ঢাকা     রোববার   ১৪ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ১ ১৪৩১

নতুন বছরের অঙ্গীকার হোক যুদ্ধমুক্ত ‍পৃথিবী

সাইফ বরকতুল্লাহ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:১৩, ১ জানুয়ারি ২০২৪   আপডেট: ১১:৪৮, ২ জানুয়ারি ২০২৪
নতুন বছরের অঙ্গীকার হোক যুদ্ধমুক্ত ‍পৃথিবী

সময় অতীত হয়। নানা ঘটনা, প্রাপ্তি আর অপ্রাপ্তির মোড়কে অতীত হয়ে গেলো ২০২৩। অতীতের ঘরে জমা হওয়া দুঃখ-হতাশা-ক্ষোভ-ভুলকে দূরে ঠেলে নতুনভাবে সামনে এগোনোর বার্তা নিয়ে এলো ২০২৪।

শুরু হলো নতুন আরও একটি বছর। নতুনের হাতছানি আর সম্ভাবনাকে সামনে রেখে নতুন বছরকে বরণ করে নিয়েছে মানুষ। ২০২৪ সালটি বিশ্বের জন্য নানা কারণেই বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ থাকবে।  এ বছর বাংলাদেশসহ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বিশ্বের ৭০টির বেশি দেশে। এসব নির্বাচনে ভোট দেবে বিশ্বের ৪২০ কোটির বেশি মানুষ। নতুন বছরে এতগুলো দেশে নতুন সরকার আসবে, স্বাভাবিকভাবেই বদলে যাবে বিশ্ব রাজনীতি। নতুন নতুন রাষ্ট্রনায়কেরা নতুন দৃষ্টিভঙ্গি ও কৌশল নির্ধারণ করে সামনে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করবেন।

বার্তাসংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদন বলছে, নতুন বছরে পাঁচ দেশের নির্বাচন বিশ্বরাজনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব ফেলতে পারে। আগামী নভেম্বরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হওয়ার কথা। শীর্ষ প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন এবং রিপাবলিকান দলের এখনও পর্যন্ত এগিয়ে থাকা নেতা সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এছাড়া রিপাবলিকান দলের নিকি হ্যালি, রন ডিস্যান্টিস, বিবেক রামাস্বামী, ক্রিস ক্রিস্টি এবং উইলিয়াম আসা হাচিনসন এবং ডেমোক্র্যাটদের মারিয়ান উইলিয়ামসন এবং ডিন ফিলিপস এগিয়ে রয়েছেন প্রার্থী হওয়ার বিষয়ে। নির্দলদের মধ্যে নাম রয়েছে সাবেক প্রেসিডেন্ট প্রয়াত জন এফ কেনেডির ভাগ্নে রবার্ট, কর্নেল ওয়েস্ট এবং জিল স্টেইন। সমীক্ষাগুলো ডোনাল্ড ট্রাম্পকেই মার্কিনিদের প্রথম পছন্দ হিসেবে দেখালেও, চারটি পৃথক ফৌজদারি মামলায় মুখে পড়ে, শেষ পর্যন্ত তিনি প্রার্থী হতে পারবেন কিনা, তাই নিয়েই প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

শুধু তাই নয়, ২০২২-এর ফেব্রুয়ারির থেকে যুদ্ধ চলছে রাশিয়া এবং ইউক্রেনের মধ্যে। এই অবস্থার মধ্যেই ২০২৪ সালের ১৭ মার্চ রাশিয়ায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন আবারও প্রেসিডেন্ট হতে চাইছেন।আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী তাকে চ্যালেঞ্জ করার মতো কেউ প্রায় নেই বললেই চলে। তবে সময়ই বলে দেবে কী হবে।

এদিকে, আগামী এপ্রিল-মে মাসে প্রায় ১০০ কোটি ভারতীয় নিজেদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এই নির্বাচনের মাধ্যমে দেশটির বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও বিজেপি তৃতীয়বারের মতো ক্ষমতায় আসার চেষ্টা করবে। ২০২৪ সালের আরেকটি বড় ও উল্লেখযোগ্য নির্বাচন হলো ইউরোপীয় পার্লামেন্ট নির্বাচন। এই বহুজাতিক নির্বাচনে ভোট দেবেন ইউরোপের ৪০ কোটি মানুষ। এএফপির বিশ্লেষকরা জানান, এই ভোট কট্টর ডানপন্থি, পপুলিস্ট নেতাদের জন্য একটি অগ্নিপরীক্ষা। এছাড়াও, দক্ষিণ আফ্রিকা, ইন্দোনেশিয়া, ক্রোয়েশিয়া, ফিনল্যান্ড, জর্জিয়া এবং আজারবাইজানেও এই বছর নির্বাচন হবে। পাশাপাশি, ইউরোপীয় সংসদ এবং রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদের নির্বাচনও অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ২০২৪ সালে।

দুই.
ইসরায়েল–ফিলিস্তিন সংঘাত চলছে প্রায় ৭৫ বছর ধরে। সেই ধারাবাহিকতায় গাজা আবারও রক্তাক্ত। সেখানে ইসরায়েলি বাহিনীর নির্বিচার হামলায় প্রতিদিন প্রাণ হারাচ্ছে শত শত মানুষ। ২০২৪ সালে তৃতীয় বছরে গড়াবে ইউক্রেন যুদ্ধ। এই যুদ্ধ সামনে রেখে প্রতিরক্ষা খাতে এরই মধ্যে বিপুল পরিমাণ বরাদ্দ ঘোষণা করেছে রুশ সরকার। ওয়াশিংটনভিত্তিক গবেষণাপ্রতিষ্ঠান কার্নেগি এনডোমেন্ট ফর ইন্টারন্যাশনাল পিস বলছে, শিগগিরই হয়তো এ যুদ্ধ বন্ধের ইচ্ছা নেই ক্রেমলিনের। শুধু রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ নয়, রাজনীতি, অর্থনীতি, সমাজব্যবস্থা কিংবা জলবায়ু- সবকিছুই চ্যালেঞ্জের মধ্যে আছে।  ইউক্রেন-রাশিয়া দ্বন্দ্ব, চীন-তাইওয়ান দ্বন্দ্ব, জাপান-মার্কিন সম্পর্কের উন্নয়ন, রাশিয়া-চীন-ইরানের বিপরীতে যুক্তরাষ্ট্র, জলবায়ু পরিবর্তন ও বৈশ্বিক অচলাবস্থাসহ নানান অনিশ্চয়তা নিয়ে কেমন হবে নতুন বছরে তা নিয়ে বিশ্ব রাজনীতির গতিপথ নির্ধারণ হতে পারে।

তবে আমরা চাই নতুন বছরে সব যুদ্ধ থেমে যাক। পৃথিবী শান্তিময় হোক। শ্যামল সোম তার ‘এক দিন সব যুদ্ধের হোক অবসান’ কবিতায় যেমন বলেছেন, 
‘শপথবাক্য করো উচ্চারণ, এখন সব যুদ্ধের হোক অবসান
শান্তি বর্ষিত ফুলে ফলে, শিশুদের কল্লোলে ভরে যাক পৃথিবী।’

শুভ ইংরেজি নববর্ষ ২০২৪।

লেখক: সাহিত্যিক ও সাংবাদিক

/এসবি/

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়