ঢাকা     শুক্রবার   ৩১ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ১৭ ১৪৩১

সিঙ্গাপুর থেকে ২ কার্গো এলএনজি কিনবে সরকার

বিশেষ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:০০, ২৫ এপ্রিল ২০২৪  
সিঙ্গাপুর থেকে ২ কার্গো এলএনজি কিনবে সরকার

সিঙ্গাপুরের দুটি প্রতিষ্ঠান থেকে দুই কার্গো তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এর মধ্যে সিঙ্গাপুরের ভিটল এশিয়া প্রাইভেট লিমিটেড থেকে এক কার্গো এবং গানভর প্রাইভেট লিমিটেড থেকে এক কার্গো এলএনজি কেনা হবে। এতে মোট খরচ হবে ৯৩৩ কোটি ৯৪ লাখ ৬ হাজার ৮৭৬ টাকা।

এই এলএনজি আমদানির অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের সভাপতিত্বে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সমন্বয় ও সংস্কার সচিব মো. মাহমুদুল হোসাইন খান জানান, বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দ্রুত সরবরাহ বৃদ্ধি (বিশেষ বিধান) (সংশোধন) আইন-২০২১ এর আওতায় স্পট মার্কেট থেকে এলএনজি আমদানির প্রত্যাশা অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে সিঙ্গাপুরের গানভর প্রাইভেট লিমিটেড থেকে এক কার্গো এলএনজি আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রতি এমএমবিটিইউ ১০.৮৬৩৭ মার্কিন ডলার হিসেবে মোট ৩৩ লাখ ৬০ হাজার এমএমবিটিইউ এলএনজি আমদানিতে ৪৬৯ কোটি ৭৮ লাখ ১১ হাজার ৫১৮ টাকা ব্যয় হবে। প্রতি এমএমবিটিইউ’র আগের ক্রয় মূল্য ছিল ৯.৪৯৬৫ মার্কিন ডলার।

জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের আর এক প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে সিঙ্গাপুরের ভিটল এশিয়া প্রাইভেট লিমিটেড থেকে এক কার্গো এলএনজি আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রতি এমএমবিটিইউ ১০.৭৩৩৭ মার্কিন ডলার হিসেবে ৩৩ লাখ ৬০ হাজার এমএমবিটিইউ এলএনজি আমদানিতে মোট ব্যয় হবে ৪৬৪ কোটি ১৫ লাখ ৯৫ হাজার ৩৫৮ টাকা। প্রতি এমএমবিটিইউ’র আগের ক্রয় মূল্য ছিল ৯.৬৮০০ মার্কিন ডলার।

এর আগে গত ৩ এপ্রিল অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় সিঙ্গাপুর ও সুইজারল্যান্ড থেকে তিন কার্গো এলএনজি কেনার অনুমোদন দেওয়া হয়।

ওই বৈঠকে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে সিঙ্গাপুরের গানভর প্রাইভেট লিমিটেড থেকে প্রতি এমএমবিটিইউ ৯.৪৯৬৫ মার্কিন ডলার হিসেবে মোট ৩৩ লাখ ৬০ হাজার এমএমবিটিইউ এলএনজি আমদানিতে ৪১০ কোটি ৬৫ লাখ ৯০ হাজার ৪৮৮ টাকা ব্যয়ের অনুমোদন দেওয়া হয়।

জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের আর এক প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে সিঙ্গাপুরের ভিটল এশিয়া প্রাইভেট লিমিটেড থেকে প্রতি এমএমবিটিইউ ৯.৬৮০০ মার্কিন ডলার হিসেবে এক কার্গো এলএনজি আমদানিতে মোট ৪১৮ কোটি ৫৯ লাখ ৪১ হাজার ৭৬০ টাকা ব্যয়ের অনুমোদন দেওয়া হয়।

এ ছাড়া সুইজারল্যান্ডের টোটাল ইঞ্জিনিয়ারিং গ্যাস অ্যান্ড পাওয়ার লিমিটেড থেকে এক কার্গো এলএনজি ৪২৭ কোটি ৬৭ লাখ ৫২ হাজার ৪৮০ টাকা ব্যয়ে আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়। এক্ষেত্রে প্রতি এমএমবিটিইউর মূল্য ধরা হয় ৯.৮৯ মার্কিন ডলার।

হাসনাত/এনএইচ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়