ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৬ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৩ ১৪৩১

বাসাইলে সড়কে আরসিসি ঢালাই, একদিনেই ফাটল

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:২৫, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   আপডেট: ১৭:৪০, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
বাসাইলে সড়কে আরসিসি ঢালাই, একদিনেই ফাটল

টাঙ্গাইলের বাসাইলে একটি সড়কে আরসিসি ঢালাই করার একদিন পরই বিভিন্ন জায়গায় ফাটল দেখা দিয়েছে। উপজেলার কাশিল বটতলা-বাথুলীসাদী বাজার সড়কের এই কাজটি এখন প্রায় শেষের দিকে। গুরুত্বপূর্ণ সড়কে এভাবে কাজ করায় চরম ক্ষোভ দেখা দিয়েছে পথচারী ও এলাকাবাসীর মধ্যে। স্থানীয় বাসিন্দারা কাজে অনিয়মের অভিযোগ তুলেছেন।

জানা গেছে, এলজিইডি’র অধীনে জিওবি প্রকল্পের আওতায় বাসাইল উপজেলার কাশিল বটতলা থেকে বাথুলীসাদী বাজারের মোড় পর্যন্ত প্রায় ৮৩ লাখ টাকা ব্যয়ে সড়কের কাজটি পায় প্রগতি এন্টারপ্রাইজ নামের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। এরমধ্যে বাথুলীসাদী বাজারের মোড় থেকে ২১০ মিটার সড়ক আরসিসি ঢালাইয়ের চুক্তি হয়। চুক্তি অনুযায়ী গত সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত পর্যন্ত আরসিসি ঢালাইয়ের কাজ হয়। এরপর সকালেই সড়কটির বিভিন্ন জায়গায় ফাটল দেখা দেয়। রাতে যখন ঢালাইয়ের কাজ হয় তখন দায়িত্বপ্রাপ্ত স্থানীয় সরকার অধিদপ্তরের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মনিরুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন না বলে অভিযোগ তোলেন স্থানীয়রা। এছাড়াও, স্থানীয় সরকার অধিদপ্তরের প্রকৌশলী আব্দুল জলিলকেও কাজটি তদারকি করতে দেখা যায়নি বলেও জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এদিকে, ঘটনাস্থলে সাংবাদিক যাওয়ার খবর পেয়ে সংশ্লিষ্টরা তাড়াহুড়ো করে গ্যারাটিন ব্যবহার করে ফাটল বন্ধের চেষ্টা করেন। পরে সড়কে যাতে ফাটল দেখা না যায় সেজন্য কচুরিপানা ও পাটের বস্তা দিয়ে সড়ক ঢেকে দেন তারা।

স্থানীয় বাসিন্দা বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী বলেন, এই সড়কটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। দীর্ঘদিন কাজ না করার কারণে বেহাল দশা হয়েছিল সড়কটির। সম্প্রতি সড়কে আরসিসি ঢালাই ও সংস্কারের কাজ আসে। গত সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সড়কে আরসিসি ঢালাই দেওয়া হয়। ওইদিন মধ্যরাত পর্যন্ত ঢালাইয়ের কাজ চলে। সকালে আরসিসি ঢালাইয়ের বিভিন্ন জায়গায় ছোট-বড় ফাটল দেখা দেয়। ঢালাই কাজে ব্যবহৃত উপাদান নিন্মমানের হওয়ায় একদিনেই ফাটল দেখা দিয়েছে। সড়কে গাড়ি চলাচল শুরু হলে অল্প দিনেই বেহাল দশা হওয়ার শঙ্কা রয়েছে।

স্থানীয় যুবলীগ নেতা রুবেল মিয়া বলেন, আরসিসি ঢালাইয়ের সড়কটিতে একদিনেই বিভিন্ন জায়গায় ফাটল দেখা দিয়েছে। সড়কের কোথাও উঁচু আবার কোথাও নিচু। কাজটি খুবই নিম্নমানের হয়েছে। এই সড়কটি দিয়ে ফুলকি ইউনিয়ন ছাড়াও পাশের উপজেলা কালিহাতীর মানুষ যাতায়াত করেন। বিষয়টি সমাধানে সংশ্লিষ্টদের প্রতি দাবি জানাচ্ছি।

কাশিল ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম খান বলেন, দীর্ঘদিন ধরে কাশিল বটতলা-বাথুলীসাদী সড়কে অল্প বৃষ্টিতেই পানি জমে থাকতো। পথচারীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে চলাচলের ক্ষেত্রে। সড়ক সংস্কার ও আরসিসি ঢালাইয়ের কাজের কথা শুনে স্থানীয় বাসিন্দাদের পাশাপাশি এই সড়কে চলাচলকারী সবাই অনেক খুশি হয়েছিলেন। কিন্তু, সড়কে নিন্মমানের সামগ্রী ব্যবহার করে ঢালাইয়ের কাজ করায় ফাটল দেখা দিয়েছে। সড়কে ফাটল দেখে মানুষ এখন খুবই ক্ষুব্ধ। এলজিইডি’র কর্মকর্তারা টাকা খেয়ে ঢালাইয়ের সময় সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করেননি। এখন তারা গ্যারাটিন ঢেলে ফাটল বন্ধ করার চেষ্টা করছেন, যাতে ফাটল দেখা না যায়।

ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান প্রগতি এন্টারপ্রাইজের মালিক মো. মজনুু মিয়া বলেন, ঢালাইয়ের চার ঘণ্টার মধ্যে পানি দিতে হয়। এটা টেকনিক্যাল কোনো সমস্যা না। হালকা ফাটল দেখা দিয়েছে। কোম্পানির লোকজন ফাটলে গ্যারাটিন দিয়েছে। আপনি (সাংবাদিক) উপজেলা প্রকৌশলীর সঙ্গে কথা বলতে পারেন। 

বাসাইল উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল জলিল বলেন, এটা রেডিমিক্স দিয়ে ঢালাই করা হয়েছে। ঢালাইয়ের পরে শুকানো শুরু হলে কিছুটা চুলফাঁড়া দিতে পারে। পরে কিউরিং হলে ঠিক হয়ে যায়। যে কোম্পানির কাছ থেকে আমরা ঢালাই করেছি, এটা তাদের দায়িত্ব। সড়ক নির্মাণে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের অভিযোগটি তিনি অস্বীকার করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রফিকুল হক বলেন, বিষয়টি শুনেছি। প্রকৌশলীর সঙ্গে কথা হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, ওইখানে যে ঢালাই দেওয়া হয়েছে, সব গাড়ির জন্য লোড নিতে পারবে। ওইখানে এমন একটা মেডিসিন ব্যবহার করা হয়েছে, যার কারণে প্রথমদিকে একটু ফাটল থাকবে। পরবর্তীতে এগুলো ঠিক হয়ে যাবে। বিষয়টি পর্যবেক্ষণে রয়েছে।

কাওছার/মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়