ঢাকা     শনিবার   ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১১ ১৪৩০

দেশের ৭ বিমানবন্দরের সক্ষমতা বৃদ্ধির কাজ চলছে: মাহবুব আলী

নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:৪৬, ৩১ জুলাই ২০২৩  
দেশের ৭ বিমানবন্দরের সক্ষমতা বৃদ্ধির কাজ চলছে: মাহবুব আলী

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী বলেছেন, ‌‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এভিয়েশন শিল্পে নিরব বিপ্লব সাধিত হয়েছে। যশোর, সৈয়দপুরসহ দেশের সাতটি বিমানবন্দর আন্তর্জাতিক মানের করার লক্ষ্যে সক্ষমতা বৃদ্ধির কাজ চলছে। পর্যায়ক্রমে এসব বিমানবন্দরে আন্তর্জাতিক বিমান উঠানামা করবে। প্রধানমন্ত্রীর স্মার্ট বাংলাদেশের যে রূপরেখা প্রকাশ করেছেন সেই যাত্রায় এভিয়েশন শিল্পও হবে স্মার্ট ও আধুনিক।’ 

সোমবার (৩১ জুলাই) দুপুরে যশোর বিমানবন্দরে নবনির্মিত আধুনিক টার্মিনাল ভবন উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন। 

মাহবুব আলী বলেন, ‘শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে দেশের এভিয়েশন শিল্প আন্তর্জাতিক মানের হয়েছে। তার নির্দেশে দেশের সব বিমারবন্দরে যাত্রী সেবার মান উন্নয়ন করা হচ্ছে। শুধু মান উন্নয়ন নয়, নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হচ্ছে। আকাশপথ নিরাপদ রাখতে নিজস্ব পরিচালনায় দেশের সব বিমানবন্দরে উন্নতমানের রাডার স্থাপন করা হচ্ছে। শেখ হাসিনার সরকার মানেই দেশের উন্নয়ন সমৃদ্ধি। গত সাড়ে ১৪ বছরে দেশের অর্থনৈতিক, ব্যবসা-বাণিজ্য, শিল্প ও কৃষি অবকাঠামাতে উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে। দেশের মানুষের জীবনমান উন্নয়নে যা বিশ্বে প্রশংসিত হচ্ছে। দেশের এভিয়েশন শিল্পেও ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। বর্তমান সরকারের নীতিগত সমর্থনে বিভিন্ন বেসরকারি ব্যক্তিরা এই শিল্পে বিনিয়োগ করছে। সবার সম্বনিত প্রচেষ্টায় এভিয়েশন শিল্প দ্রুত প্রবৃদ্ধি ও নিরব বিপ্লব ঘটেছে।’ 

দেশের প্রাচীনতম যশোর বিমানবন্দর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উন্নতি করণ প্রসঙ্গে প্রতিমন্ত্রী বলেন, যশোর ঐতিহ্যেবাহী জেলা। এখানে অনেককিছু আমাদের করার দরকার। অনেক আগেই শেখ হাসিনা আমাদের নির্দেশ দিয়েছেন। যশোরের পর্যটনশিল্প হাতছানি দিচ্ছে। মাইকেল মধুসূদন দত্তের বাড়ি, গদখালি ফুলের রাজ্য ঐতিহ্যেবাহী কৃষি পণ্যের জেলা। এখান থেকে ফুল ফল কার্গো বিমানের মাধ্যমে বিদেশে রপ্তানি করে বৈদ্যশিক মুদ্রা অর্জন করা সম্ভব।  সেই ধারাবাহিকতায় যশোর বিমানবন্দরে ৩২ কোটি ৮৯ লাখ টাকা ব্যায়ে নতুন টার্মিনাল ভবন আজ উদ্বোধন করা হয়েছে। এর ফলে এই অঞ্চলের জনগণ বিমানবন্দর ব্যবহার করে বিমানযাত্রায় আরো উন্নত ও আধুনিক সেবা পাবেন। এই অঞ্চলের পর্যটকসহ অন্যান্য অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড প্রসারে বিমানবন্দরটি ভূমিকা রাখবে। 

তিনি আরও বলেন, যশোর বিমানবন্দর আন্তর্জাতিক করণ প্রক্রিয়াধীন। ইতেমধ্যে ৩৫০ কোটি টাকা ব্যায়ে যশোরে রানওয়ে শক্তি বৃদ্ধির জন্য প্রকল্প নেওয়া হয়েছে। যাতে সুপরিসরে বিমান যশোর রানওয়েতে ওঠা নামা করতে পারে। এগুলোই আন্তর্জাতিক মানউন্নয়নে পূর্বশর্ত। এখানে সক্ষমতা বৃদ্ধি করা হচ্ছে। যশোরকে দ্রুত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে রূপ দেওয়া যায় সেই লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি। শুধু যশোর নয়; দেশের সকল বিমানবন্দর আন্তর্জাতিক করণে কাজ করছে সরকার। যশোরের পাশাপাশি রাজশাহী বিমানবন্দরে ২৮০ কোটি টাকা ব্যায়ে আধুনিক করার প্রকল্প হাতে নেওয়া হচ্ছে। 

এর আগে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যশোরকে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উন্নীত করার প্রয়োজনীয়তা উল্লেখ করে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য। তিনি বলেন, যশোরে সবজি, ফুল মাছ পর্যটনে সম্ভবনার জায়গা। এখানে স্থল ও নৌ বন্দর রয়েছে। যশোরে যদি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উন্নতি হয় তাহলে সরকার হাজার হাজার কোটি টাকা বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করবে। এই অঞ্চলের চাষী উদ্যেক্তরা তাদের ফসলের নায্য মূল্য পাবে। ভারতের কলকাতা বিমানবন্দর যশোরের নিকটে। বাংলাদেশের বিমান কলকাতার বন্দরে প্রচন্ড চাপ বৃদ্ধি পাচ্ছে। এমনকি তাদের সক্ষমতার বাইরে চলে যাচ্ছে। ফলে যশোর কলকাতা রুটে যদি বিমান চালু হয় এটা শুধু যশোরবাসী উপকৃত হবে না; দেশবাসীর সময় ও অর্থ দুটোই সাশ্রয় হবে। 

বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (সিএএবি) সভাপতি এয়ার ভাইস মার্শাল মোঃ মফিদুর রহমানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন- যশোর-৩ আসনের সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ, যশোর-২ আসনের সংসদ সদস্য মেজর জেনারেল (অব.) নাসির উদ্দিন, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোকাম্মেল হোসেন, বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (সিএএবি) প্রধান প্রকৌশলী আব্দুল মালেক।

অনুষ্ঠানে যশোর সেনাবাহিনী, বিমান বাহিনীর কর্মকর্তারাসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। 

রিটন/ মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়