ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৬ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৩ ১৪৩১

‘সরকার পরিবর্তন হবে ৫ বছর পর, আবার প্রধানমন্ত্রী হবেন শেখ হাসিনা’

কূটনৈতিক প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৩৭, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   আপডেট: ১৭:১১, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
‘সরকার পরিবর্তন হবে ৫ বছর পর, আবার প্রধানমন্ত্রী হবেন শেখ হাসিনা’

‘সরকার পাঁচ বছর পরেই পরিবর্তন হবে। পাঁচ বছর পর দেশে আবার নির্বাচন হবে। সেই নির্বাচনের মাধ্যমে নতুন সরকার গঠিত হবে। ইনশাল্লাহ, আবার নতুন সরকারের প্রধানমন্ত্রী হবেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।’

শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে জাতীয় সংসদের এলডি হল চত্বরে রাঙ্গুনিয়া সমিতি, ঢাকা আয়োজিত মেজবান অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে উল্লিখিত কথাগুলো বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

মন্ত্রী বলেন, আমরা আশা করি, আবারও জনগণ ভোট দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকেই নির্বাচিত করবেন।

সিন্ডিকেট চক্রের অসাধু তৎপরতা সর্ম্পকে তিনি বলেন, বাজারে একটি সিন্ডিকেট যে আছে, সেটি সঠিক। এই সিন্ডিকেট লোভাতুর সিন্ডিকেট। কারণে-অকারণে যেকোনো অজুহাতে এই সিন্ডিকেট পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি করে। আমরা দেখেছি, একটি কোল্ড স্টোরেজের ভেতর থেকে দেড় লাখ ডিম উদ্ধার করা হয়েছে। অতীতে পেঁয়াজের সংকট তৈরি করা হয়েছিল। আবার যখন দেশ পেঁয়াজে সয়লাব হলো, পেঁয়াজ আমদানি করা হলো, তখন স্টোরেজ করে রাখা পচা পেঁয়াজ ফেলে দিতেও আমরা দেখেছি। এই সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে আমাদের সরকার সমস্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। এটাও সঠিক, যারা সরকার পরিবর্তন করতে চায়, সরকারকে টেনে নামাতে চায়, এই সিন্ডিকেটের সাথে তারাও যুক্ত।

মন্ত্রী বলেন, শুধু পাইকারি বিক্রেতা নয়, খুচরা বিক্রেতাদের মধ্যেও মুনাফা করার প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। আমরা এই সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে জনগণকেও সচেতন হতে আহ্বান জানাচ্ছি। একই সাথে, এর বিরুদ্ধে সরকার অলআউট অ্যাকশন নিচ্ছে।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ আরও বলেন, আমরা নির্বাচনি ইশতেহারে বলেছিলাম, বাজার নিয়ন্ত্রণ করা অর্থাৎ দ্রব্যমূল্য যাতে মানুষের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে থাকে, সেটি আমাদের অন্যতম প্রায়োরিটি। এই সরকারের যাত্রার শুরু থেকে সেই প্রায়োরিটি দিয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আপনারা দেখছেন, বাজার বর্তমানে স্থিতিশীল আছে।

ভারত থেকে ৫০ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমাদের দেশে আসছে, জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, রোজার আগেই ইনশাআল্লাহ কিছু পেঁয়াজ দেশে ঢুকবে।

মার্কিন প্রতিনিধিদলের ঢাকা আগমন সংক্রান্ত এক প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আমাদের বন্ধুপ্রতিম  দেশ। দেশটির সাথে আমাদের বহুমাত্রিক সহযোগিতার সম্পর্ক রয়েছে। নিরাপত্তা ইস্যু, বাণিজ্য ইস্যু থেকে শুরু করে বিশ্ব অঙ্গনে অনেক ইস্যু নিয়ে আমরা একসঙ্গে কাজ করি। এই সমস্ত ইস্যু নিয়ে আলোচনা হবে। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের বিষয়েও আলোচনা হবে।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, দেশে অনেক ছোট-খাটো দল রয়েছে। ব্যাঙ প্রাণীটি খুব ছোট, কিন্তু আওয়াজ অনেক বড়। তেমনি বাংলাদেশেও অনেক ছোট-খাটো দল আছে, যাদের আওয়াজ অনেক বড়।

এর আগে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ রাঙ্গুনিয়া সমিতি, ঢাকা'র সেবামূলক কার্যক্রম ও বিভিন্ন নিয়মিত আয়োজনের প্রশংসা করেন।

রাঙ্গুনিয়া সমিতি, ঢাকা'র সভাপতি মো: গিয়াস উদ্দিন খাঁনের সভাপতিত্বে দ্বাদশ জাতীয় সংসদের হুইপ সাইমুম সরওয়ার কমল, পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন, চট্টগ্রাম সমিতি-ঢাকা'র সভাপতি মোহাম্মদ মুসলিম চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার উজ্জ্বল মল্লিক বিশেষ অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

রাঙ্গুনিয়া সমিতির নেতৃবৃন্দ এ সময় রাঙ্গুনিয়ার সন্তান, চট্টগ্রাম-৭ আসনের সংসদ সদস্য, ড. হাছান মাহমুদের হাতে সম্বর্ধনা স্মারক তুলে দেন। পরে আয়োজক ও অতিথিদের সাথে নিয়ে সমিতির 'গুমাই' স্মরণিকার মোড়ক উন্মোচন করেন মন্ত্রী।

হাসান/রফিক

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়