ঢাকা     বুধবার   ১৯ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৫ ১৪৩১

ডোমারে বেড়েছে মলা মাছের চাষ

নীলফামারী প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:১৯, ৩০ মে ২০২৩  
ডোমারে বেড়েছে মলা মাছের চাষ

নীলফামারীর ডোমার উপজেলার চিলাহাটিতে বিলুপ্তপ্রায় মলা মাছের চাষ ব্যাপকভাবে শুরু হয়েছে। বিভিন্ন হাট-বাজারে এখন পাওয়া যাচ্ছে এই মলা মাছ। এতে মানুষের শরীরে আমিষের ঘাটতি পূরণের পাশাপাশি বেকার সমস্যা সমাধান হচ্ছে।

মলা মাছ চাষি মশিয়ার রহমান বলেন, ‘চিলাহাটিতে কোথাও মলা মাছের চাষ হতো না। এমনকি, বাজারেও পাওয়া যেত না। মাঝে মধ্যে নদীতে বা খালে-বিলে পাওয়া যেত। এই মাছ পুকুরে চাষ করা যায়, সেটাও জানতাম না। এলাকায় মলা মাছ চাষ বিস্তারের জন্য সেলফ হেলফ এন্ড রিহেবিলিটেশন প্রোগ্রাম-শার্প সংস্থার সহায়তায় ৭-৮ মাস আগে চাষ শুরু করেছি। এ পর্যন্ত প্রায় ২০ কেজি মলা মাছ বিক্রি করেছি। এখনো পুকুরে মজুদ আছে প্রায় ৭-৮ কেজি। শার্প সংস্থা হতে মাছ চাষের জন্য ১ লাখ ৪০ হাজার টাকা ঋণ নিয়ে পুকুর লিজ নিয়েছি। বর্তমানে আরও ৩টি পুকুরে বাংলা মাছের (কার্প জাতীয়) সঙ্গে মলা মাছ চাষ করেছি।’

আরেক মাছ চাষি খায়রুল ইসলাম বলেন, ‘আমি দুটি পুকুরে মলা মাছ চাষ করেছি। অন্য মাছের চেয়ে ভালো দামে মলা মাছ বিক্রি করা যায়। এখন পাইকারদের কাছে ৪৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করছি।’

বোতলগঞ্জ বাজারের স্থানীয় মাছ বিক্রেতা জাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘মলা মাছ কয়েক বছর আগে পাওয়া যেত না। এখন আমাদের এলাকায় মলা মাছ চাষ হচ্ছে। তাই আমরা চাষিদের কাছ থেকে মলা মাছ কিনে বাজারে বিক্রি করছি।’

এ বিষয়ে শার্প সংস্থার মৎস্য কর্মকর্তা রবিউল আলম বলেন, বর্তমানে চিলাহাটিতে প্রায় ১৫টি পুকুরে (৬.৫ একর) চাষের জন্য মলা মাছ মজুদ রয়েছে।

এ বিষয়ে ডোমার উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ জানান, আগে প্রাকৃতিকভাবে মলা মাছ পাওয়া যেত। কীটনাশক প্রয়োগের ফলে এই মাছগুলো বিলুপ্তির পথে। শার্প সংস্থার সহযোগিতায় মলা মাছ অনেকে চাষ করছে। ডোমার মৎস্য দপ্তর ওই চাষিদের পরামর্শসহ বিভিন্ন সহায়তা দেওয়া হচ্ছে।
 

সিথুন/বকুল

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়