ঢাকা     বুধবার   ২২ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ৮ ১৪৩১

মোস্তাফিজ চোখ বন্ধ করেও অফ পেস ডেলিভারি করতে পারবে: ডোনাল্ড

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:২৫, ১২ এপ্রিল ২০২৪   আপডেট: ১৯:৫৩, ১২ এপ্রিল ২০২৪
মোস্তাফিজ চোখ বন্ধ করেও অফ পেস ডেলিভারি করতে পারবে: ডোনাল্ড

চেন্নাই সুপার কিংসের জার্সিতে দুর্দান্ত পারফর্ম করা মোস্তাফিজুর রহমানকে দেখে দারুণ উচ্ছ্বসিত সাবেক পেস বোলিং কোচ অ্যালান ডোনাল্ড। স্টক বোলিংয়ে মোস্তাফিজ সময়টা উপভোগ করছে দেখে বাড়তি আনন্দ কাজ করছেন ডোনাল্ডের। বাংলাদেশে থাকাকালীন স্টক বোলিং এবং সুইং নিয়ে মোস্তাফিজের সঙ্গে বাড়তি করা হয়েছে তার। আইপিএলের মঞ্চে তার পুরোনো শিষ্য সেরা ছন্দে আছে বলেই বিশ্বাস করেন। 

শেষ দুই বছরে মোস্তাফিজের জাতীয় দলের পারম্যান্স তেমন ধারালো নয়। গড়পড়তা পারফরম্যান্সে অনেকটাই আড়ালে চলে গিয়েছেন। তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম, হাসান মাহমুদ ও ইবাদত হোসেনরা যতটা উন্নতি করেছেন মোস্তাফিজ তেমনটা পারেন। বরং পেস ব্রিগেডের মধ্যে তাকেই মূল্যয়ন কম করা হচ্ছিল। এজন্য জাতীয় দল থেকে জায়গা হারানোর ঘটনাও রয়েছে। অটোমেটিক চয়েজ হিসেবে লম্বা সময় থাকলে চন্ডিকা হাথুরুসিংহে দায়িত্ব নেওয়ার পর দল থেকে বাদও পড়েছেন বাঁহাতি পেসার। পারফরম্যান্সের কারণেই এমনটা ঘটেছে।

তবে এবারের আইপিএলে তার দ্যুতিময় পারফরম্যান্সে মুগ্ধ সবাই। নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে টি-টোয়েন্টির চাহিদা পূরণ করছেন। নিয়মিত উইকেট পাচ্ছেন। বৈচিত্র্যপূর্ণ বোলিংয়ে ব্যাটসম্যানদের কোনো সুযোগই দিচ্ছেন না। ৪ ইনিংসে ৯ উইকেট নিয়ে বিদেশী ক্রিকেটারদের মধ্যে সেরা সাফল্য তারই। ইমপ্যাক্টফুল পারফরম্যান্সেও মোস্তাফিজ সবার চেয়ে এগিয়ে। 

ডোনাল্ডের মধ্যে মোস্তাফিজ সেরা ছন্দে আছেন। তাই নিজের সময়টাও উপভোগ করছেন। তার থেকে এমন পারফর‌ম্যান্সে মোটাও অবাক নন তিনি। ক্রিকবাজকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ডোনাল্ড বলেছেন, ‘বোলিং দেখে মনে হচ্ছে মোস্তাফিজ তার স্টক ডেলিভারীতে আত্মবিশ্বাস ফিরে পেয়েছে। বোলিংয়ে শুধু তার গতিই নয়, বৈচিত্র্যেও ভালো করছে। ছন্দের দিক থেকে বলবো সেরা সময় কাটাচ্ছে। বেশ নিয়ন্ত্রিত লাগছে। সঙ্গে যোগ করতে চাই, বেশ সতেজ মনে হচ্ছে এবং নিজের ক্রিকেট উপভোগ করছে। নতুন বলে শুরু থেকে ছন্দ পাচ্ছে। বল ভেতরে নিতে পারছে আবার বাইরেও টেনে নিচ্ছে। এখন যেটা ও করছে সেটা সব সময় চাহিদা ছিল। তাই আমাকে বাংলাদেশে থাকাকালীন সময়ে জিজ্ঞেস করা হতো, ওর কি হয়েছে?’

মোস্তাফিজের বোলিংয়ের পরিবর্তনও ডোনাল্ডের চোখে ধরা পড়েছে, ‘স্টক বোলিংয়ে তার আত্মবিশ্বাস কমে গিয়েছিল। সঙ্গে ডানহাতি ও বামহাতি ব্যাটসম্যানদের জন্য তার যে সহজাত সুইং তাও ধার হারাচ্ছিল। আত্মবিশ্বাস তখনই পাওয়া যায় যখন বল সুইং করিয়ে ব্যাটসম্যানকে খেলতে বাধ্য করা হয়। আমি তাকে সেটাই করানোর চেষ্টা করেছিলাম। তার স্লোয়ার ও অফ স্পিচ বল সব সময়ই কঠিন ছিল। তবে এখন সব বল কার্যকর হচ্ছে। এর পেছনে বলতে পারি তার গতি প্রভাব রাখছে।’ 

বাংলাদেশে কাজ করাকালে মোস্তাফিজের সঙ্গে গতি ও সুইং নিয়ে কাজ করার কথা জানিয়ে ডোনাল্ড যোগ করেন, ‘মোস্তাফিজ যখন ভালো বোলিং করে তখন তার গতি ঠিক থাকে এবং বল দেরিতে সুইং করে। বিশ্বকাপে কিছুটা দেখাতে শুরু করেছিল কিন্তু ধারাবাহিকতা থাকেনি। কখনো না কখনো এটা হতে পারে। ট্রেনিংয়ে যখন এটা হওয়া শুরু করলো তখন আমি ও ফিজ এটা নিয়ে আরো কাজ করা শুরু করেছিলাম। আমরা স্লোয়ার বলে বাড়তি নিয়ন্ত্রণ রাখার কাজ করেছিলাম। এখন যেভাবে বোলিং করছে ঠিক সেটাই আমরা করছিলাম। তাকে দেখে মনে হচ্ছে খুব আত্মবিশ্বাস পেয়েছে চেন্নাই সুপার কিংসের তাঁবুতে। তাকে দেখে ভালো লাগছে।’ 

‘ফিজের মতো বোলাররা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে যেটা করে, তারা ৭০-৭৫ ভাগ সময় বল মিক্স করার চেষ্টায় থাকে। এতে করে যেটা হয় তারা স্টক ডেলিভারিটা হারিয়ে ফেলেন। এটা কিছু সময় হয়ে যায়। যেমন আমি ব্রডের কথা বলতে পারব। বলে বৈচিত্র্য আনতে গিয়ে এই ফরম্যাটে স্টক ডেলিভারীর সামর্থ্যটা অনেক সময় হারিয়ে যায়। সেজন্য আমরা যখন কাজ করেছি সব সময় স্টক ডেলিভারিটা নিয়ে কাজ করেছি।’ – যোগ করেন তিনি। 

সামনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। মোস্তাফিজের জন্য আদর্শ সময় জাতীয় দলে নিজের জায়গা ফিরে পাওয়ার। যুক্তরাষ্ট্র ও ওয়েস্ট ইন্ডিজে ভালো ফল পেতে শুধু স্লোয়ার নয় স্টক ডেলিভারী ও গতির ওপর ভরসা রাখতে বলেন ডোনাল্ড।

‘আমি মনে করি সে চোখ বন্ধ করেও অফ পেস ডেলিভারী করতে পারবে। এভাবেই সে নিজেকে তৈরি করেছে। এবং তার শরীর এবং ব্রেইন সেভাবেই প্রতিবার কাজ করে। বাংলাদেশে কাজ করার সময় চেষ্টা করেছি এবং শক্তও হয়েছি সে যেন সুইং ডেলিভারী অনুশীলন যেন না করে। এবং আমরা তার রিস্ট ও রিলিজ ইস্যু নিউ জিল্যান্ডে থাকাকালীন নির্ণয় করতে পেরেছিলাম।’

‘তার স্লোয়ার বল পাশ থেকে বেরিয়ে আসছিল সামনে থেকে নেয়। এই ভুল করে কতদূর যেতে পারবে সেটা নিয়ে আলোচনা ছিল। সামনের যুক্তরাষ্ট্র ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিশ্বকাপের জন্য তাকে মনে করিয়ে দেওয়া উচিত ওখানে পেস কমিয়ে খুব বেশি সফলতা আসবে না। বরং পেস রেখে বলে লেট মুভমেন্ট করিয়ে তার বোলিং করতে হবে। শুধুমাত্র ভাবনায় যদি কাটার, স্লোয়ার থাকে তাহলে…কি বলতে চাচ্ছি বুঝতে পারছেন।’ – বলেছেন ডোনাল্ড। 

ঢাকা/ইয়াসিন 

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়