ঢাকা     সোমবার   ২৮ নভেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ১৪ ১৪২৯ ||  ০৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

সরাসরি জাতীয় দলে নয়, বিজয়কে আশপাশে রাখার পরামর্শ মাশরাফির

ক্রীড়া প্রতিবেদক  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:৩৯, ২১ এপ্রিল ২০২২   আপডেট: ২১:১৪, ২১ এপ্রিল ২০২২
সরাসরি জাতীয় দলে নয়, বিজয়কে আশপাশে রাখার পরামর্শ মাশরাফির

টার্নিং উইকেট, স্লো উইকেট কিংবা যে কোনো কঠিন উইকেট; এনামুল হক বিজয়কে যেন থামানো দুষ্কর। চলমান ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে (ডিপিএল) বিজয় ব্যাট হাতে ছোটাচ্ছেন রানের ফোয়ারা। তাতে মুগ্ধ লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) সুপার লিগের ম্যাচে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে খেলা বিজয়ই যে বেশ ভুগিয়েছেন মাশরাফিদের।

ম্যাচ শেষে মাশরাফি অবলীলায় প্রশংসা করেছেন এক সময়ের সতীর্থ বিজয়ের। ডিপিএলে বিজয়ের অবিশ্বাস্য ধারাবাহিক পারফর্ম্যান্স মনে ধরেছে জাতীয় দলের সাবেক সফল অধিনায়কের।

তবে এ জন্য বিজয়কে সরাসরি জাতীয় দলে নেওয়ার পক্ষে নন মাশরাফি। পরামর্শ দিয়েছেন, জাতীয় দলের আশপাশে রাখার জন্য।

মাশরাফির ভাষ্য, সেখানে পারফর্ম করে নিজেকে প্রমাণ করতে পারলে তবে জাতীয় দলের দরজা খুলুক তার জন্য।

তিনি বলেন, ‘এখান থেকে সরাসরি জাতীয় দল কেনো? এখান থেকেও তো আরেকটা ধাপ থাকে। এরপরও কিন্তু আরেকটা লেভেল আছে। এইচপি, এ টিম। কারণ ওই লেভেলটাও তো দেখতে হবে। ওই লেভেলে গিয়ে কেমন করছে। আমি মনে করি, এখান থেকে রাডারের নিচে নিয়ে আসা উচিত।’

লিস্ট ‘এ’র মর্যাদা পাওয়ার পর থেকে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে এক মৌসুমে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড গড়েছেন বিজয়। ১২ ম্যাচে তার রান ৮৭৮। ২টি সেঞ্চুরি ও ৭টি হাফ সেঞ্চুরি। এনামুল পেছনে ফেলেছেন সাইফ হাসানকে, ২০১৮-১৯ মৌসুমে যিনি প্রাইম দোলেশ্বরের হয়ে ১৬ ম্যাচে ৬২.৬১ গড়ে রান করেছিলেন ৮১৪।

৮০৫ রান নিয়ে বৃহস্পতিবার লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিলেন এনামুল। শীর্ষে উঠতে ১০ রান প্রয়োজন ছিল তার। শেষ পর্যন্ত থামেন ৭৮ রান করে। বিজয়ের গড় রান ৭৩.১৬ ও স্ট্রাইক রেট ৯৫.৫৩।

বিজয়ের প্রশংসা করে মাশরাফি বলেন, ‘টার্নিং উইকেট, স্লো উইকেট যে কোনো উইকেটে সে কিন্তু ডোমিনেট করে রান করেছে, আমি যতটুক খেলা দেখেছি। আজকেও। যে কোনো পর্যায়ে এটি ব্যতিক্রমী ব্যাটিং। আমাদের ডমিস্ট্রিক ক্রিকেট লেভেল কিন্তু বিশেষ করে ডিপিএল অনেক উঁচুমানের। তাই মনে করি, এখানে বিজয় যেভাবে অথোরিটি নিয়ে ব্যাটিং করেছে, একটা দলকে যেভাবে টেনে এনেছে ৮০০+ রান করেছে। নিশ্চিতভাবে তাকে এখুনি জাতীয় দলের আশপাশে নিয়ে আসা উচিত এবং তাকে নিয়ে কাজ করা উচিত।’

‘সামনে টি-২০ বিশ্বকাপ। ওর বিশ্বকাপ খেলার অভিজ্ঞতা আছে। ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেছে, ওর সেঞ্চুরি আছে ফিফটি আছে। ওকে এখনি লুকআপটার করা উচিত। যদি কোনো বিষয় থাকে স্পষ্ট করা উচিত’- আরো যোগ করেন মাশরাফি।

জাতীয় দলের জার্সিতে বিজয় সর্বশেষ ওয়ানডে খেলেছেন ২০১৯ সালের জুলাইয়ে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। এ ছাড়া সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি খেলেছেন ২০১৫ সালে আর টেস্ট ২০১৩ সালে।

রিয়াদ/কেআই

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়