ঢাকা     শুক্রবার   ৩১ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ১৭ ১৪৩১

বিচার না হওয়ায় চিকিৎসকদের ওপর হামলা বাড়ছে: ড্যাব 

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৫৬, ১৭ এপ্রিল ২০২৪  
বিচার না হওয়ায় চিকিৎসকদের ওপর হামলা বাড়ছে: ড্যাব 

দেশের বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসকদের ওপর হামলার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে বুধবার (১৭ এপ্রিল) বিবৃতি দিয়েছে চিকিৎসকদের সংগঠন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব)। 

সংগঠনটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. হারুন আল রশিদ ও মহাসচিব ডা. মো. আবদুস সালাম বিবৃতিতে বলেছেন, বিচার না হওয়ায় চিকিৎসকদের ওপর হামলা বাড়ছে। 

বিবৃতিতে বলা হয়, কিছুদিন ধরে লক্ষ করা যাচ্ছে যে, নিজের হাতে আইন তুলে নিয়ে চিকিৎসাসেবায় নিয়োজিত চিকিৎসক, চিকিৎসাসেবা প্রদানকারী ব্যক্তিবর্গ এবং প্রতিষ্ঠানের ওপর সরকার দলীয় ক্যাডার বাহিনী একের পর এক আক্রমণ-ভাঙচুর এবং শারীরিকভাবে লাঞ্চিত করে যাচ্ছে। 

তারা বলেন, চট্টগ্রামের পটিয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দিতে দেরি হওয়ার অভিযোগে স্থানীয় দুর্বৃত্তরা রক্তিম দাস নামের একজন চিকিৎসককে আক্রমণ করে। প্রচণ্ড আঘাতের কারণে ওই ডাক্তারের মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হয়। দুর্বৃত্তরা যেহেতু এমপির কাছের লোক, তাই পটিয়া থানার ওসি মামলা নিতে চাননি। শেষে খোদ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে মামলা নেওয়া হয়। কিন্তু, ধারা পরিবর্তন করে জামিনযোগ্য ধারায় মামলা নেওয়া হয়।

ড্যাবের নেতারা বলেন, পহেলা বৈশাখের দিনে চট্টগ্রাম মেডিক্যালে এনআইসিইউতে গুরুতর অসুস্থ এক শিশুর মৃত্যু হলে তার আত্মীয়-স্বজনরা শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. রিয়াজ উদ্দিন শিপলুর ওপর হামলা করে। এতে তিনি মারাত্মক আহত হন। তিনি এখন আইসিইউতে ভর্তি আছেন। এর কিছুদিন আগে একজন চিকিৎসক তার সন্তানকে কিশোর গ্যাংয়ের হাত থেকে রক্ষা করতে গিয়ে হামলার শিকার হন এবং পরে মারা যান। আমরা এ ধরনের ন্যক্কারজনক হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জ্ঞাপন করছি।

তারা আরও বলেন, আইনের সঠিক প্রয়োগ এবং বিচার না হওয়ায় চিকিৎসকদের ওপর এ ধরনের হামলা ক্রমাগত বেড়েই চলছে। আজ আইনের শাসন ভূলুণ্ঠিত। সামাজিক অবক্ষয়ের চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে বর্তমান বাংলাদেশ, যেখানে বিচারহীনতাই সংস্কৃতিতে রূপ নিয়েছে। 

ড্যাবের সভাপতি ও মহাসচিব অনতিবিলম্বে দোষী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে তাদের যথাযথ শাস্তির ব্যবস্থা করা এবং ডাক্তারদের নিরাপদ কর্মসংস্থানের জন্য সরকারের কাছে দাবি জানান। অন্যথায়, দেশের চিকিৎসা ব্যবস্থা তলানিতে গিয়ে ঠেকবে এবং এর দায়ভার সম্পূর্ণভাবে সরকারের ওপর বর্তাবে।

মেয়া/রফিক

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়