ঢাকা     মঙ্গলবার   ২১ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ৭ ১৪৩১

চলচ্চিত্রের বিতর্কিত ইস্যুতে গর্জে ওঠে কারা?

রাহাত সাইফুল || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:৩৬, ১৭ জুন ২০২২  
চলচ্চিত্রের বিতর্কিত ইস্যুতে গর্জে ওঠে কারা?

শোবিজ অঙ্গনের প্রতি সাধারণ মানুষের আগ্রহ থাকবে এটাই স্বাভাবিক। এই আগ্রহকে ব্যবহার করছেন কিছু মানুষ। শিল্পীদের নিয়ে লাগামহীন বক্তব্যে স্বপ্নের নায়ক-নায়িকার প্রতি ভক্তদের মনে তৈরি হয় খারাপ ধারণা। এতে মুখ ফিরিয়ে নেয় দর্শক। এতে মূল ক্ষতিটা হয় চলচ্চিত্রের।

একের পর এক অগ্রহণযোগ্য ঘটনায় শিল্পীরা জড়িয়ে পড়ছেন। সর্বশেষ জায়েদ খানের সঙ্গে ওমর সানীর অপ্রীতিকর ঘটনা দেশজুড়ে ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। এদিকে চলচ্চিত্রের এ ধরনের অপ্রীতিকার ঘটনা ঘটলেই কিছু অসাধু লোক এসব নিয়ে সিনেমার মানুষদের চরিত্র হননে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। তারা ফেসবুক লাইভ বা ইউটিউবে তুচ্ছ বিষয়গুলো নিয়ে নিজের মতো করে শিল্পীদের চরিত্র নিয়ে অশ্লীল মন্তব্য করেন। চলচ্চিত্রের অন্যান্য সংগঠনের কিছু লোকও এ ধরনের কাজ করেন। তাদের বেফাঁস মন্তব্যে পুরো শিল্পী সমাজ তো বটেই চলচ্চিত্রের বদনাম হচ্ছে। 

বিষয়টি নিয়ে চলচ্চিত্রকার মতিন রহমান রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘আমি প্রথমত দোষ দেব যারা এসব কথা সংগ্রহ করতে উৎসাহ দেন তাদের। তাদের নৈতিকতা নিয়েই আমার প্রশ্ন রয়েছে। তারা কাদের কাছে যান? কাদের কথাগুলো গণমাধ্যমে প্রকাশ করেন। তারা ঘুরে ফিরে কিছু মানুষের কাছে যান যারা চলচ্চিত্রের সঙ্গে জড়িত থেকেও মন্তব্য করেন বেফাঁস। কেন আমরা তাদের মুখের কথার এত প্রাধান্য দিচ্ছি? আমি মনে করি, তাদেরও কোনো উদ্দেশ্য আছে। এরা ইন্ডাস্ট্রির ভালো কখনও চায় না।’ 
কিছু দায়িত্বশীল লোকও এসব কাজ করছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি তাদের বক্তব্য দেওয়ার সময় আরো সংযত হওয়া উচিত। কারণ তাদের কথার একটা মূল্য আছে।’

এই চলচ্চিত্র নির্মাতা বলেন, ‘এভাবে চলতে দেওয়া ঠিক নয়। আমরা এভাবে এক সময় নিজেদের পরিচয় হারিয়ে ফেলবো। ফেসবুক-ইউটিউবে এই ধরনের কনটেন্ট আমাকে আহত করে।’

‘কোথায় যাচ্ছে এই চলচ্চিত্র শিল্পের আগামী সম্ভাবনা?’ ক্ষুব্ধ কণ্ঠে বলেন মতিন রহমান। 

ঢাকা/রাহাত

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়