ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৮ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৪ ১৪৩১

বাজারে অপরিপক্ব লিচু, আরও তিন সপ্তাহের অপেক্ষা

মোসলেম উদ্দিন, দিনাজপুর  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:২০, ১৯ মে ২০২৪   আপডেট: ১১:৩০, ১৯ মে ২০২৪
বাজারে অপরিপক্ব লিচু, আরও তিন সপ্তাহের অপেক্ষা

দিনাজপুর- আম, কাঁঠাল আর লিচুতে ভরপুর। আম-কাঁঠালের পাশাপাশি এ জেলার লিচুও এখন পরিণত প্রায়। ফলনও ভালো হয়েছে।  আগামী ২০ থেকে ২৫ দিনের মধ্যে চাষিরা লিচু বাজারজাত করতে পারবেন, তবে বর্তমান যেসব লিচু বাজারে উঠেছে এগুলো অপরিপক্ক।

চলতি মৌসুমে এবার দিনাজপুরের ১৩টি উপজেলায় ৫ হাজার ৭২৬ হেক্টর জমিতে লিচুর চাষ হয়েছে বলে জানিয়েছে জেলা কৃষি অধিদপ্তর।

জেলার হাকিমপুর ও ঘোড়াঘাট উপজেলার বিভিন্ন রাস্তা-ঘাট, বাড়ির আঙিনাসহ কয়েকটি বাগান ঘুরে দেখা যায়, প্রায় গাছে দুলছে সবুজ রঙের লিচু। কিছু গাছের লিচু লালচে রঙ ধরেছে। এসব লালচে রঙের লিচু ২০ থেকে ২৫ দিনের মধ্যে খাওয়ার উপযোগী হয়ে উঠবে।

এসব বাগানে চায়নাথ্রি, মাদ্রাজি ও বোম্বে জাতের লিচু গাছ রয়েছে। চাষিরা বাগানে পানি সেচসহ পোকামাকড় দমনের ঔষধ স্প্রে করছে। এছাড়াও পশু-পাখির হাত থেকে লিচু রক্ষার জন্য গাছে গাছে নেটজাল ব্যবহারের প্রস্তুতি নিচ্ছে। 

হাকিমপুর উপজেলার জালালপুর গ্রামের লিচু চাষি আসলাম হোসেন বলেন, সাড়ে ৫ বিঘা জমির উপর আমার এই বাগান। এখানে প্রায় ৩২০ টি চায়নাথ্রি জাতের লিচু গাছে আছে। ১১ বছর আগে এই বাগান তৈরি করেছি। বিগত ৮ বছর যাবৎ বাগানে ফল পাচ্ছি। গত বছরে দেড় লাখ টাকার লিচু বিক্রি করেছি। গতবারের চেয়েও এ বছর লিচুর ফলন অনেকটা ভালো। আশা করছি, এই মৌসুমে দুই থেকে আড়াই লাখ টাকার লিচু বিক্রি করতে পারবো।

ঘোড়াঘাট পৌর এলাকার আব্দুল আজিজ বলেন, আমার বাড়িতে একটা চায়নাথ্রি জাতের লিচু গাছ আছে। প্রায় গাছটির বয়স ১৬ বছর হবে। প্রতি বছর এই গাছে প্রচুর লিচু ধরে এবং লিচুগুলো খুব মিষ্টি ও সুস্বাদু। এবার ফলন অনেক ভালো। আবহাওয়া ভালো থাকলে আশা করছি ফলনও ভালো পাবো।

ঘোড়াঘাট উপজেলা কৃষি অফিসার মো. রফিকুজ্জামান বলেন, আম-লিচুতে ভরপুর দিনাজপুর। এরই অংশ হিসাবে ঘোড়াঘাটে লিচুর চাষ ভালো হয়েছে। উপজেলায় ৬৩ হেক্টর জমিতে লিচুর চাষ হয়েছে। এর মধ্যে ১২৬টি লিচুর বাগান রয়েছে। ফলন গতবারের চেয়ে এবার অনেক ভালো। আমরা লিচু চাষিদের পোকামাকড় দমনের কীটনাশক স্প্রে সহ বিভিন্ন পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছি। 

হাকিমপুর উপজেলা কৃষি অফিসার আরজেনা বেগম বলেন, এই উপজেলায় লিচুর ফলন অনেক ভালো। উপজেলায় ১৩ হেক্টর জমিতে লিচুর চাষ হয়েছে। আমরা লিচুর বিভিন্ন বাগান পরিদর্শন করছি এবং কৃষকদের গাছ পরিচর্যার জন্য পরামর্শ দিয়ে আসছি। আশা করছি, আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যে লিচু চাষিরা তাদের কাঙ্ক্ষিত লিচু পেড়ে বাজারজাত করবে।

এবিষয়ে দিনাজপুর জেলা কৃষি অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো.  নুরুজ্জামান বলেন, ‘চলতি মৌসুমে এবার জেলায় ৫ হাজার ৭২৬ হেক্টর জমিতে লিচুর চাষ করেছেন কৃষকেরা। উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা লিচু চাষিদের সেবা দিয়ে আসছে। আগামী ২০ থেকে ২৫ দিনের মধ্যে লিচু চাষিরা লিচু বাজারজাত করতে পারবেন, তবে বর্তমান যেসব লিচু বাজারে উঠেছে এগুলো অপরিপক্ক। এবার লিচুর ফলন ভালো, আশা করছি দামও ভালো পাবেন লিচু চাষিরা।

/টিপু/

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ