ঢাকা     শনিবার   ২২ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৮ ১৪৩১

এক লাখ ২৬ হাজার বিদ্যুৎ খুঁটিসহ ৪ ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন

বিশেষ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৪০, ২১ মে ২০২৪  
এক লাখ ২৬ হাজার বিদ্যুৎ খুঁটিসহ ৪ ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন

বিদ্যুৎ বিভাগের আওতায় ঢাকা-ময়মনসিংহ বিভাগের জন্য একলাখ ২৬ হাজার ৩৫৬টি বিদ্যুৎ খুঁটি ও বৈদ্যুতিক তার ক্রয়ের ৪টি ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। এতে মোট ব্যয় হবে ৩২৪ কোটি ৯৫ লাখ ৩১ হাজার ৪৫৬ টাকা।

মঙ্গলবার (২১ মে) সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কমিটির সভায় প্রস্তাবগুলো অনুমোদন দেওয়া হয়। সভায় কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সমন্বয়  ও সংস্কার সচিব মো.মাহমুদুল হোসাইন খান অনুমোদিত প্রস্তাবগুলোর বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন।

সভায় ‘বাপবিবো’র বৈদ্যুতিক বিতরণ ব্যবস্থার আধুনিকায়ন এবং ক্ষমতাবর্ধন (ঢাকা-ময়মনসিংহ বিভাগ)’ প্রকল্পের অন্য একটি প্যাকেজ  ১১ কেভি আন্ডারগ্রাউন্ড কেবল ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। প্রকল্পের আওতায় ৫৭.৫০ কিলোমিটার ১১ কেভি আন্ডারগ্রাউন্ড কেবল ক্রয়ের জন্য এক ধাপ দুই খাম পদ্ধতিতে আন্তর্জাতিক দরপত্র আহ্বান করা হলে ৬টি প্রতিষ্ঠান দরপত্র দাখিল করে। তার মধ্যে কারিগরিভাবে ৩টি প্রস্তাব রেসপনসিভ হয়। দরপত্রের সব প্রক্রিয়া শেষে টিইসি কর্তৃক সুপারিশকৃত রেসপনসিভ সর্বনিম্ন দরদাতা প্রতিষ্ঠান চীনের জংটিয়ান টেকনোলজি সাবমেরিন কেবলস কোম্পানি লিমিটেড এই কেবল সরবরাহ করবে। এতে ব্যয় হবে ৪৩ কোটি ৮১ লাখ ৪৬ হাজার ৩১৯ টাকা।

সচিব বলেন, ‘বাপবিবো’র বৈদ্যুতিক বিতরণ ব্যবস্থার আধুনিকায়ন এবং ক্ষমতাবর্ধন (ঢাকা-ময়মনসিংহ বিভাগ)’ প্রকল্পের অন্য একটি প্যাকেজের আওতায় ৩৩ কেভি আন্ডারগ্রাউন্ড কেবল ক্রয়ের আরও একটি প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। প্রকল্পের আওতায় ৮৩ কিলোমিটার ৩৩ কেভি আন্ডারগ্রাউন্ড কেবল ক্রয়ের জন্য এক ধাপ দুই খাম পদ্ধতিতে আন্তর্জাতিক দরপত্র আহ্বান করা হলে ৭টি প্রতিষ্ঠান দরপত্র দাখিল করে। তার মধ্যে কারিগরিভাবে ২টি প্রস্তাব রেসপনসিভ হয়। দরপত্রের সব প্রক্রিয়া শেষে টিইসি কর্তৃক সুপারিশকৃত রেসপনসিভ সর্বনিম্ন দরদাতা প্রতিষ্ঠান বিআরবি কেবল ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড এই কেবল সরবরাহ করবে। এতে ব্যয় হবে ৬৮ কোটি ১৬ লাখ ৭৫ হাজার ১০০ টাকা।

তিনি বলেন,‘বৈদ্যুতিক বিতরণ ব্যবস্থার আধুনিকায়ন ও ক্ষমতাবর্ধন (ঢাকা-ময়মনসিংহ বিভাগ)’ প্রকল্পের লট-১ এর আওতায় ৬৩ হাজার ১৭৮টি  এসপিসি পোল ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। আন্তর্জাতিক উন্মুক্ত দরপত্র পদ্ধতিতে দরপত্র আহ্বান করা হলে ৩টি প্রতিষ্ঠান দরপ্রস্তাব দাখিল করে। সবগুলো দরপ্রস্তাবই কারিগরিভাবে রেসপনসিভ হয়। দরপত্রের সব প্রক্রিয়া শেষে টিইসি কর্তৃক সুপারিশকৃত রেসপনসিভ সর্বনিম্ন দরদাতা প্রতিষ্ঠান যৌথভাবে কনফিডেন্স ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেড, কনটেক কন্সট্রাকশন লিমিটেড, দাদা ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড, পোলস অ্যান্ড কনক্রিট লিমিটেড বাংলাদেশ এই পোলগুলো সরবরাহ করবে। এতে ব্যয় হবে ২১৩ কোটি ১০ লাখ ৯৬ হাজার ৩৭০ টাকা।

সচিব বলেন, ‘বৈদ্যুতিক বিতরণ ব্যবস্থার আধুনিকায়ন ও ক্ষমতাবর্ধন (ঢাকা-ময়মনসিংহ বিভাগ)’ প্রকল্পের লট-২ এর আওতায় আরও ৬৩ হাজার ১৭৮টি এসপিসি পোল ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। আন্তর্জাতিক উন্মুক্ত দরপত্র পদ্ধতিতে দরপত্র আহ্বান করা হলে ২টি প্রতিষ্ঠান দরপ্রস্তাব দাখিল করে। সবগুলো দরপ্রস্তাবই কারিগরিভাবে রেসপনসিভ হয়। দরপত্রের সব প্রক্রিয়া শেষে টিইসি কর্তৃক সুপারিশকৃত রেসপনসিভ সর্বনিম্ন দরদাতা প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ মেশিন টুলস ফ্যাক্টরি লিমিটেড বৈদ্যুতিক পোলগুলো সরবরাহ করবে। এতে ব্যয় হবে ২১২ কোটি ৯৭ লাখ ১০ হাজার ৩৭ টাকা।

/হাসনাত/এসবি/

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়