ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৬ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৩ ১৪৩১

ইসরায়েল বিরোধী বিক্ষোভের জেরে ট্রুডো-মেলোনি বৈঠক বাতিল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:৪১, ৩ মার্চ ২০২৪   আপডেট: ১৫:৪৮, ৩ মার্চ ২০২৪
ইসরায়েল বিরোধী বিক্ষোভের জেরে ট্রুডো-মেলোনি বৈঠক বাতিল

কানাডায় ইসরায়েল বিরোধী বিক্ষোভের মুখে বাতিল হলো অন্টারিও আর্ট গ্যালারির কর্মসূচি। এই কর্মসূচিতে অংশগ্রহণের কথা ছিল কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো ও ইতালির প্রধানমন্ত্রী জর্জিয়া মেলোনির। 

রোববার (৩ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে কানাডার সংবাদমাধ্যম সিবিসি নিউজ।

প্রতিবেদনে বলা হয়, শনিবার সন্ধ্যায় টরেন্টোতে অন্টারিও আর্ট গ্যালারিতে একটি বৈঠকে অংশ নেয়ার কথা ছিল ট্রুডো ও মেলোনির। কিন্তু অনুষ্ঠানস্থলের বাইরে শত শত ফিলিস্তিনপন্থি বিক্ষোভকারী জড়ো হোন। নিরাপত্তা উদ্বেগের কারণে অনুষ্ঠানটি বাতিল করা হয়।

কানাডার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় জানিয়েছে, ট্রুডো বা ইতালির প্রধানমন্ত্রী কেউই অন্টারিওর আর্ট গ্যালারিতে (এজিও) প্রবেশ করতে সক্ষম হননি। বিক্ষোভের কারণে এলাকাটি লকডাউনে চলে গিয়েছিল।

বিক্ষোভকারীরা ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধে কানাডা সরকারের ভূমিকার সমালোচনা করেন। ট্রুডো গাজায় গণহত্যার জন্য অর্থায়ন করছেন বলে স্লোগান দেন বিক্ষোভকারীরা। 

পুলিশ সিবিসি নিউজকে বলেছে, শনিবার গ্যালারির সামনে প্রায় ২০০ থেকে ৩০০ বিক্ষোভকারী জড়ো হয়। তবে পুলিশ উল্লেখ করেছে, বিক্ষোভকারীদের সঠিক সংখ্যা অনুমান করা কঠিন, কারণ গ্যালারির বেশ কয়েকটি প্রবেশ পথের বাইরেও বিক্ষোভকারীরা জড়ো হয়।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একজন মুখপাত্র শনিবার রাতে ইমেইলকে সিবিসি নিউজকে বলেন, ‘নিরাপত্তা উদ্বেগের কারণে আয়োজনটি বাতিল করা হয়েছিল।’

কানাডার আন্তর্জাতিক উন্নয়ন মন্ত্রী আহমেদ হোসেন গ্যালারির মূল প্রবেশ পথ দিয়ে প্রবেশের সময় বিক্ষোভকারীরা তার পথ রোধ করেন। এরপর মন্ত্রী পুলিশি নিরাপত্তায় নিরাপদ স্থানে যাওয়ার সময়ও বিক্ষোভকারী তাকে ভৎর্সনা করেন। 

এসময় মন্ত্রীকে উদ্দেশ্যে করে এক বিক্ষোভকারীকে বলতে শোনা যায়, ‘আপনি গণহত্যার সাথে জড়িত। আপনার হাত লাল। আপনি আমার পরিবারের সদস্য এবং আমার বন্ধুদের হত্যার সাথে জড়িত।’

প্রসঙ্গত, গেল বছরের ৭ অক্টোবর ইসরায়েলে হামলা চালায় ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস। এতে ১ হাজার ২০০ জন নিহত হোন বলে জানায় ইসরায়েল। এরপর থেকেই গাজায় হামলা চালাচ্ছে ইসরায়েলি সেনারা। 

টানা পাঁচ মাসের বেশি সময় ধরা চলা ইসরায়েলের সামরিক অভিযানে এখন পর্যন্ত ৩০ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। আহতের সংখ্যা ৭০ হাজার ছাড়িয়েছে। 

কানাডা হামাসকে একটি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হিসেবে মনে করে। গাজায় যুদ্ধের শুরু থেকেই ইসরায়েলকে সমর্থন দিয়ে আসছে দেশটি। তবে ইসরায়েলি অভিযানে গাজায় ব্যাপকভাবে মানবিক সংকট দেখা দেওয়ায় সম্প্রতি যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানায় কানাডা।

/ফিরোজ/

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়