ঢাকা     শুক্রবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ১৮ ১৪২৯ ||  ০৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

ফলাফল নয়, প্রক্রিয়াতেই মনোযোগ বাংলাদেশের

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:২৫, ৬ অক্টোবর ২০২২   আপডেট: ১৫:২৬, ৬ অক্টোবর ২০২২
ফলাফল নয়, প্রক্রিয়াতেই মনোযোগ বাংলাদেশের

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে বাংলাদেশ সম্প্রতি বাজে সময় পার করছে। দলগত সাফল্য নেই বললেই চলে। ব্যক্তিগত দুয়েকটি পারফরম্যান্সেরও দেখা মেলে হরহামেশা। শেষ ১৪ টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ ম্যাচ হেরেছে দশটি। সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে দুটি এবং জিম্বাবুয়ে ও আফগানিস্তানের বিপক্ষে একটি করে জয়। বড় দলগুলোর বিপক্ষে একদম পেরেই উঠছে না। 

দলেও এসেছে রদবদল। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ অধিনায়কত্বের পর দলে জায়গাও হারিয়েছেন। মুশফিকুর রহিম গিয়েছেন অবসরে। সাকিব আল হাসান দলের দায়িত্ব পেলেও পাল্টেনি ফল। রাসেল ডমিঙ্গোকে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে টেকনিক্যাল কনসালট্যান্ট হিসেবে শ্রীধরন শ্রীরামকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তার জয়-পরাজয়ের পরিসংখ্যান অবশ্য সমান সমান, ২-২। 

সামনে বাংলাদেশের কঠিন পরীক্ষা। শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে ত্রিদেশীয় সিরিজ, যেখানে বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে দারুণ ফর্মে থাকা পাকিস্তানের সঙ্গে। এই সিরিজে অপর দল নিউ জিল্যান্ড। পাকিস্তান গত বিশ্বকাপের সেমিফাইনালিস্ট। নিউ জিল্যান্ড ফাইনালিস্ট। দুই দলেরই এবার সুযোগ আছে বিশ্বকাপ জয়ের। এই দুই দলের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজে বাংলাদেশের সাম্ভাব্য ফল কী হতে পারে তা অনুমেয়। পরিসংখ্যান, সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স কোনও কিছুই বাংলাদেশের পক্ষে কথা বলছে না। 

তবুও ভালো কিছুর আশায় সাকিব অ্যান্ড কোং। মিরাজ যেমন জানালেন, ফল কী হবে সেদিকে না তাকিয়ে নিজেদের প্রক্রিয়ায় মনোযোগ দেওয়াই গুরুত্বপূর্ণ। তার ভাষ্য, ‘ফলাফল তো আমাদের হাতে নেই। আমরা প্রক্রিয়া অনুসরণ করতে পারি এবং ব্যক্তিগতভাবে ভালো ক্রিকেট খেলতে পারি।’ 

এই ত্রিদেশীয় সিরিজ থেকে বাংলাদেশের বিশ্বকাপের মিশন বলা যায় শুরু হয়েছে। সিরিজের ফাইনাল খেললে পাঁচটি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে। নয়তো চারটি। এরপর অস্ট্রেলিয়াতে দক্ষিণ আফ্রিকা ও আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে। ২৪ অক্টোবর বাংলাদেশ বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলবে। 

বিশ্বকাপের আগে এই সিরিজ বেশ কাজে দেবে বলেই বিশ্বাস মিরাজের, ‘হ্যাঁ, অবশ্যই। বিশ্বকাপের আগে এরকম ত্রিদেশীয় সিরিজ আমাদের দলকে অনেক উজ্জীবিত করবে। পাকিস্তান বিশ্বকাপে ভালো করেছে, এশিয়া কাপেও ভালো ক্রিকেট খেলেছে এবং নিউ জিল্যান্ডের মাটিতে খেলবো। আশা করি, বড় দুটি দলের সঙ্গে আমাদের আত্মবিশ্বাস ভালো থাকবে, যদি আমরা এখানে ভালো ক্রিকেট খেলতে পারি। প্রতিটি ক্রিকেটারের প্রস্তুতি এখানে গুরুত্বপূর্ণ। যার যার জায়গা থেকে পারফর্ম করাটা গুরুত্বপূর্ণ। আমরা যদি এখানে ভালো পারফর্ম করতে পারি, বিশ্বকাপে গিয়ে অনেক বেশি ভালো ক্রিকেট খেলতে পারব আশা করি।’ 

নিউ জিল্যান্ডে স্থানীয় সময় সন্ধ্যার পর দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। ভিসা ও টিকিট বিড়ম্বনায় দুদিন আগে যোগ দিতে পারেননি। সাকিব যোগ দিতে পারায় স্বস্তি মিরাজের, ‘সাকিব ভাই আজকে আমাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন। এটা আমাদের জন্য অনেক বড় সুবিধা। কারণ সবশেষ সিরিজে সাকিব ভাই ছিলেন না। এখন আমাদের পরিপূর্ণ দল হয়েছে।’

ঢাকা/ইয়াসিন/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়