RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ২৪ অক্টোবর ২০২০ ||  কার্তিক ৯ ১৪২৭ ||  ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

খালাফ মার্ডার

ম্যাজিস্ট্রেটসহ ৫ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৬:১৪, ১৮ নভেম্বর ২০১২   আপডেট: ০৫:২২, ৩১ আগস্ট ২০২০
ম্যাজিস্ট্রেটসহ ৫ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ

ঢাকা: সৌদি দূতাবাস কর্মকর্তা খালাফ আল আলী হত্যা মামলায় আসামি আল আমীনের স্বীকারোক্তি গ্রহণকারী ম্যাজিস্ট্রেটসহ ৫ জন আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন।

রোববার মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট শাহরিয়ার মাহমুদ আদনান,উত্তরা সেবা ক্লিনিকের মালিক ও ঘাতক অস্ত্রের বৈধ মালিক ডাক্তার আবুল হোসেন, আনোয়ার হোসেন (পাইপমিস্ত্রি),আতিকুর রহমান মুন্সী ও তার ছেলে ফয়সাল আহম্মদ ঢাকার ৪ নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে হাজির হয়ে এ সাক্ষ্য দেন।

সংশ্লিষ্ট আদালতের বিচারক মো. মোতাহার হোসেন এ সাক্ষ্য গ্রহণ করেন। বাকি সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য সোমবার দিন ধার্য করেছে ট্রাইব্যুনাল।

সাক্ষ্য গ্রহণের সময় খালাফের ঘাতক পিস্তলটি সনাক্ত করেন উত্তরা সেবা ক্লিনিকের মালিক ও ঘাতক অস্ত্রের বৈধ মালিক ডাক্তার আবুল হোসেন।

এ নিয়ে ৩৩ সাক্ষির মধ্যে ২৪ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হলো।

সাক্ষ্য গ্রহণের সময় জেলহাজতে আটক চার আসামি সাইফুল ইসলাম ওরফে মামুন,মো. আল আমীন,আকবর আলী লালু ওরফে রনি ও রফিকুল ইসলাম খোকনকে আদালতে হাজির করা হয়।

অপর আসামি সেলিম চৌধুরী ওরফে সেলিম আহম্মেদ মামলার শুরু থেকেই পলাতক।

রাষ্ট্রপক্ষে বিশেষ পিপি এসএম রফিকুল ইসলাম সাক্ষিদের সাক্ষ্য দেওয়ায় সহায়তা করেন।

আসামিপক্ষে সাক্ষিদের জেরা করেন অ্যাডভোকেট হাবিব উল্লাহ,ফারুক আহমেদ ও সাইফুল ইসলাম খন্দকার পলাশ।

প্রসঙ্গত,গত ৫ মার্চ রাত ১টার দিকে গুলশানের কুটনীতিক এলাকার ১২০ নম্বর সড়কের ১৯/বি নম্বর বাসার সামনে গুলিবিদ্ধ হন খালাফ আল আলী (৪৫)। ৬ মার্চ ভোরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এই সৌদি দূতাবাস কর্মকর্তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে গত ৭ মার্চ গুলশান থানার এসআই মোশারফ হোসেন একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী পুলিশ পরিদর্শক ওবায়দুল হক গত ২০ সেপ্টেম্বর ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে ৫ আসামিকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দাখিল করেন।

চার্জশিটে খালাফ অভিযুক্ত আসামি ছিনতাইকারীদের রিভলবারের গুলিতে নিহত হন বলে উল্লেখ করা হয়েছে। নেশার টাকা জোগাড় করতে গিয়ে বিদেশি দেখে ডলার পাওয়ার আশায় তারা খালাফকে ঘিরে ধরলে অভিযুক্ত ছিনতাইকারীদের সঙ্গে খালাফের ধস্তাধস্তি হয়।

এরই এক পর্যায়ে আসামি সাইফুল ইসলাম মামুন পয়েন্ট ২২ বোরের রিভলবার দিয়ে গুলি করে খালাফ আল আলীকে হত্যা করে।

রাইজিংবিডি.কম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়