ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৫ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ১১ ১৪৩১

আনোয়ারা উদ্যান রক্ষায় সমাবেশ, যোগ দিলেন মেয়র

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:০২, ১১ জুন ২০২৪  
আনোয়ারা উদ্যান রক্ষায় সমাবেশ, যোগ দিলেন মেয়র

ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড (ডিএমটিসিএল) এর নিয়ন্ত্রণ থেকে ফার্মগেটের শহীদ আনোয়ারা উদ্যান ফেরতের দাবিতে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের নগর ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেন বিভিন্ন পরিবেশবাদী ও নাগরিক সংগঠনের সদস্যরা। এই সমাবেশে যোগ দিয়ে সংহতি প্রকাশ করেন মেয়র আতিকুল ইসলাম।  

মঙ্গলবার(১১ জুন) সকালে ‘ফার্মগেট শহীদ আনোয়ারা উদ্যান রক্ষা আন্দোলন' এর ব্যানারে এ প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ফার্মগেটে শহীদ আনোয়ারা উদ্যানের এই জায়গাটি গণপূর্ত অধিদপ্তরের। এটির রক্ষণাবেক্ষণ ও উন্নয়নের দায়িত্ব ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের। গণপূর্ত অধিদপ্তরের অনুমতি নিয়ে ২০১৮ সাল থেকে জায়গাটি মেট্রোরেলের প্রকল্প অফিস ও নির্মাণ উপকরণ রাখার কাজে ব্যবহার করে আসছে ডিএমটিসিএল। মেট্রোরেলের নির্মাণ কাজ শেষে এই উদ্যান ফিরিয়ে দেওয়ার কথা থাকলেও এখন বাণিজ্যিক প্লাজা তৈরি করে জায়গাটি নিজেদের করে নিতে চাইছে মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ। 


তারা আরও বলেন, খেলার মাঠ, উন্মুক্ত স্থান, উদ্যান এবং প্রাকৃতিক জলাধার সংরক্ষণ আইন অনুযায়ী মহানগরী, বিভাগীয় শহর ও দেশের সকল পৌর এলাকার খেলার মাঠ, উন্মুক্ত স্থান, উদ্যান, জলাধারের জায়গার শ্রেণি পরিবর্তন, অন্য কোনভাবে ব্যবহার বা ব্যবহারের জন্য ভাড়া, ইজারা বা অন্য কোনভাবে হস্তান্তর করা যাবে না। ঢাকা বিশদ উন্নয়ন পরিকল্পনা (ড্যাপ) অনুযায়ী ফার্মগেট শহীদ আনোয়ারা উদ্যান ঢাকা উপ-অঞ্চল ২৬ এর অন্তর্ভুক্ত, যেখানে এটিকে উন্মুক্ত স্থান হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এসব আইনি দলিলের নিরিখে এটি স্পষ্ট যে আনোয়ারা উদ্যানে মেট্রোরেলের নির্মাণ সামগ্রী রাখতে অনুমতি দেওয়া বা মেট্রোরেলের অস্থায়ী কার্যালয় স্থাপনের অনুমতি দেওয়ার কোনো বৈধতা নেই।

সমাবেশে বক্তারা দেশ জুড়ে পরিবেশ বিধ্বংসী কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করেন। একই সঙ্গে তারা ঢাকা শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত উনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানের স্মৃতিবিজড়িত ফার্মগেটের ঐতিহাসিক শহীদ আনোয়ারা উদ্যানসহ ঢাকার অন্যান্য উদ্যান দখলমুক্ত করে জনগণের কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার আহ্বান জানান।

সমাবেশ থেকে ডিএনসিসি মেয়রকে ফার্মগেট শহীদ আনোয়ারা উদ্যান হতে কবে ডিএমটিসিএল কর্তৃপক্ষ তাদের অস্থায়ী স্থাপনা ও সরঞ্জামাদি সরিয়ে নিবে সে বিষয়ে একটি নির্দিষ্ট দিনক্ষণ নির্ধারণ, ডিএমটিসিএল কর্তৃপক্ষ মেট্রো স্টেশন রাস্তা ও পিলার নির্মাণের জন্য উদ্যানের মূল জমির কতটুকু ব্যবহার করেছে এবং অবশিষ্ট জমির পরিমাপ, ও উদ্যান পুনর্গঠনের কাজ কবে হতে শুরু হবে তার রূপরেখা গণবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে প্রকাশ করার দাবি জানান ফার্মগেট শহীদ আনোয়ারা উদ্যান রক্ষা আন্দোলনের সমন্বয়ক আমিরুল রাজিব।

সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন তেঁতুলতলা মাঠ রক্ষা আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক সৈয়দা রত্না, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) এর সাধারণ সম্পাদক আলমগীর কবির, ফার্মগেট এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে খান আসাদুজ্জামান মাসুম, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মীর খায়রুল আলম, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগে. জেনা. মো. মঈন উদ্দিন প্রমুখ। 

সমাবেশ শেষে মেয়রের কাছে দাবিদাওয়াসমূহ প্রস্তাবনা আকারে তুলে ধরেন আন্দোলনকারীরা। এ সময় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তারা ফার্মগেট শহীদ আনোয়ারা উদ্যান পুনরুদ্ধারের ব্যাপারে প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন এবং আন্দোলনকারীদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেন।

এছাড়া, সমাবেশে সংহতি জানিয়েছে স্থানীয় এলাকাবাসী, বিভিন্ন পরিবেশবাদী ও নাগরিক সংগঠনগুলো।

এমএ/ইভা 

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়