ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৬ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৩ ১৪৩১

বিদ্যালয়ের যাওয়ার রাস্তার বেহাল দশা, ভোগান্তি শিক্ষার্থীদের

কালীগঞ্জ (গাজীপুর) প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:৩৫, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  
বিদ্যালয়ের যাওয়ার রাস্তার বেহাল দশা, ভোগান্তি শিক্ষার্থীদের

গাজীপুরের শ্রীপুরে কাদা-মাটির পথ মাড়িয়ে বিদ্যালয় ও পরীক্ষা কেন্দ্রে যেতে হয় কয়েক হাজার শিক্ষার্থীকে। এতে একদিকে শিক্ষার্থীদের যেমন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে, অন্যদিকে হচ্ছে সময়ের অপচয়। দ্রুত সময়ের মধ্যে সড়ক সংস্কার করে ভোগান্তি দূর করার দাবি ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীদের।

জানা গেছে, শ্রীপুর উপজেলার ঢাকা–ময়মনসিংহ মহাসড়কের এমসি বাজার থেকে হাজী ছোট কলিম উচ্চ বিদ্যালয় এসএসসি পরীক্ষাকেন্দ্র পর্যন্ত ৫০০ মিটার রাস্তার বেহাল দশা। খানাখন্দের কারণে সড়কে জমে থাকে পানি। যানবাহন চলাচলের কারণে কাদা মাটি ছড়িয়ে পড়ছে পুরো সড়কে। প্রতিদিন এ সড়ক দিয়ে চলাচল করে শিক্ষার্থীসহ কয়েক হাজার মানুষ।

আশপাশের রয়েছে বেশ কয়েকটি শিল্প প্রতিষ্ঠান। বিশেষ করে প্রতি বছর এসএসসি পরীক্ষা শুরু হলে শিক্ষার্থীদের এ কর্দমাক্ত পথ মাড়িয়ে যেতে হয় পরীক্ষাকেন্দ্রে। তাতে করে অসহনীয় ভোগান্তি পোহাতে হয় পরীক্ষার্থী–শিক্ষক ও অভিভাবকদের। অনেক শিক্ষার্থীর জামাকাপড় নষ্ট হয় কাদা ও ময়লা পানিতে।

এসএসসি পরীক্ষার্থী ইসরাত জাহান বলেন, প্রতিদিন পরীক্ষায় অংশ নিতে এই সড়কের কাদা মাটির পথ মাড়িয়ে আমাদের পরীক্ষাকেন্দ্রে যেতে হয়। যানবাহন চলাচলের কারণে কাদা ছিটে জামাকাপড় নষ্ট হয়। অপর পরীক্ষার্থী এনামুল হক বলেন, পায়ে হেঁটে চলাচল করা খুবই সমস্যা। অল্প রাস্তার জন্য আমাদের খুবই ভোগান্তি।

স্থানীয় বাসিন্দা গিয়াসউদ্দিন বলেন, মেয়েকে নিয়ে প্রতিদিন পরীক্ষাকেন্দ্রে আসি। ৫০০ মিটার রাস্তায় খুবই ভোগান্তি হয়। হেঁটে চলাচলের সময় কাদা-পানি লেগে জামাকাপড় নষ্ট হয়ে যায়।

স্থানীয় ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম বলেন, খানাখন্দে ভরা রাস্তাটুকু দিয়ে পায়ে হেঁটে চলাচল করা দায়। আমাদের মালামাল আনা–নেওয়া খুবই কঠিন। দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে রাস্তা সংস্কারের দাবি করে আসলেও কাজে আসছে না।

হাজী ছোট কলিম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল হান্নান সজল বলেন, এবার এই কেন্দ্রে প্রায় তিন হাজার শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করছে। অল্প সড়কের জন্য খুবই ভোগান্তি হচ্ছে। আমাদের দাবি, আগামী পরীক্ষার পূর্বেই যেন রাস্তা সংস্কার হয়।

তেলিহাটি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আব্দুল বাতেন সরকার বলেন, পরীক্ষাকেন্দ্রের গুরুত্ব বিবেচনা করে অনেক আগেই বরাদ্দ চাওয়া হয়েছে। আশা করি, খুব দ্রুত সড়ক সংস্কার করে ভোগান্তি দূর করা হবে।

শ্রীপুর উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুস সামাদ বলেন, আমি এই উপজেলায় অল্প কয়দিন আগে যোগাযোগ করেছি। খোঁজ খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

/রফিক/মেহেদী/

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়