ক্যামেরুনের মধ্যকার ম্যাচের প্রথমার্ধের খেলা গোলশূন্যভাবে শেষ হয়েছে। এই অর্ধে ৫১ শতাংশ বলের দখল ছিল সুইজারল্যান্ডের কাছে। তবে আক্রমণে এগিয়ে ছিল ক্যামেরুন। তারা গোলপোস্টের দিকে ৫টি শট নেয়। তার মধ্যে দুটি ছিল অন টার্গেটে। অন্যদিকে সুইসরা গোলপোস্টের দিকে শট নেয় ৩টি। তার একটিও অন টার্গেটে ছিল না।

সুইজারল্যান্ডের আরও একটি সুযোগ মিস:
প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে কর্নার পায় সুইসরা। কর্নার থেকে রুবেন ভার্গাসের ক্রসে হেড নেন ম্যানুয়েল আকানজি। কিন্তু অল্পের জন্য মিস হয়। বল ডানদিক দিয়ে চলে যায় বাইরে।

সুযোগ মিস:
৪০ মিনিটে কর্নার থেকে আসা বলে গোলের দারুণ সুযোগ পেয়েছিল সুইজারল্যান্ড। কিন্তু নিকো এলভেদির নেওয়া হেড বাম পাশ দিয়ে চলে যায়।

প্রথম হলুদ কার্ড:
৩৬ মিনিটের মাথায় ম্যাচের প্রথম হলুদ কার্ড হয়। ক্যামেরুনের কলিন্স ফেই সুইজারল্যান্ডের এলভেদিকে ফাউল করে কার্ড দেখেন।

ক্যামেরুনের দ্বিতীয় কর্নার:
৩০ মিনিটের মাথায় দ্বিতীয় কর্নার পায় ক্যামেরুন। এটা থেকেও কোনো সুযোগ তৈরি করতে পারেনি তারা।

সুযোগ মিস:
২৬ মিনিটে গোলের সুযোগ পেয়েছিলেন ক্যামেরুনের কলিন্স ফেই। তার নেওয়া ডান পায়ের শট বক্সের বাইরে দিয়ে চলে যায়।

ক্যামেরুনের প্রথম কর্নার:
ম্যাচের ২৪ মিনিটে প্রথম কর্নার পায় ক্যামেরুন। যদিও এটা থেকে সুযোগ তৈরি করতে পারেনি তারা।

দ্বিতীয় কর্নার সুইজারল্যান্ডের:
ম্যাচের ১৫ মিনিটে দ্বিতীয় কর্নার পায় সুইজারল্যান্ড। আবারও কর্নার করেন ক্যামেরুনের খেলোয়াড় নউহউ তোলো।

সুযোগ মিস:
ম্যাচের ১০ মিনিটে আরও একটি সুযোগ মিস করেন ক্যামেরুনের কার্ল তোকো একাম্বি। ১২ মিনিটের মাথায় সুইজারল্যান্ডের গ্রানিত শাকা বারের উপর দিয়ে উড়িয়ে মেসে সুযোগ মিস করেন।

প্রথম সেভ:
ম্যাচের ১০ মিনিটের মাথায় দারুণ একটি আক্রমণ করেছিল ক্যামেরুন। এ সময় সতীর্থ মার্টিন হংগ্লা বাড়িয়ে দেওয়া বল থেকে বাম পায়ে শট নেন ব্রায়ান এমবেম্বু। কিন্তু সেটি ধরে ফেলেন সুইজারল্যান্ডের গোলরক্ষক।

প্রথম কর্নার পেল সুইজারল্যান্ড:
ম্যাচের প্রথম মিনিটেই কর্নার পায় সুইজারল্যান্ড। ক্যামেরুনের খেলোয়াড় নউহউ তোলে কর্নার করেন।

বিশ্বকাপের ‘জি’ গ্রুপের ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে সুইজারল্যান্ড ও ক্যামেরুন। বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টায় শুরু হয়েছে ম্যাচটি। যা সরাসরি দেখা যাচ্ছে বিটিভি, গাজী টিভি ও টি স্পোর্টসে।

এই দুটি দল অবশ্য অচেনা প্রতিপক্ষ। তারা বিশ্বকাপ কিংবা কোনো টুর্নামেন্ট তো দূরের কথা প্রীতি ম্যাচেও কখনো মুখোমুখি হয়নি।

ফিফা র‌্যাংকিংয়ে সুইজারল্যান্ড রয়েছে ১৫তম অবস্থানে। অন্যদিকে ক্যামেরুন আছে ৪৩তম অবস্থানে।

ঢাকা/আমিনুল

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়