ঢাকা     সোমবার   ২২ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ৭ ১৪৩১

ইমতিয়াজ বর্ষণের ফ্যাশন ভাবনা

রাশিদা খাতুন || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:৫৫, ১৪ জুন ২০২৪   আপডেট: ১৪:১০, ১৪ জুন ২০২৪
ইমতিয়াজ বর্ষণের ফ্যাশন ভাবনা

ইমতিয়াজ বর্ষণ

ওয়েব সিরিজ, নাটক, টিভিসি এবং সিনেমায় নিয়মিত অভিনয় করে চলেছেন ইমতিয়াজ বর্ষণ। সমালোচক এবং দর্শক দুই মহলেই সমাদৃত তিনি। অভিনয়ে ইমতিয়াজের পরিমিতিবোধ স্পষ্ট— সৌন্দর্য এবং ফ্যাশন ভাবনাতেও তাই। রাইজিংবিডির সঙ্গে আলাপকালে এই অভিনেতা জানিয়েছেন তার ফ্যাশন ভাবনার নানা বিষয় আর ফিট থাকার রহস্য।

ইমতিয়াজ বর্ষণ জানান, নিজেকে ফিট করার জন্য ডায়েটের  একটি নিয়ম তিনি খুব খেয়াল করেন তাহলো অতিরিক্ত না খাওয়া। কোনো কারণে একবারে বা একমিলে একটু বেশি খেয়ে ফেললে পরের বেলায় খাবার খাওয়া থেকে রিবত থাকেন তিনি। প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে তিন থেকে চার গ্লাস পানি পান করেন। এরপর দশ মিনিট এক্সারসাইজ করেন। এরপরে ফ্রেশ হলে সকালের নাস্তা করেন। সারাদিন এনার্জেটিক থাকার জন্য সকালের নাস্তায় লাল আটার রুটি, ডিম পোজ আর সবজি খান তিনি।শুটিং থাক না থাক সকালেই গোসল করেন বর্ষণ। এ ছাড়া নাকি ফ্রেশ লাগে না তার। মুখের ত্বক ভালো রাখার জন্য সকালে এবং রাতে বাসায় ফিরে ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ভালোভাবে ধুয়ে নেন তিনি। রাতে ঘুমানোর আগে এবং ঘর থেকে বের হওয়ার আগে অবশ্যই ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করেন ইমতিয়াজ বর্ষণ। 

ইমতিয়াজ বর্ষণ বলেন, রোদে বের হওয়ার আগে সানব্লক বা সানস্ক্রিন ব্যবহার করি। এবং একটি সানব্লক অবশ্যই সঙ্গে রাখি। যেহেতু দুই তিন ঘণ্টা পর পর সনব্লকগুলো তার কার্যকারিতা হারিয়ে ফেলে। তাই এটি বার বার ব্যবহার করার প্রয়োজন পড়ে। 

রোদে বের হওয়ার সময় অবশ্যই চোখে সানগ্লাস এবং মাথায় একটি ক্যাপ পরেন তিনি। এই হলো তার পুরনো এক অভ্যাস— এমনটাই জানান ইমতিয়াজ বর্ষণ। ঢিলেঢালা পোশাকে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন ইমতিয়াজ। সম্প্রতি নাকি ঢিলেঢালা কার্গো এবং টি শার্ট পরতেই বেশি পছন্দ করছেন তিনি। আর হ্যাঁ, রং বাছাইয়ের ক্ষেত্রে কোনটা ছেলেদের পোশাকের রং আর কোনটা মেয়েদের পোশাকের রং; এমন চিন্তা নাকি তার মাথায় থাকে না। 

ইমতিয়াজ বলেন, কালার বাছাইয়ের ক্ষেত্রে আমি জেন্ডার বায়াসড না। ধরুন আমার গাঢ় কোনো রংয়ের শার্ট পছন্দ হলো, সেটা পরতে আমি মোটেও দ্বিধা করি না।

সম্প্রতি ওয়েব সিরিজ ‘গোলাম মামুন’ এর শুট করেছেন এই অভিনেতা। তিনি জানান, ৪২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে এই সিরিজের শুটিং করতে হয়েছে। আমি মনে করি অনেক চাপ নেওয়ার পরে যেটা দরকার হয় সেটা হচ্ছে রিফ্রেশমেন্ট। এর জন্য যেটা করেছি অনেকদিন পর্যন্ত বাসা থেকেই বের হইনি। সত্য কথা বলতে শরীরকে পুরোপুরি বিশ্রাম দিয়েছি।

সুগন্ধিপ্রেমী ইমতিয়াজ বর্ষণ। পারফিউম বা বডিস্প্রে সিলেক্ট করার ক্ষেত্রে খুব হালকা ঘ্রাণের প্রোডাক্ট প্রাধান্য দেন।

ঘড়ি ব্যবহার করতে ভালোবাসেন ইমতিয়াজ। তিনি বলেন, নিয়মিত ঘড়ি ব্যবহার করা আমার পুরনো অভ্যাস। ট্রেন্ডের ওপর ডিপেন্ড করে কখন কোন ঘড়ি পরবো। ঘড়ির বাছাইয়ের ক্ষেত্রে আমি খুব চুজি। আমি সাধারণত মাঝারি ডায়ালের ঘড়ি পছন্দ করি। এবং স্পোর্স ঘড়ি পছন্দ করি। মাল্টিপল ফাংশন যেগুলোতে থাকে সেই ধরনের ঘড়ি আমার বেশি পছন্দ।

ভালো থাকার জন্য কী করেন? এই প্রশ্নের জবাবে ইমতিয়াজ বর্ষণ বলেন, গান আমাকে অনেক ‘চার্জ আপ’ করে ‘বুস্ট আপ’ করে। খারাপ সময়ে গান শুনি ভালো সময়েও গান শুনি। ভালো সময়ে গান শুনলে ওই সময়টা আরও বেশি উপভোগ্য হয়ে ওঠে।

তিনি আরও বলেন, কিছু কষ্ট বয়ে নিয়ে যেতে ভালো লাগে। যেমন বাবাকে হারানোর শোক। এমন কিছু শোক আমাদের থাকে যা আমাদের খারাপ অনেক কিছু করা থেকে বিরত রাখে। জীবন সম্পর্কে গভীর বোধ দেয়। ভালো রাখতে সহায়তা করে। এমন কষ্ট ভুলে থাকাও কষ্টকর। এই শোকগুলো সারা জীবনের। তবে ছোট খাটো যেসব কষ্ট— যেগুলো হতাশ করে, বিষণ্ন করে সেগুলো ভুলে যাই খুব তাড়াতাড়ি। এভাবে নিজেকে ভালো রাখি।

ইমতিয়াজ বর্ষণ ঈদের দিন পাঞ্জাবি পরতে পছন্দ করেন। তিনি জানালেন এবার কোরবানি ঈদেও তার ব্যতিক্রম হবে না। ঈদে চট্টগ্রামে থাকবেন তিনি। ঈদের আনন্দ ভাগ করে নেবেন মায়ের সঙ্গে।

/লিপি

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়