ঢাকা, শুক্রবার, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

পেসার নয়, পেস অলরাউন্ডারের খোঁজে ডমিঙ্গো

ইন্দোর থেকে ক্রীড়া প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১১-১৫ ৯:০৪:৩৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১১-১৫ ১০:৫৯:১৮ পিএম

ইন্দোরে এখন পর্যন্ত আবু জায়েদ রাহী ২৫ ওভার ও ইবাদত হোসেন ৩১ ওভার বোলিং করেছেন। রাহীর পকেটে গেছে চার উইকেট। ইবাদত পেয়েছেন ১টি।

শুধু সাফল্য নয় বোলিং বিবেচনায় রাহী এগিয়ে বিশাল ব্যবধানে। ডানহাতি পেসার নিয়ন্ত্রিত বোলিং করেছেন। বোলিংয়ে ছিল বৈচিত্র্য এবং ব্যাটসম্যানকে ভুগিয়েছেন। অন্যদিকে ইবাদত ব্যাটসম্যানদের ফ্রি স্ট্রোক খেলতে দিয়েছেন। তেমন আক্রমণাত্মক হতে পারেননি ২২ গজে।

উইকেটের যে চরিত্র তাতে তৃতীয় পেসারের অভাব অনুভব হয়েছে ভালোভাবেই। বিশেষ করে টানা বোলিংয়ের পর তৃতীয় পেসারের প্রয়োজন ছিল বেশ। বাংলাদেশ দুই পেসারের সঙ্গে দুই স্পিনার নিয়ে নেমেছে। ভারত এমন ভুল করেনি। তিন পেসার ও দুই স্পিনার তারা একাদশে রেখেছে। অবশ্য সেরা কম্বিনেশন সাজাতে বাংলাদেশ একাধিক বিষয় মাথায় রেখেছে।

ভারতের শক্তিশালী ব্যাটিং আক্রমণের সামনে বাংলাদেশ বাড়তি একজন ব্যাটসম্যান নিয়েছে। কিন্তু প্রথম ইনিংসে তেমন লাভ হয়নি। দেখা যাক দ্বিতীয় ইনিংসে কী করতে পারেন ব্যাটসম্যানরা। তবে টেস্ট দলে বাড়তি পেসারের থেকে একজন পেস অলরাউন্ডার খুঁজছে বাংলাদেশ। ডমিঙ্গো জানালেন, ৭ বা ৮ নম্বরে ব্যাটিং করতে পারবে এমন একজন পেস অলরাউন্ডারকে দলে চাচ্ছে তারা।

‘দলের চিত্র পাল্টাতে হবে। দুই পেসার নিয়ে মাঠে নামা কষ্টকর। আমাদেরকে অবশ্যই তৃতীয় পেসারের খোঁজ করা উচিত যে কিনা ব্যাটিংও পারে। হ্যাঁ, সাইফউদ্দিন আছে। কিন্তু ইনজুরিতে জর্জরিত সে। তবে দলের স্ট্রাকচার পাল্টাতে হবে। আমাদের বিপক্ষে সামনে অনেক দলের খেলা। তারা আমাদেরকে ভালো উইকেটে খেলতে দেবে যেগুলোতে বল স্পিন করবে না। এজন্য আমাদের পেসার লাগবে যারা ৭ কিংবা ৮ নম্বরে ব্যাটিং করতে পারবে।’

রাহী ও ইবাদত বাদে স্কোয়াডে আছেন মুস্তাফিজুর রহমান ও আল-আমিন হোসেন। তাদের দুজনের যেকোনো একজনকে না নেওয়ার কারণ জানাতে গিয়ে ডমিঙ্গো বলেছেন,‘আমরা সত্যিই তিন পেসার নিয়ে নামতে চেয়েছিলাম। কিন্তু বাড়তি একজন পেসার নিলে আমাদের ব্যাটিং গভীরতা কমে আসে।’

বাড়তি ব্যাটসম্যান খেলানোর ব্যাখ্যায় ডমিঙ্গোর সহজ স্বীকারক্তি,‘আপনার ছয় ব্যাটসম্যানের ব্যাটিং গড় যখন ৪৫ কিংবা ৫০ হবে তখন আপনি সহজেই কম ব্যাটসম্যান নিয়ে খেলার সাহস করবেন। কিন্তু এর থেকে নিচে নামলে আপনাকে আরেকজন ব্যাটসম্যান নিতেই হবে। ঘাটতি পূরণেই আমাদেরকে একজন বাড়তি ব্যাটসম্যান নিতে হচ্ছে।’

ম্যাচের আগে অধিনায়ক মুমিনুল হক প্রস্তুতির ঘাটতি নেই বলে জানিয়েছিলেন। কিন্তু কোচ বলছেন ভিন্ন কথা,‘আমরা টেস্টের আগে মাত্র দুদিনের সময় পেয়েছিলাম। আমাদের অনেক ফোকাস টি-টোয়েন্টিতে ছিল। কারণ ওটাই প্রথমে এসেছিল। এজন্য টেস্ট ক্রিকেট নিয়ে পর্যাপ্ত প্রস্তুতির সুযোগ পাইনি এবং কিছু খেলোয়াড়কে কাছ থেকেও জানা হয়নি। ‘


ইন্দোর/ইয়াসিন/আমিনুল

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন