ঢাকা     বুধবার   ১৭ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৪ ১৪৩১

পঞ্চগড়ে আবারও বন্য হাতির আতংক, দুই দেশের মধ্যে জরুরি আলোচনা

পঞ্চগড় প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৪৩, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   আপডেট: ২২:৪৬, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
পঞ্চগড়ে আবারও বন্য হাতির আতংক, দুই দেশের মধ্যে জরুরি আলোচনা

দু’দিন পর আবারো পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় কয়েকটি গ্রামে বন্যহাতির আতংক ছড়িয়ে পড়েছে৷ এদিকে সাধারণ মানুষকে সচেতন ও হাতিকে বিরক্ত করা থেকে বিরত থাকতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে করা হচ্ছে সচেতনামূলক প্রচারণা৷

বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) তেঁতুলিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফজলে রাব্বি তেঁতুলিয়া সদর ইউনিয়নের তেলিপাড়া ও ভারতের হাফতিয়াগছ ফরেস্টের জিরো সীমানায় উপস্থিত হয়ে ভারতীয় বন দপ্তরের প্রতিনিধির সাথে জরুরি সাক্ষাৎ করেন এবং হাতি দু’টিকে ট্রাংকুলাইজার ব্যবহার করে দ্রুত উদ্ধারের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানান।

প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, এ মুহূর্তে বন্য হাতি দুটি পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া সীমান্ত হতে মাত্র ২০০ গজ দূরে ভারতের হাফতিয়াগছ বিএসএফ ক্যাম্প সংলগ্ন একটি বনে অবস্থান করছে। তাই হাতি দু’টি যেন পুনরায় বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না পারে তার জন্য ভারতীয় বন দপ্তরের প্রতিনিধির সাথে সাক্ষাৎ করেন উপজেলা প্রশাসন ও বনবিভাগ৷ হাতি দু’টিকে ট্রাংকুলাইজার ব্যাবহার করে উদ্ধারের জন্য অনুরোধ জানান। তেঁতুলিয়া উপজেলা প্রশাসনের অনুরোধের প্রেক্ষিতে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বন বিভাগের নর্দান সার্কেলের বৈকণ্ঠপুর ডিভিশন  ট্রাংকুলাইজার ব্যবহার করে গাড়িতে করে হাতি দুটিকে নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে মর্মে জানা গেছে।

তেঁতুলিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফজলে রাব্বি বলেন, দু’দিন পর আবারো তেঁতুলিয়ায় হাতি দু’টি বাংলাদেশে প্রবেশের আশঙ্কা থাকায় আমরা সঙ্গে সঙ্গে ভারতের বন দপ্তরের সাথে যোগাযোগ করে আলোচনা করেছি। হাতি দু’টি যেন বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না পারে তার জন্য তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার ব্যাপারে আশ্বাস দিয়েছে। বন্যহাতিকে দেখে কেউ যেন বিরক্ত না করে এবং মানুষকে নিরাপদে থাকতে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সচেতনতামূলক প্রচারণা করা হচ্ছে। 

এর আগে, গত মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৬টার দিকে পঞ্চগড় ১৮ বিজিবির অধীনস্থ রওশনপুর বিওপির দায়িত্বপূর্ণ এলাকার সীমান্ত পিলার ৭৩৫/২ এস এর মধ্যবর্তী ইসলামবাগ এলাকা দিয়ে ভারতীয় এই বন্য হাতি দু’টি বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে। পরে এগুলো তিরনইহাট এলাকা হয়ে গোয়ালগছ বিওপির দায়িত্বপূর্ণ সীমান্তে কাশিমগঞ্জ এলাকায় এসে অবস্থান নিয়ে বেপরোয়া হয়ে কিছু বাড়িঘরে সামান্য ভাঙচুর করে। ওইদিন সন্ধ্যার দিকে হাতির ধাক্কায় নুরুজ্জামান নামের এক কিশোর গুরুতর আহত হয়। এরপর সন্ধ্যা ৭টার পর পঞ্চগড় জেলা আধুনিক সদর হাসপাতালে সে মারা যায়।

নাঈম/ফয়সাল

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়