ঢাকা, সোমবার, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

দলে ভ্যালুয়েবল পারফরমার চান ডমিঙ্গো

ইন্দোর থেকে ক্রীড়া প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১১-১৫ ১০:৩৭:২৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১১-১৬ ৯:৫৪:১৯ এএম

নতুন নেতৃত্বে বাংলাদেশ একেবারেই অনভিজ্ঞ দল।  মুমিনুল হকের নেতৃত্বে খেলছেন একঝাঁক তরুণ ক্রিকেটার। দলে আছেন শুধু ইমরুল, মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহ।  মুমিনুল হককে দুদিন অধিনায়কত্ব করতে দেখেছেন কোচ রাসেল ডমিঙ্গো।  মাঠে কেমন দেখলেন নতুন অধিনায়ককে? এখনই মন্তব্য করতে রাজী নন কোচ, ‘কঠিন সময় কাটানো দলের অধিনায়ককে দুদিনে বিচার করা কঠিন। তবে ও তরুণ এবং দ্রুত সব শিখতে চায়। নিজের সম্পর্কে জানে এবং অন্যকে সম্মান করে।’

তবে টেস্ট ক্রিকেটে উন্নতির জন্য বাংলাদেশের অবকাঠামো পরিবর্তনে পক্ষে মত দিয়েছেন কোচ।  তার মতে, যেভাবে বাংলাদেশ টেস্ট ক্রিকেটে এগোচ্ছে সেভাবে এগোতে থাকলে দীর্ঘ পরিসরে কোনো সাফল্য আসবে না।  বিশেষ করে বিদেশের মাটিতে টেস্টে ভালো ফলের দিকে জোর দিয়ে কোচ বলেছেন, ‘আপনি যখন টেস্ট জিততে চাইবেন তখন আপনার বোলিং আক্রমণকে শক্তিশালী হতে হবে।  দেশের বাইরে টেস্টে ভালো করতে হলে আপনাকে অন্তত ছয়জন টেস্ট বোলার লাগবেই।  ভারত, অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড এবং দক্ষিণ আফ্রিকা টেস্টে ভালো করছে কারণ তারা পাঁচ বা ছয়জন টেস্ট বোলার তৈরি করেছে যারা দেশের বাইরে এবং ভেতরে পারফর্ম করতে পারবে।’

পাশাপাশি দেশের উইকেট নিয়ে নিজের অসহায়ত্ব প্রকাশ করেছেন ডমিঙ্গো, ‘বাংলাদেশ স্পিনে শক্তিশালী। কিন্তু আপনি যদি পেসারদের সুযোগ না দেন তাহলে আপনি উন্নতি করতে পারবেন না। তাদেরকে একদিকে ১৮-২০ ওভার বোলিং করাতে হবে।  তারা এখন চারদিনের ম্যাচে মাত্র দিনে ৬-৭ ওভার বোলিং করে। ’

পাশাপাশি বর্তমান দল থেকে কাউকে কাউকে বাদ দিয়ে নতুন খেলোয়াড় নিয়ে আসার আভাস দিয়েছেন কোচ, ‘আপনি যদি সত্যি ভালোমানের টেস্ট দল হতে চান তাহলে আপনাকে অবকাঠামো পরিবর্তন করতে হবে।  আমাকে অধিনায়ক, নির্বাচকদের সঙ্গে বসতে হবে।  এগিয়ে যাওয়ার জন্য কয়েকজন খেলোয়াড়কে খুঁজতে হবে। হয়তো নতুন খেলোয়াড়কে সুযোগ দিতে হবে, তাদের নিয়ে সাময়িক যুদ্ধ করতে হবে কিন্তু একটা সময় পারফরম্যান্স বের হয়ে আসবে। আমাদের ভ্যালুয়েবল পারফরমার লাগবে। যারা দলের প্রয়োজনে খেলবে এবং দল তাদের দিয়ে সাফল্য পাবে।’

কোচের মতে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের জন্য পৃথক দুই দল গঠন করা সময়ের দাবি, ‘নিশ্চিত করে বলতে পারছি, কয়েকজন খেলোয়াড় টি-টোয়েন্টির জন্য মানানসই।  আবার কয়েকজন টেস্টের জন্য।  কিছু খেলোয়াড় আছে যারা টি-টোয়েন্টিতে পারফর্মের জন্য মুখিয়ে থাকে। আবার কয়েকজনের পছন্দ টেস্ট ক্রিকেট। আমি টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টি দলকে আলাদা করার চেষ্টা করবো অবশ্যই।’


ইন্দোর/ইয়াসিন/আমিনুল

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন