ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২০ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৬ ১৪৩১

জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতির পরিমাণ আগের ধারণার চেয়ে ৬ গুণ বেশি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৪২, ১৭ মে ২০২৪   আপডেট: ২২:৫৮, ১৭ মে ২০২৪
জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতির পরিমাণ আগের ধারণার চেয়ে ৬ গুণ বেশি

জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে যে অর্থনৈতিক ক্ষতি হয়েছে তা পূর্বের ধারণার চেয়ে ছয়গুণ বেশি। বৈশ্বিক উত্তাপের ফলে একটি অব্যাহত স্থায়ী যুদ্ধের আর্থিক ক্ষতির মাত্রার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ হারে সম্পদ সংকুচিত হচ্ছে। একটি গবেষণায় প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে শুক্রবার দ্য গার্ডিয়ান এ তথ্য জানিয়েছে।

নর্থওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটির অর্থনীতিবিদ দিয়েগো কানজিগের সঙ্গে যৌথভাগে গবেষণা প্রতিবেদনটি তৈরি করেছেন হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতিবিদ অ্যাড্রিয়েন বিলাল।

গবেষকরা জানিয়েছেন, বৈশ্বিক তাপমাত্রায় ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস বৃদ্ধির ফলে বিশ্বের মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) ১২ শতাংশ হ্রাস পায়। আগের বিশ্লেষণের তুলনায় এই হ্রাসের হার অনেক বেশি। প্রাক-শিল্প যুগ থেকে পৃথিবী ইতিমধ্যেই ১ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি উষ্ণ হয়েছে এবং অনেক জলবায়ু বিজ্ঞানী ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন যে জীবাশ্ম জ্বালানি পোড়ানোর কারণে চলতি শতাব্দির শেষ নাগাদ তা ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়বে। জলবায়ুর এই ব্যাপক পরিবর্তন দেশগুলোর জন্য একটি বিশাল অর্থনৈতিক খরচ নিয়ে আসবে।

এর আগের গবেষণাগুলোতে কার্বন নিঃসরণের সামাজিক ব্যয় হিসাব করা হয়েছিল। তাতে দেখা গেছে,  প্রতি টন কার্বন নির্গমনের জন্য অর্থনীতিতে অতিরিক্তি ১ হাজার ৫৬ ডলারের ক্ষতি হয়। অবশ্য যুক্তরাষ্ট্রের পরিবেশ সুরক্ষা সংস্থা ইপিএ-এর হিসাবে এই ব্যয় ১৯০ ডলার।

গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা বৃদ্ধির ফলে ‘উৎপাদন, মূলধন ও ভোগের তীব্র হ্রাস ঘটবে, যা ২১০০ সালের মধ্যে ৫০ শতাংশ ছাড়িয়ে যাবে।’ এই অর্থনৈতিক ক্ষতি এতটাই গুরুতর যে এটি ‘অভ্যন্তরীণভাবে ও স্থায়ীভাবে যুদ্ধের ফলে সৃষ্ট অর্থনৈতিক ক্ষতির সাথে তুলনীয়।’

অ্যাড্রিয়েন বিলাল বলেন, ‘এরপরও কিছু অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ঘটবে, তবে জলবায়ু পরিবর্তন না হলে যত মানুষ দরিদ্র হতো চলতি শতাব্দির শেষ নাগাদ তারচেয়ে ৫০ শতাংশ বেশি দরিদ্র হতে পারে।’
 

ঢাকা/শাহেদ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ