ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৮ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৪ ১৪৩১

মাগুরায় দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, আহত ১০

মাগুরা প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:০৩, ২ মে ২০২৪  
মাগুরায় দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, আহত ১০

মাগুরার শ্রীপুরে প্রথম ধাপের ৬ষ্ঠ উপজেলা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থীর সমর্থকরা মোটরসাইকেল প্রতীকের নির্বাচনী কার্যালয় ভাঙচুর করেছে।

বুধবার (১ মে) রাত সাড়ে ৯ টার দিকে উপজেলার গয়েশপুর ইউনিয়নের নবগ্রাম বাজারে এ ঘটনা ঘটে। 

পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় উভয় প্রার্থীর সমর্থকদের অন্তত ১০টি মোটরসাইকেল ভাঙচুর ও ১০ জন আহত হয়েছে। আহতরা বর্তমানে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ভাঙচুর হওয়া মোটরসাইকেল শ্রীপুর থানা হেফাজতে রয়েছে। এ ঘটনার পর থেকে ওই এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। ঘটনাস্থল থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৪ জনকে আটক করেছে শ্রীপুর থানা পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বুধবার রাতে গয়েশপুর ইউনিয়নের নবগ্রাম বাজারে মোটরসাইকেল প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী শরিয়তউল্লাহ হোসেন মিয়া রাজনের নির্বাচনী কার্যালয় উদ্বোধন করা হয়। এর কিছুক্ষণ পর ঘোড়া প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী এমএম মোতাসিম বিল্লাহ সংগ্রামের সমর্থকরা ওই নির্বাচনী কার্যালয়ের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় বিভিন্ন ধরণের উস্কানিমূলক স্লোগান দেয়। এ নিয়ে উভয়পক্ষের সমর্থকরা সংষর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত ও ১০টি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। 

এ বিষয়ে চেয়ারম্যান প্রার্থী শরিয়তউল্লাহ হোসেন মিয়া রাজন বলেন, বুধবার রাতে আমার সমর্থকরা নবগ্রাম বাজারে নির্বাচনী কার্যালয় অবস্থান করছিলেন। এমন সময় ঘোড়া প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মোতাসিম বিল্লাহ সংগ্রামের সমর্থকরা গয়েশপুর ইউপি চেয়ারম্যান হালিম মোল্যার নেতৃত্বে অতর্কিত হামলা করে নির্বাচনী কার্যালয় ভাঙচুর করে। এ সময় আমার বেশ কয়েকজন সমর্থক আহত হয় এবং তাদের মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। কয়েকদিন আগে সব্দালপুর ইউনিয়নের সোনাইকুন্ডী গ্রামে তারা একই ঘটনা ঘটিয়েছিল। পরে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বড় ধরণের ঘটনা সেদিন ঘটেনি। আমার বিরোধী পক্ষ আমার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে একের পর এক নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করছে।  

এ বিষয়ে অপরপক্ষের সমর্থক গয়েশপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হালিম মোল্যা বলেন, মোটরসাইকেল প্রতীকের নির্বাচনী কার্যালয়ের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় আমাদের উপর অতর্কিত হামলা হয়। তারা আমাদের বেশ কয়েকটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে। এ সময় আমাদের বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। 

শ্রীপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ তাসমীম আলম জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ৪ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

শাহীন/টিপু

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়