ঢাকা     শুক্রবার   ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১০ ১৪৩০

নম্বর জালিয়াতি করে ৪ বছর ধরে বিধবা ভাতার টাকা উত্তোলন

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:১২, ২৯ ডিসেম্বর ২০২২   আপডেট: ১৩:১৯, ২৯ ডিসেম্বর ২০২২
নম্বর জালিয়াতি করে ৪ বছর ধরে বিধবা ভাতার টাকা উত্তোলন

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় অপর্ণা বাড়ৈ নামে এক বিধবা নারীর ভাতার টাকা জালিয়াতি করে অন্য নম্বরের মাধ্যমে উত্তোলনের অভিযোগ উঠেছে। টানা ৪ বছর ধরে এ কাণ্ড চলছে। 

এই ঘটনাটি জানাজানি হলে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

ভুক্তভোগী ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার সাদুল্লাপুর ইউনিয়নের পীড়ারবাড়ী গ্রামের মৃত চিত্ত বাড়ৈর স্ত্রী অপর্ণা বাড়ৈ চার বছর আগে সাবেক ইউপি সদস্য শান্তি রঞ্জন মল্লিকের কাছে বিধবা ভাতার আবেদন করেন। এরপরে শান্তি রঞ্জন তাকে কাগজপত্রে ঝামেলার কথা বলে ফিরিয়ে দেন।

পরবর্তীকালে স্থানীয় সরকার নির্বাচনে বিজয়ী নতুন ইউপি সদস্য দুলাল বাড়ৈর কাছে পুনরায় ভাতা কার্ড এর আবেদন করলে তিনি জানান, বিধবা ভাতাভোগীর তালিকায় অপর্ণা বাড়ৈর নাম আগে থেকেই রয়েছে এবং সে ০১৭৬৫১৮৮৫০৭ নগদ নম্বরে টাকা উত্তোলন করে আসছে। অতঃপর ওই নম্বরের খোঁজ নিলে জানা যায়, সাবেক ইউপি সদস্য শান্তি রঞ্জন মল্লিক জালিয়াতি করে ভাতার কার্ডে স্থানীয় শচীন্দ্রনাথ বাড়ৈর নগদ নম্বর যোগ করে সুবিধা নিয়ে আসছেন।

শান্তি রঞ্জন মল্লিক এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমি ওই মহিলার আইডি কার্ডে তার নম্বর লিখে জমা দিতে বলেছিলাম, হয়ত সে ভুল করে অন্য কারোর নম্বর দিয়েছেন। এখানে আমার কিছুই করার ছিলো না। 

নম্বর জালিয়াতি করে টাকা উত্তোলনের বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফেরদৌস ওয়াহিদ বলেন, কারো টাকা কারো নামে নেওয়ার সুযোগ নেই। এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

বাদল/টিপু

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়