ঢাকা, সোমবার, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

বিপ্লবে মুগ্ধ, নাঈম স্পেশাল ট্যালেন্ট : ভেট্টোরি

কলকাতা থেকে ক্রীড়া প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১১-২১ ১০:৪৫:৩৭ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১১-২১ ৪:২৯:৫৪ পিএম

বাংলাদেশের স্পিন বোলিং পরামর্শক ড্যানিয়েল ভেট্টোরি নিজের কাজ দারুণ উপভোগ করছেন।

ছেলেদের নিয়ে ভালো সময় কাটাচ্ছেন প্রাক্তন কিউই অধিনায়ক। ভেট্টোরির অ্যাপয়েনমেন্ট পাওয়া বেশ কঠিন। বাংলাদেশে গিয়ে একবারও গণমাধ্যমে কথা বলেননি। ভারত সফরে তার সঙ্গে কথা বলতে চেয়েছিল গণমাধ্যম। কিন্তু রাজি হননি। আবার হুট করে কথাও বলেন না। একদিন আগে তাকে জানাতে হয়। তবে বুধবার তার কাছে মিডিয়া ম্যানেজার রাবীদ ইমাম অ্যাপ্রোচ করলে রাজি হয়ে যান। ইডেন বলেই হয়তো মন গলেছে ভেট্টোরির!

বছরে এক’শ দিন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সঙ্গে কাজ করবেন ভেট্টোরি। দৈনিক পারিশ্রমিক আড়াই হাজার ডলার। শুধু বাংলাদেশ কেন উপমহাদেশে এতো অর্থ ব্যয়ে স্পিন বোলিং কোচ নেয়নি কোনো দল। বাংলাদেশ সেই ‘বিলাসিতা’ দেখালেও ক্রিকেট সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন ভেট্টোরির থেকে পুরোটা নিতে পারলে ভালো ফল পাবেন স্পিনাররা। 

ভেট্টোরি বাংলাদেশে যোগ দেন গত ২৫ অক্টোবর। সেই থেকে নিয়মিত কাজ করছেন। শুরু থেকেই ভেট্টোরি কাজ করেছেন লেগ স্পিনার আমিনুল ইসলাম বিপ্লবকে নিয়ে। এছাড়া ভারত সফরের আগে মিরপুরের একাডেমি মাঠে তাইজুল, মিরাজ, রিশাদ হোসেন ও নাঈম হাসানদের নিয়ে কাজ করেছেন। ভারত সফরে তার অধীনে দীর্ঘ সময় কাটিয়েছেন বিপ্লব। সেই ফল বিপ্লব পেয়েছেন টি-টোয়েন্টি সিরিজে। ভারতের বিপক্ষে তিনটি ম্যাচেই বিপ্লবের বোলিং ছিল ঈর্ষণীয়। লেগ স্পিনার প্রশংসা কুড়িয়েছেন ভারতেরও।

এছাড়া টেস্ট সিরিজে নাঈম, মিরাজ ও তাইজুলদের নিয়ে নিয়মিত অনুশীলনে ঘাম ঝরাচ্ছেন। জানা গেছে, প্রত্যেকের সঙ্গে আলাদা আলাদা কাজ করছেন ভেট্টোরি। শুধু বোলিং নয়, ভেট্টোরি তাদের সঙ্গে আলোচনায় নিজের আন্তর্জাতিক অভিজ্ঞতা ভাগাভাগি করছেন। বাংলাদেশে ভালো সময় কাটাচ্ছেন, এমনটা নিজ থেকেই বলেছেন ভেট্টোরি। প্রথমবার গণমাধ্যমে কথা বলতে এসে অভিজ্ঞ এ কোচ প্রশংসা করেছেন বিপ্লব ও নাঈমের। শুধু তাদের নয়, ভেট্টোরি কথা বলেছেন স্পিন আক্রমণ নিয়ে। দেশে থাকা স্পিনারদের নিয়ে সামনে ভালো পরিকল্পনা আছে বোঝা গেল তার কন্ঠে।

‘আমি ওদের সঙ্গে কাজ করে বেশ উৎফুল্ল। আমি তাইজুল ও মিরাজকে নিয়ে এখন কাজ করছি। নাঈমের কথা বলব, স্পেশাল ট্যালেন্ট । আমি বিপ্লবকে পেয়ে মুগ্ধ। ও আমার সাথে টি-টোয়েন্টিতে কাজ করেছে। এছাড়া ঢাকায় বেশ কয়েকজনকে দেখেছি। এটা আমার জন্য বড় সুযোগ। আমি নিশ্চিত তাদের অনেকেই কঠোর পরিশ্রম করতে মুখিয়ে আছে। দেখে খুবই ভালো লাগছে, এক ঝাঁক ভালোমানের খেলোয়াড় আছে যারা ক্রিকেটকে মাথায় নিয়ে গড়ে উঠছে।’ – বলেছেন ভেট্টোরি।

অনুশীলনে স্পিনারদের বেশ সময় দিচ্ছেন ভেট্টোরি। ব্যাটসম্যানদের নিয়েও মাঝে কাজ করতে দেখা গেছে। নেটের পেছন থেকে ব্যাটিং ফলো করেছেন অনেকের। মাঠে তার উপস্থিতি অনেক বড় প্রভাব ফেলে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ইন্দোরে ম্যাচ উইকেটে অনুশীলন করাতে চেয়েছিলেন স্পিনারদের। কিন্তু মাঠের কিউরেটর অনুমতি দেননি। এ নিয়ে কিউরেটরকে ‘বকাঝকা’ করেছেন তিনি। সব মিলিয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে সময়টা ভেট্টোরি উপভোগ করছেন বেশ।


কলকাতা/ইয়াসিন/আমিনুল

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন