ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৮ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৪ ১৪৩১

২০ কোটি টাকা নিয়ে লাপাত্তা এনজিও ডলফিন, আটক ৬

নওগাঁ সংবাদদাতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:৪৪, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   আপডেট: ১৭:৫৫, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
২০ কোটি টাকা নিয়ে লাপাত্তা এনজিও ডলফিন, আটক ৬

২০ কোটি টাকা নিয়ে লাপাত্তা হওয়া নওগাঁর ডলফিন এনজিও'র মালিক আব্দুর রাজ্জাকসহ ছয়জনকে আটক করেছে র‍্যাব-৫।

রোববার (১৮ ফেব্রুয়ারি) নওগাঁ সার্কিট হাউসের সভাকক্ষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে এসব তথ্য সাংবাদিকদের জানানো হয়।

র‍্যাব-৫ এবং র‍্যাব-১১’র চৌকস আভিযানিক দল নওগাঁয় গ্রাহকের সঞ্চিত প্রায় ২০ কোটি টাকা নিয়ে লাপাত্তা হওয়া এনজিও ডলফিন'র মালিক মো. আব্দুর রাজ্জাক ও তার সহযোগী মো. রিপন, পিয়ার আলী, আতোয়ার রহমান আতা, মোছা. শিল্পি বেগম এবং মোছা. সুমি বেগমকে গ্রেপ্তার করেছে।

ঘটনার বিবরণ থেকে জানা গেছে, নওগাঁ জেলার সদর থানাধীন ফতেহপুর গ্রামের বাসিন্দা মো. আব্দুর রাজ্জাক ২০১৩ সালে ডলফিন সেভিংস অ্যান্ড ক্রেডিট কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড (রেজি. নং- ১২৪৩) নামে একটি সংস্থা গড়ে তোলেন। গ্রামের সহজ সরল মানুষকে প্রতিমাসে তার এনজিও'তে ২,০০০-২,৫০০ টাকা মুনাফা দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে প্রায় ২০ কোটি টাকা আমানত সংগ্রহ করেন। ডলফিন এনজিও-তে এলাকার অনেকেই সঞ্চয়পত্র খোলার নামে অল্প অল্প করে বড় অংকের টাকা আমানত হিসেবে জমা করে। ডলফিন এনজিও'র অফিসে গ্রাহকগণ জমানো টাকার মুনাফা প্রথম তিন মাস পেলেও পরবর্তীতে মুনাফা বন্ধ করে লাপাত্তা হয়ে যায় এনজিও ডলফিন।

লাপাত্তা হওয়ার পর থেকেই র‍্যাব-৫ এবং র‍্যাব-১১’র গোয়েন্দা দল তাদেরকে গ্রেপ্তারের জন্য গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে। অতঃপর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আব্দুর রাজ্জাক, রিপন, পিয়ার আলী, আতোয়ার, শিল্পি বেগম এবং সুমি আক্তারকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। পরবর্তীতে গ্রেপ্তারকৃত আসামিকে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে নওগাঁ সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

সাজু/ফয়সাল

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ