ঢাকা     শনিবার   ২৫ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪৩১

নিজের ভোটও পাননি শ্রাবণ, ১ ভোটের রেকর্ড!

প্রকাশিত: ১৮:২৪, ২০ এপ্রিল ২০২৪   আপডেট: ১৮:৩০, ২০ এপ্রিল ২০২৪
নিজের ভোটও পাননি শ্রাবণ, ১ ভোটের রেকর্ড!

সদ্য অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২৪-২০২৬ মেয়াদের নির্বাচনে মাত্র ১ ভোট পেয়ে হেরেছেন অভিনেতা শ্রাবণ শাহ। নির্বাচনে মনোয়নপত্রে প্রস্তাবক ও সমর্থকের ভোটও তার ঝুলিতে পড়েনি। এমনকি নিজের ভোটটিও পাননি বলে দাবি করছেন এই অভিনেতা। কে তাকে ভালোবেসে ভোট দিয়েছেন তাকে খুঁজছেন শ্রাবণ। রাইজিংবিডির সঙ্গে আলাপকালে এমনটাই জানান তিনি। 

ফেসবুকে পোস্ট দেওয়ার কারণে শিল্পী সমিতির ভোটাধিকার হারিয়েছিলেন শ্রাবণ। এমন অভিযোগ তুলে ক্ষোভ ঝেড়েছিলেন তিনি। যাচাইবাচাই শেষে অবশ্য শিল্পী সমিতির সদস্যপদ ফিরে পান। ভোটাধিকার ফিরে পাওয়ার পর শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হয়েছেন। 

শ্রাবণ শাহর ভাষ্য, তিনি প্রতিবাদস্বরূপ নিপুণের বিপরীতে ভোটে দাঁড়িয়েছেন। জয়ী হওয়ার জন্য নয়। তার নিজের ভোটটাও তিনি মনোয়ার হোসেন ডিপজলকে দিয়েছেন।

যদিও প্রার্থীদের সারিতে দাঁড়িয়ে ভোট চাইতে দেখা গেছে এই অভিনেতাকে।

শ্রাবণ শাহর ঘনিষ্টজন অভিনেত্রী নাসরিন আক্তার তার মনোনয়নপত্রের প্রস্তাবক ছিলেন। অন্যদিকে নৃত্যপরিচালক নুহরাজ সমর্থক ছিলেন। তারাও তাকে ভোট দেননি বলে দাবি শ্রাবণ শাহর। 

শ্রাবণ শাহ বলেন, আমি প্রস্তাবক ও সর্মথককারীদেরও আমাকে ভোট দিতে নিষেধ করেছি। আমি কোনো প্রচার করিনি। 

শ্রাবণ শাহ মনোয়ার হোসেন ডিপজল ও নিপুণ আক্তারের বিপরীতে সাধারণ সম্পাদকের পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। 

শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) দিনব্যাপী শিল্পী সমিতির নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। শনিবার (২০ এপ্রিল) সকাল সাতটার দিকে নির্বাচনের ফল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার খোরশেদ আলম খসরু। তার ঘোষিত ফলাফল থেকে জানা যায়, শ্রাবণ মাত্র একটি ভোট পেয়েছেন। চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ইতিহাসে এই প্রথম কোনো প্রার্থী মাত্র এক ভোটে পেলেন।

নির্বাচনের কিছুদিন আগে শ্রাবণ অভিযোগ করেছিলেন, নিপুণ তার সদস্যপদ বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এজন্য ভোটার তালিকায় নাম রাখেননি। সদস্যপদ ফিরে পেয়ে অনেকটা জেদ করেই নির্বাচনে সেক্রেটারি পদে অংশ নেন শ্রাবণ। 

ঢাকা/রাহাত/ফিরোজ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়