ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৩ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ১০ ১৪৩১

সাবেক এমপি গিয়াসের অবৈধ সম্পদের প্রমাণ পেয়েছে দুদক, শিগগির চার্জশিট

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:৫২, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   আপডেট: ১৮:৫৩, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
সাবেক এমপি গিয়াসের অবৈধ সম্পদের প্রমাণ পেয়েছে দুদক, শিগগির চার্জশিট

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিনের জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের প্রমাণ পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। মামলা তদন্ত করে এ প্রমাণ পাওয়া গেছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিনকে আসামি করে দুদকের অনুমোদনের জন‌্য চার্জশিট দাখিল করলে বৃহস্পতিবার দুদকের প্রধান কার্যালয় থেকে তা অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। শিগগির তা আদালতে দাখিল করবেন তদন্ত কর্মকর্তা।

দুদক সূত্র জানায়, সাবেক এমপি গিয়াসের বিরুদ্ধে ১ কোটি ৪১ লাখ ৮৬ হাজার ৯৩১ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ আনা হয়েছিল। অনুমোদিত চার্জশিটে টাকার অঙ্ক কিছুটা কমেছে।

২০২১ সালের ১৯ ডিসেম্বর গিয়াস উদ্দিনের বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে তথ‌্য গোপন করে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়। দুদকের উপ-পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

২০২০ সালের ২ নভেম্বর মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিনকে সম্পদ বিবরণী দাখিলের নোটিস দেওয়া হয়। ওই বছরের ২৩ ডিসেম্বর দুদকে সম্পদ বিবরণী দাখিল করেন তিনি। অনুসন্ধানকালে প্রাপ্ত রেকর্ডপত্র ও দাখিলকৃত সম্পদ বিবরণী যাচাই করে তার নামে ১৫ কোটি ৭ লাখ ১৫ হাজার ৭৭৯ টাকার স্থাবর সম্পদ ও ৫ কোটি ৮৮ লাখ ৭০ হাজার ৩১৮ টাকা অস্থাবর সম্পদসহ মোট ২০ কোটি ৯৫ লাখ ৮৬ হাজার ৯৭ টাকার সম্পদের তথ্য পাওয়া যায়।

২০০৮-০৯ করবর্ষ থেকে ২০২১-২২ করবর্ষে গিয়াস উদ্দিনের পারিবারিক ও অন্যান্য খাতে ১৭ কোটি ৪৫ লাখ ৯০ হাজার ৪৩ টাকা ব্যয়ের তথ্য পায় দুদক। এসব ব্যয়ের বিপরীতে বিভিন্ন সময়ে সঞ্চয় হিসাবে ৬ কোটি ৮১ লাখ ২২ হাজার ৮৫৬ টাকা, গৃহসম্পত্তি থেকে আয়ের ২ কোটি ১৮ লাখ ৬৯ হাজার ৪৫০ টাকা, বাবার কাছ থেকে হেবামূল্যে প্রাপ্ত ১১ শতাংশ জমিসহ ৭ কোটি টাকার দালান, ৪ লাখ ৩২ হাজার টাকার মুক্তিযোদ্ধা ভাতাসহ মোট ১৭ কোটি ৬৮ লাখ ৮৪ হাজার ৭৩৭ টাকার বৈধ ও গ্রহণযোগ্য উৎস পাওয়া যায়। তার মধ্যে স্থাবর-অস্থাবর মিলিয়ে ১ কোটি ৪১ লাখ ৮৬ হাজার ৯৩১ টাকার অবৈধ সম্পদের তথ‌্য পায় দুদক। 

মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়নে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।

নঈমুদ্দীন/রফিক

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়