ঢাকা     শনিবার   ২০ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৭ ১৪৩১

ইরানে কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম হওয়া হাফেজ বশিরকে ছাত্রলীগের সংবর্ধনা

ঢাবি সংবাদদাতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:১০, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   আপডেট: ২০:১১, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
ইরানে কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম হওয়া হাফেজ বশিরকে ছাত্রলীগের সংবর্ধনা

ইরানে অনুষ্ঠিত কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম হওয়া হাফেজ বশির আহম্মেদকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। 

সোমবার (২৬ ফ্রেবুয়ারি) বিকেল ৪টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মধুর ক্যান্টিনে এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সাদ্দাম হোসাইন ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালি আসিফ ইনান হাফেজ বশিরকে অভিনন্দন জানান এবং ফুল ও কোরআন শরিফ উপহার দেন।

ছাত্রলীগের সভাপতি বলেন, ‘আমি প্রথমেই বশির আহম্মেদকে ধন্যবাদ জানাই। তিনি বিশ্বদরবারে বাংলাদেশের প্রধিনিধিত্ব করে ১১০টি দেশের প্রতিযোগীর মধ্যে প্রথম স্থান অর্জন করেছেন। এভাবে দেশকে যারা বিশ্বদরবারে শিক্ষা, খেলাধুলা, পর্বত অভিযান ও নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবনের মাধ্যমে তুলে ধরছেন; বাংলাদেশ ছাত্রলীগ তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানায়।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ একমাত্র ছাত্রসংগঠন, যা ছাত্ররাজনীতিতে ইনক্লুসিভ রাজনীতির ডাইমেনশন আনতে সক্ষম হয়েছে। কওমি মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের মেধার মূল্যায়ন করতে ছাত্রলীগ মাদ্রাসা সেল গঠন করেছে। বাংলাদেশে ছাত্ররাজনীতির সাথে মাদ্রাসা শিক্ষাব্যবস্থার যে সাংস্কৃতিক ব্যবধান ছিল, সেটা বাংলাদেশ ছাত্রলীগ দূর করেছে। আমরা মনে করি, মাদ্রাসাতেও মেধাবী শিক্ষার্থীরা পড়াশোনা করে। তারা দেশকে এগিয়ে নিতে বদ্ধপরিকর। মাদ্রাসা শিক্ষাকে আরো সমৃদ্ধ করতে এবং আন্তর্জাতিক মঞ্চে যেন তারা বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করতে পারেন, সে লক্ষ্যে ছাত্রলীগ কাজ করবে।

সাদ্দাম হোসাইন আরও বলেন, বাংলাদেশের মানুষ ধর্মপ্রাণ। এই সেন্টিমেন্টকে কাজ লাগিয়ে নিজেদের স্বার্থসিদ্ধি করছে কুচক্রী গোষ্ঠি। বাংলাদেশের জনগণ তাদের চিনতে শুরু করেছে। মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের কথা চিন্তা করেই জননেত্রী শেখ হাসিনা কওমি মাদ্রাসাকে স্বীকৃতি দিয়েছেন। এ কারণে তিনি ‘কওমি জননী’ খ্যাতি লাভ করেছেন।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন—বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালি আসিফ ইনান। সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের মাদ্রাসাবিষয়ক সম্পাদক জহিরুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে হাফেজ বশির আহম্মেদ বলেন, আলহামদুলিল্লাহ, দেশের মানুষের দোয়ায় আমি ইরানে কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অর্জন করেছি। কিছুদিন আগে আমি আলজেরিয়াতেও তৃতীয় স্থান অর্জন করেছি। হাফেজদেরকে সম্মানিত করা উদ্যোগ গ্রহণ করায় ছাত্রলীগকে ধন্যবাদ।

হারুন/রফিক

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়