ঢাকা     বুধবার   ২৯ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪৩১

বাবার বাড়ি বেড়াতে যাওয়ায় স্ত্রীকে ২৭ কোপ 

বরগুনা প্রতিনিধি  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:৫৬, ২৫ এপ্রিল ২০২৪  
বাবার বাড়ি বেড়াতে যাওয়ায় স্ত্রীকে ২৭ কোপ 

বরগুনার আমতলী উপজেলায় বাবার বাড়ি বেড়াতে যাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে ঘুমিয়ে থাকায় স্ত্রীকে ২৭টি কোপ দিয়ে গুরুতর আহত করেছেন স্বামী। এ ঘটনায় আহত ওই গৃহবধূকে উন্নত চিকিৎসার জন্য আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছেন চিকিৎসক। 

এ ঘটনায় অভিযুক্ত স্বামী মাহতাব উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) ভোররাতে বরগুনার আমতলী উপজেলার ঘোপখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত ওই গৃহবধূর নাম শাহনাজ বেগম। 

স্বজনদের বরাত দিয়ে আমতলী থানা পুলিশ জানায়, উপজেলার ঘোপখালী গ্রামের মাহতাব হাওলাদারের স্ত্রী তিন সন্তানের জননী শাহনাজ বেগম গত মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) বাবা নান্না কাজীর বাড়িতে বেড়াতে যান। এতে ক্ষিপ্ত হয় তার স্বামী মাহতাব। বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) ভোর রাতে ঘুমন্ত স্ত্রীকে মাহতাব ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাথা, মুখমন্ডল, হাত, পা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ২৭টি কোপ দেয়। পরে মৃত ভেবে ফেলে রাখে। প্রতিবেশীদের মাধ্যমে খবর পেয়ে তার স্বজনরা থানায় খবর দেয়। পুলিশ এসে মাহতাবকে আটক করে এবং গুরুতর আহত শাহনাজকে উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। ওই হাসপাতালের চিকিৎসক তাকে সংঙ্কটজনক অবস্থায় বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠিয়েছেন।  

আহত শাহনাজের মামা নাসির হাওলাদার বলেন, ‘আমার ভাগ্নি তার বাবার বাড়িতে বেড়াতে যায়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মাহতাব তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে শরীরের বিভিন্ন স্থানে ২৭টি কোপ দেয়। পরে মৃত ভেবে ফেলে রাখে। আমরা এ ঘটনার শাস্তি দাবি করছি।’ 

আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. লুনা বিনতে হক বলেন, ওই নারীর মাথা, মুখমন্ডল, হাত, পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের ২৭টি চিহৃ রয়েছে। তাকে সংঙ্কটজনক অবস্থায় বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। 

আমতলী থানার ওসি কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে ওই গৃহবধূকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। মাহতাবকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনি প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

ইমরান/বকুল

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়