ঢাকা     বুধবার   ১৭ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৪ ১৪৩১

নড়াইলে শিশু নুসরাত হত্যা

স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলেন সৎ মা জোবায়দা 

নড়াইল প্রতিনিধি  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:১০, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  
স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলেন সৎ মা জোবায়দা 

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার কাশিপুর ইউপির গিলাতলা গ্রামে তিন বছরের শিশু নুসরাত জাহান হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার হয়েছেন সৎমা জোবায়দা বেগম (২১)। তিনি আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

বুধবার (২ ফেব্রুয়ারি) বিকালে লোহাগড়া আমলি আদালতের জ্যেষ্ঠ বিচারক হেলাল উদ্দিনের কাছে তিনি শিশু নুসরাতকে গলা টিপে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন বলে জানান নড়াইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারেক আল মেহেদী।

গত মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের গিলাতলা গ্রামে শিশু নুসরাত জাহান হত্যার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে সৎ মা জোবায়দা বেগমকে আটক করে পুলিশ।

তার জবানবন্দির বরাত দিয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারেক আল মেহেদী বলেন, মঙ্গলবার দুপুরে নুসরাত জাহানকে তার বড় ভাই ইয়াসিন মারধর করলে সে কান্না করে। কান্না থামাতে বারান্দার একটি কক্ষে নিয়ে তার মুখ চেপে ধরেন জোবায়দা। এতে তার মৃত্যু হয়। নুসরাতের মৃত্যু বুঝতে পেরে জোবায়দা বেগম তাকে কাঁথা দিয়ে মুড়িয়ে বাইরে এসে স্বাভাবিক আচরণ করেন। পরে গোসলের সময় দাদি পান্না বেগম ডাকাডাকি করে কোনো সাড়া শব্দ না পেয়ে ঘরে গিয়ে নুসরাতকে মৃত অবস্থায় পান।পুলিশ খবর পেয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নড়াইল সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। এ সময় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নুসরাতের বাবা সজীব কাজী ও সৎ মা জোবায়দাকে আটক করা হয়।

এ ঘটনায় নুসরাত জাহানের দাদা খায়ের কাজী জোবায়দা বেগমকে একমাত্র আসামি করে লোহাগড়া থানায় মামলা করেন।  

লোহাগড়া থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) কাঞ্চন কুমার রায় বলেন, আদালতের স্বীকারোক্তির পর জোবায়দা বেগমকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। 

শরিফুল/টিপু

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়