ঢাকা     সোমবার   ১৫ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ২ ১৪৩১

কুমিল্লায় স্ত্রীকে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা

কুমিল্লা প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৫৯, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  
কুমিল্লায় স্ত্রীকে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা

কুমিল্লার চান্দিনায় স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর গলায় ফাঁস দিয়ে সোহেল (২৮) নামের এক ব্যক্তি আত্মহত্যা করেছেন। পাশের ফ্ল্যাটের ভাড়াটিয়ারা পঁচা গন্ধ পেয়ে খবর দিলে পুলিশ দরজা ভেঙে স্বামী-স্ত্রীর লাশ উদ্ধার করে। শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) রাত ৯টার দিকে পৌরসভার রারিরচর গ্রামের আনিছ মোহাম্মদের বাড়ি এলাকার স্বপ্না বেগমের বাসার দ্বিতীয় তলার একটি ফ্ল্যাট থেকে তাদের লাশ উদ্ধার হয়। 

নিহতরা হলেন- চান্দিনার ছায়কোট গ্রামের আব্দুল জলিলের মেয়ে রোজিনা আক্তার (২২) ও কুমিল্লা আদর্শ সদর এলাকার কাপ্তান বাজার এলাকার মুজিবুর রহমান এর ছেলে সোহেল (২৮)। রোজিনা আক্তার একটি পার্লারে কাজ করলেও সোহেল কোনো নির্দিষ্ট কাজ করতেন না বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী।  

ভবনের বাসিন্দা ফরহাদ হোসেন বলেন, আমি ওই ভবনের তৃতীয় তলায় থাকি। গতকাল থেকেই দ্বিতীয় তলা থেকে পঁচা গন্ধ পাচ্ছিলাম। প্রথমে ভেবেছি হয়তো ময়লার গন্ধ। আজ জুম্মার নামাজের পরও একইভাবে গন্ধ পাচ্ছিলাম। পরে ওই ফ্ল্যাটের দরজায় গিয়ে ধাক্কা দেই। কিন্তু, কারও কোনো সাড়া শব্দ পায়নি। পর ওই ফ্ল্যাটের বাসিন্দাদের নম্বরে ফোন করলেও কেউ ফোন রিসিভ করেননি। সন্ধ্যার দিকে আত্মীয়-স্বজনদের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারাও কিছু বলতে পারেননি। অবশেষে থানায় খবর দেই। পুলিশ এসে ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে দুইটি লাশ দেখতে পান। প্রথম কক্ষে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় স্বামী এবং ভেতরের কক্ষে বিছানা থেকে স্ত্রীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। দুইটি মরদেহ পচে ফুলে ছিল।

মারা যাওয়া রোজিনার ভাই শাহজাহান বলেন, সোহেল মাদকাসক্ত ছিল। প্রায়ই রোজিনাকে মারধর করতেন তিনি। ১০-১৫ দিন আগেও মাদকের টাকার জন্য রোজিনাকে মারধর করেন। রোজিনা আমাদের বাড়িতে চলে যায়। আবার তাকে বুঝিয়ে শুনিয়ে আনেন সোহেল। আমার বোনকে প্রায়ই মারধর করতো সোহেল। 

নিহত সোহেলের বোন মুন্নী আক্তার বলেন, দুই বছর আগে তারা (সোহেল-রোজিনা) ভালোবেসে বিয়ে করেছিল। তাদের কোনো সন্তান নেই। সোহেল গত ১৯ তারিখে আমার বাসায় গিয়েছিল। তারপর থেকে তাকে ফোনে আর পাইনি। তার স্ত্রীর ফোনেও কল দিয়েছিলাম। কিন্তু সেও রিসিভ করেনি। আজ সন্ধ্যার পর বাসার মালিক ফোন করার পর আমি ঘটনাস্থলে আসি এবং এ ঘটনা দেখি। 

চান্দিনা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মীর রেজাউল ইসলাম বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে আসি এবং দরজা ভেঙে ফ্ল্যাটের ভেতরে প্রবেশ করি। ধারণা করা হচ্ছে- স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে অমিল থাকায় স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন স্বামী সোহেল। মরদেহের অবস্থা দেখে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি, ৩-৪দিন আগে হত্যাকাণ্ডটি ঘটেছে। আমরা তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেবো।

রুবেল/মাসুদ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়