ঢাকা     বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ১৬ ১৪২৯ ||  ০৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

‘বিসিসিআইয়ের উচিত ভারতীয়দের জন্য বিপিএল উন্মুক্ত করে দেওয়া’

সাইফুল ইসলাম রিয়াদ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:০৪, ২৯ এপ্রিল ২০২২   আপডেট: ২৩:২৫, ২৯ এপ্রিল ২০২২
‘বিসিসিআইয়ের উচিত ভারতীয়দের জন্য বিপিএল উন্মুক্ত করে দেওয়া’

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের এই আসরে বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে নজর কেড়েছেন পারভেজ রসুল। ভারতের এই বোলিং অলরাউন্ডার খেলেছেন শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের হয়ে। দলকে চ্যাম্পিয়ন করানোর পথে ব্যাটে-বলে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রেখেছেন ৩৩ বছর বয়সী ক্রিকেটার। ১৫ ম্যাচে দুই হাফ সেঞ্চুরিতে মোট রান ২৯০ এবং বোলিংয়ে দ্বিতীয় সেরা ২৮ উইকেট। ভারতের জার্সিতে একটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলা এই ডানহাতি অফস্পিনার দেড় মাস ধরে বাংলাদেশের ক্রিকেট আবহ কতটা উপভোগ করেছেন, কেমন সময় কাটল- এক আলাপচারিতায় তা জানালেন রাইজিংবিডিকে-

ঢাকা লিগ কেমন গেল? 

পারভেজ রসুল: প্রথমত আমি সৃষ্টিকর্তাকে ধন্যবাদ দিতে চাই। দল এবং আমার জন্য এটি দারুণ একটি টুর্নামেন্ট ছিল। চ্যাম্পিয়ন হয়ে শেষ করতে পেরেছি, এটি খুবই দারুণ ব্যাপার। অনেক ভালো লাগছে চ্যাম্পিয়ন হতে পেরে। আমরা পুরো টুর্নামেন্ট কর্তৃত্ব দেখিয়ে খেলেছি। ১৫টি ম্যাচের মধ্যে ১২টিতেই জিতেছি।

আপনার দল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। আপনি দারুণ বোলিং করেছেন…

পারভেজ রসুল: আমি দলের জন্য অবদান রাখতে পেরেছি বলে গর্বিত। আমি চেয়েছি প্রতিটি ম্যাচে অবদান রাখতে, একজন পেশাদার ক্রিকেটার যেটা চায়। ব্যাট-বল দুটোতেই অবদান রাখতে চেয়েছিলাম। ২৮ উইকেট নিয়ে শেষ করেছি, দলকে চ্যাম্পিয়ন করতে অবদান রাখতে পেরেছি, এটি দারুণ স্বস্তির বিষয়।

উইকেট থেকে স্পিনাররা বাড়তি সহায়তা পেয়েছে কী?

পারভেজ রসুল: আমি মনে করি না সবগুলোই টার্নিং উইকেট ছিল। আমার মনে হয় একটা উইকেট টার্নিং ছিল, সেটা ইউল্যাবের উইকেট। মিরপুরের উইকেটে কিছুটা বাউন্স ছিল, বল নিচু হয়ে আসতো। বাউন্সটাই এখানে কার্যকর মনে হয়েছে। বিকেএসপির উইকেট খুবই ফ্ল্যাট। এখানে বোলারদের জন্য কিছুই নেই।

ইমরুল কায়েসের নেতৃত্ব কেমন ছিল?

পারভেজ রসুল: ইমরুল কায়েস অবশ্যই ভালো অধিনায়ক। আমার মনে হয় সে ভাগ্যবান। সে কিছুদিন আগে বিপিএল ট্রফি জিতেছে, আর এই মাত্র ডিপিএল। ব্যাট হাতে হয়তো তার কিছুটা খারাপ সময় যাচ্ছে, রান কম হচ্ছে কিন্তু অধিনায়ক হিসেবে সে দারুণ।

আপনার দলের কোনো বাংলাদেশির খেলা আপনার চোখে লেগেছে?

পারভেজ রসুল: এর আগেও কয়েকটি সাক্ষাৎকারে আমি কয়েকজনের কথা বলেছি। তাদের মধ্যে একজন নুরুল হাসান সোহান। যেভাবে সে খেলা শেষ করে আসে তা দুর্দান্ত। যেভাবে সে চাপের মুহূর্তে খেলে এটি বাংলাদেশ ক্রিকেটকে ভবিষ্যতে সাহায্য করবে।

আপনার ফোকাস কিসে থাকবে এখন?

পারভেজ রসুল: যখন যেখানেই আমি খেলার সুযোগ পাব, সেখানে পারফর্ম করতে চাইব। এটাই এখন আমার মূল লক্ষ্য। আমি আমার শতভাগ দেব। পারফর্ম করা ছাড়া আসলে আমার হাতে কোনো কিছু নেই। বাকিটা অন্য বিষয়, আমি আমার কাজ করে যাব।

জাতীয় দলে ফেরা নিয়ে…

পারভেজ রসুল: মাত্রই আমি বলেছি। আমার হাতে শুধু আছে পারফরম্যান্স এবং প্ররিশ্রম। এ ছাড়া আমার হাতে কোনো কিছু নেই। যেখানেই আমি সুযোগ পাব আমি পারফর্ম করে যাওয়ার চেষ্টা করব। নিজেকে এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করব। আমার হাতে শুধু এটার নিয়ন্ত্রণই আছে। দল নির্বাচনে আমাদের কোনো হাত নেই। এটা নির্বাচকদের হাতে।

সেক্ষেত্রে ঢাকা লিগের পারফরম্যান্স বিবেচিত হবে কি?

পারভেজ রসুল: আমি মনে করি এসব পারফরম্যান্স ধরা উচিত। এটা খুবই প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্ট। অনেক আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার এখানে খেলেন। এটা কোনো বয়সভিত্তিক কিংবা স্থানীয় কোনো টুর্নামেন্ট না। এই টুর্নামেন্টের আলাদা একটা ঐতিহ্য, সুনাম রয়েছে বাংলাদেশে। আমি জানি না নির্বাচকরা কেমন পারফরম্যান্সের দিকে তাকিয়ে আছেন। কিন্তু আমি আমার পারফরম্যান্স নিয়ে খুশি। আমি আমার সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করছি।

ভারতীয় ক্রিকেটারদের বিপিএল খেলার অনুমতি নেই। আপনার কী মনে হয় অনুমোদন দেওয়া উচিত?

পারভেজ রসুল: সবাই সবজায়গাতেই খেলতে চায়। আমি মনে করি চুক্তিবদ্ধ থাকা ৩০ ক্রিকেটারকে বিসিসিআই অনুমতি না দিতে পারে। বাকিদের জন্য সব উন্মুক্ত করে দেওয়া উচিত। কারো যদি যোগ্যতা থাকে, তাহলে সে অবশ্যই বাইরে খেলতে পারবে। এটা ক্রিকেটারের জন্যই ভালো হবে।

আপনার কাছে বিষয়টা কি অর্থের নাকি সুযোগের?

পারভেজ রসুল: অবশ্যই, আমার কাছে বিষয়টা অর্থের নয়, সুযোগের। কারণ এগুলো সরাসরি দেখানো হয়, তাদের পারফরম্যান্সগুলো হিসাব করা যাবে।

ঢাকা/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়