Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ২৮ নভেম্বর ২০২১ ||  অগ্রহায়ণ ১৪ ১৪২৮ ||  ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

বোলিংয়ের চেয়ে ব্যাটিং নিয়ে বেশি কাজ করছি: সাইফউদ্দিন

সাইফুল ইসলাম রিয়াদ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৩০, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১   আপডেট: ১৬:৫৩, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১
বোলিংয়ের চেয়ে ব্যাটিং নিয়ে বেশি কাজ করছি: সাইফউদ্দিন

সন্ধ্যাবেলায় মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনকে পাওয়া যাচ্ছিল না মুঠোফোনে। বেশ কয়েকবার চেষ্টার পর ফোন ধরে কাতর কণ্ঠে বললেন ভাই, এখন ঘুমাচ্ছি। পরে কথা হবে। সন্ধ্যায় কেউ ঘুমায়? মধ্যরাতে এই ধাঁধা খোলাসা করলেন সাইফউদ্দিন নিজেই, জানালেন জিম-ফিটনেস অনুশীলন করে বেশ ক্লান্ত থাকায় ঘুমিয়ে পড়েছিলেন। দুয়ারে কড়া নাড়ছে বিশ্বকাপ, তাই বলে ছুটির দিনগুলিতেও রয়ে সয়ে না কাটিয়ে, পরিবারের সঙ্গে থেকেও তাদের সময় না দিয়ে এত অনুশীলন!

সবশেষ সিরিজে সাইফউদ্দিনের কেটেছে দুর্দান্ত। নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে চার ম্যাচে সুযোগ পেয়ে দারুণ বোলিং করেছেন। এর আগে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এক ম্যাচেই একাদাশে জায়গা পেয়ে মাত্র ১২ রান দিয়ে নেন ৩ উইকেট। বল হাতে সাবলীল দেখালেও ব্যাট হাতে ছিলেন ছায়া হয়ে। বোলিংয়ের মতো তার ব্যাটের দিকেও যে তাকিয়ে থাকবে বাংলাদেশ। বিশ্বকাপকে কেন্দ্র করে কী করছেন এই অলরাউন্ডার? কী ভাবছেন নিজের বোলিং ব্যাটিং নিয়ে? ছুটির দিনগুলিতেও কেন ঘাম ঝরাচ্ছেন?   

রাইজিংবিডির ক্রীড়া প্রতিবেদক সাইফুল ইসলাম রিয়াদের সঙ্গে বিশেষ সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন তার প্রস্তুতি, পরিকল্পনাসহ সবকিছু। পাঠকদের জন্য তা হুবুহু তুলে ধরা হলো।  

ঘনিয়ে আসছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। শেষ প্রস্তুতি কেমন হচ্ছে?

সাইফউদ্দিন: সত্যি বলতে ফিটনেস নিয়ে বেশি কাজ করছি। তারপর স্কিল ট্রেনিং, দুবাই কন্ডিশন আমার অচেনা আমি জানি না কেমন হবে। তাই মূলত প্রস্তুতিটা ওখান থেকেই শুরু হবে। ১৫দিন সময় পাব ওমানে ক্যাম্প করার জন্য, আর এখানে এখন ব্যক্তিগতভাবে প্রাইমারি স্কিলগুলো নিয়ে কাজ করছি।

আপনি এর আগে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপ খেলেছেন, এবার প্রথম টি-টোয়েন্টি খেলতে যাচ্ছেন। এখানে দ্রুত মানিয়ে চ্যালেঞ্জ নিতে হয়। সেটির জন্য কতটুকু প্রস্তুত?

সাইফউদ্দিন: অবশ্যই প্রস্তুতি নিচ্ছি। কষ্ট তো করে যাচ্ছি, পাশাপাশি বিভিন্ন খেলা হচ্ছে, আইপিএলের প্রত্যেকটা খেলা দেখছি, সময় না পেলে হাইলাইটস দেখছি। যেহেতু আমাদের টিমের সিনিয়ররা আছেন তাদের সঙ্গে কথা বলছি। যারা ভাল বোলিং করছে তাদের বোলিং দেখছি। কোথায় বোলিং করে, কোন জায়গায় করে, আসলে ওভাবে দেখে প্রস্তুতি নেওয়া আর কী!

অনেকেই পরিবারের সঙ্গে ছুটি কাটাচ্ছে। আপনি এ সময়ও অনুশীলন নিয়ে ব্যস্ত। বিশ্বকাপ বলে বাড়তি তাড়না?

সাইফউদ্দিন: একজন পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে এটা আমার কর্তব্য। আত্মবিশ্বাসী হয়ে বসে থাকার তো সুযোগ নেই, এখন আমাদের সব জায়গায় প্রতিযোগিতা। এখানে টিকে থাকতে হলে কঠোর পরিশ্রম করে যেতে হবে, এটার ওপরই নির্ভর করে অনেক কিছু। আমি ফেনী এলে আমাদের কোচ যারা আছেন, উনারা আমাকে ব্যাটিং করান, নানা বিষয় দেখিয়ে দেন। কোন ভুল-ত্রুটি চোখে পড়লে বলে দেন। আমাদের জেলা টিমের কোচ বা যারা আছেন উনাদের সঙ্গে নিয়মিত কথা হচ্ছে, কাজ করা হচ্ছে।

সবশেষ সিরিজে আপনি দারুণ ফর্মে ছিলেন। বিশ্বকাপে কতটুক কাজে দেবে? 

সাইফউদ্দিন: দেখেন, আসলে গতকাল কী হয়েছে সেটা আমি মনে করতে চাই না। প্রত্যেকটা দিন প্রত্যেকটা ম্যাচ নতুনভাবে শুরু করতে হয় নিজেকে। আমি এভাবে চিন্তা করি। আমার যেটা আগে চলে গেল সেটা নিয়ে চিন্তা করি না, হয়তো বা ওটা থেকে বাড়তি আত্মবিশ্বাস পাই। তবে আমি কিভাবে ভালো খেলব কিভাবে আরো উন্নতি করব নিজেকে আরও ছাড়িয়ে যাব এসব নিয়ে আমার সব সময় ভাবনা থাকে, চেষ্টা থাকে।

বল হাতে আপনি আলো ছড়ালেও ব্যাট হাতে ছিলেন ছায়া হয়ে। বাটিং নিয়ে কোনো ভাবনা আছে কি?

সাইফউদ্দিন: সত্যি বলতে এখন বোলিংয়ের চেয়ে ব্যাটিংটা নিয়ে আসলে বেশি কাজ করছি। ব্যাটিংটা বেশি সময় দিচ্ছি। যেহেতু আমি বর্তমানে যে পজিশনে ব্যাটিংয়ে নামি ৫-৬ বল পাব, এখানে আমাকে প্রত্যকটা বল খেলতে হবে, মারতে হবে। আসলে ওই প্রস্তুতিটাই আমি নিচ্ছি, যাতে করে ৫ বলে ১০-১২রান করা যায়, ওভাবে অনুশীলন করে যাচ্ছি।

বোলিংয়ে কোনো নতুনত্ব!

সাইফউদ্দিন: স্বাভাবিকভাবে স্লোয়ার-কাটার এসব বল আমি আগেও করতাম। জিম্বাবুয়েতেও আমি করেছি কিন্তু ওখানে আমি সফল হইনি। বাংলাদেশে সফল হয়েছি। এর আগেও করেছি সফল হইনি এখন হয়েছি, কিন্তু সামনে হব কি না জানি না।

ওমান-আরব আমিরাতের কন্ডিশনে আপনাকে মোস্তাফিজুর রহমানের সঙ্গে দেখা যেতে পারে মূল পেসার হিসেবে। সেটি নিয়ে কোনো চাপ আছে?

সাইফউদ্দিন:  এখানে চাপ নেওয়ার কিছু নেই। স্বাভাবিকভাবে জাতীয় দলে যেমন খেলি তেমন ভাবনা নিয়ে মাঠে নামব। তো চাপ নিয়ে আসলে তো কিছু করা যাবে না। আমি আমার বোলিংটা করে যাব। এটা নিয়ে আমি বাড়তি কিছু ভাবছি না। সময়ই বলে দেবে।

অস্ট্রেলিয়া-নিউ জিল্যান্ডকে উড়িয়ে বাছাইপর্ব খেলতে হবে ওমান-পাপুয়া নিউ গিনির মতো অপেক্ষাকৃত ছোট দলের বিপক্ষে। বাংলাদেশের জন্য সুবিধা হলো? 

সাইফউদ্দিন:  আমরা প্রতিটা ম্যাচেই জয়ের জন্যই খেলব। সেটা ১০০ রানে হোক আর যাই হোক। জয়টা আমাদের মুখ্য উদ্দেশ্য। আর এখন ছোট বলে ক্রিকেটে কিছু নেই। কারণ দিন যার ভালো যাবে সেই জিতবে। প্রত্যেকটা টিমই টি-টোয়েন্টিতে কঠিন প্রতিপক্ষ, এখানে ছোট-বড় সহজ-সরল ভাবার কিছু নেই। যে ভালো খেলবে সে জিতবে। আমরা জয়ের লক্ষ্যেই লড়ব।

ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে যদি বলি, কাদের বিপক্ষে লড়াইয়ের জন্য মুখিয়ে আছেন?

সাইফউদ্দিন: কঠিন একটা প্রশ্ন (হাসি)। দুই দলকেই চাই।

শেষ প্রশ্ন। বিশ্বকাপে বাংলাদেশকে কোথায় দেখতে চান?

সাইফউদ্দিন: এটা আসলে একমাত্র আল্লাহ ছাড়া কেউ বলতে পারবে না। ক্রিকেট আসলে অনিশ্চয়তার খেলা। আমরা আমাদের খেলাটা খেলে যাব। সাধ্যমতো সর্বোচ্চটুকু দিয়ে চেষ্টা করে যাব। এরপর দেখা যাবে কী হয়।

ঢাকা/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়