ঢাকা     বুধবার   ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||  মাঘ ২৫ ১৪২৯

‘মৃত্যু জীবনের স্বাভাবিক অংশ’, অভিবাসী শ্রমিকের মৃত্যুতে কাতার বিশ্বকাপের প্রধান

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:২৬, ৯ ডিসেম্বর ২০২২   আপডেট: ১২:৫৩, ৯ ডিসেম্বর ২০২২
‘মৃত্যু জীবনের স্বাভাবিক অংশ’, অভিবাসী শ্রমিকের মৃত্যুতে কাতার বিশ্বকাপের প্রধান

বিশ্বকাপের আয়োজক হওয়ার পর  কাতারে অবকাঠামো নির্মাণে অভিবাসী শ্রমিকদের অপব্যবহার করার অভিযোগ করেছে মানবাধিকার সংস্থা। সাড়ে ৬ হাজার অভিবাসী শ্রমিক নিহতের খবর দিয়েছিল ব্রিটিশ সংবাদপত্র দ্য গার্ডিয়ান। যদিও এসব দাবি নাকচ করেছে দিয়েছে আয়োজকরা, তারা বলছে ‘স্বাভাবিক কারণ’ বা  ‘হৃদরোগে’ আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন অভিবাসী শ্রমিকরা। তবে বিশ্বকাপ চলাকালে ট্রেনিং সাইটে কাজ করার সময় এক ফিলিপিনো শ্রমিকের মৃত্যুতে শুরু হয়েছে তদন্ত।

কাতার বিশ্বকাপের প্রধান নির্বাহী নাসের আল খাতার রয়টার্সের কাছে এক শ্রমিকের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন। তবে বিস্তারিত কিছু বলেননি। এছাড়া তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন এবং বলেছেন, ‘মৃত্যু জীবনের স্বাভাবিক একটি অংশ।’

ফিলিপাইনের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নিশ্চিত করেছে, তাদের একজন নাগরিক রাজধানী দোহার দক্ষিণে অবস্থিত একটি রিসোর্টে কাজ করার সময় মারা যান। বুধবার দ্য অ্যাথলেটিক রিপোর্ট করে, ওই কর্মী সৌদি আরব জাতীয় দলের ট্রেনিং সাইট সিলাইন রিসোর্টের কার পার্কিংয়ের লাইট ঠিক করার কাজে নিযুক্ত ছিলেন। একটি ফোর্কলিফটের পাশ দিয়ে হাঁটার সুময় র‌্যাম্প থেকে পা পিছলে নিচে পড়ে কংক্রিটের সঙ্গে মাথায় আঘাত লেগে মৃত্যু হয় তার।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কিছু সূত্রে জানা গেছে, বিশ্বকাপ চলাকালে এই দুর্ঘটনা ঘটে। কিন্তু কখন সেটা জানা যায়নি। ফিলিপাইন বিবৃতিতে জানায়, নিহতের পরিবারের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে তারা আর বিস্তারিত জানাবেন না।

কাতার বিশ্বকাপের আয়োজনকারী সুপ্রিম কমিটি ফর ডেলিভারি অ্যান্ড লিগ্যাসি (এসসি) এক বিবৃতিতে বলে, তদন্তের মুখে তারা পড়েনি। কারণ নিহত ব্যক্তি একজন ঠিকাদারি হিসেবে কাজ করছিলেন, এসসির অধীনে নয়। এনিয়ে প্রশ্ন করায় হতাশা প্রকাশ করে খাতার বলেন, ‘মৃত্যু জীবনের একটি স্বাভাবিক অংশ, এটা হতে পারে কাজ করতে গিয়ে, আবার ঘুমের মধ্যেও। আমরা বিশ্বকাপের মাঝামাঝি জায়গায় আছি। আমাদের একটি সফল বিশ্বকাপ হচ্ছে। আর ঠিক এই সময়ে আপনারা এমন কিছু নিয়ে কথা বলতে চাইছেন?’

ঢাকা/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়